Dhaka ০৬:৫৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রাজবাড়ীতে খাদ্য বান্ধব কর্মসূচীর ৫০ বস্তা চাল জব্দ ॥ ৩ জনের বিরুদ্ধে মামলা

সংবাদদাতা-
  • প্রকাশের সময় : ০৭:১৪:২৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ৫ অক্টোবর ২০১৯
  • / ১৪২০ জন সংবাদটি পড়েছেন


জনতার আদালত অনলাইন ॥ রাজবাড়ী সদর উপজেলার বসন্তপুর ইউনিয়নের রাজাপুর এলাকার একটি মুদি দোকান থেকে শুক্রবার সন্ধ্যায় খাদ্য বান্ধব কর্মসূচীর ১০ টাকা কেজি দরের ৫০ বস্তা চাল জব্দ করা হয়েছে। এ ঘটনায় শনিবার সংশ্লিষ্ট ট্যাগ অফিসার ও উপজেলা সহকারী প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা নৃপেন্দ্র নাথ সরকার বাদী হয়ে তিনজনের বিরুদ্ধে রাজবাড়ী সদর থানায় মামলা করেছেন। ঘটনার পর থেকে মুদি ব্যবসায়ী শাহীন পলাতক রয়েছে।
এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, বসন্তপুর ইউনিয়নের কোলারহাট বাজারের খাদ্যবান্ধব কর্মসূচীর ডিলার মতিউর রহমানের দোকান থেকে ১০ বস্তা চাল রাজাপুর এলাকার শাহীনের মুদি দোকানে নেয়ার সময় স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও এলাকাবাসী চালগুলো জব্দ করে বসন্তপুর ইউপি চেয়ারম্যান ও প্রশাসনকে খবর দেন। পুলিশ গিয়ে চালগুলো জব্দ করে। পরে শাহীনের দোকান থেকে আরও ৪০ বস্তা চাল উদ্ধার করে।
বসন্তপুর ইউপি চেয়ারম্যান মীর্জা বদিউজ্জামান বাবু জানান, তিনি ইউনিয়ন খাদ্যবান্ধব কর্মসূচীর সভাপতি। তার ইউনিয়নের কোলারহাট বাজারের ডিলার মতিউর অবৈধ ভাবে খাদ্যবান্ধব কর্মসূচীর ১০ টাকা কেজি দরের চাল বিক্রি করবে। এমন খবর পেয়ে ইউপি মেম্বারদের খোঁজ খবর নিতে বলেন। শুক্রবার বিকেলে জানতে পারেন মহারাজপুরের মুদি দোকানদার শাহীন চাল কিনে তার দোকানে নিয়ে যাচ্ছে। শাহীনের দোকানের সামনে থেকে মেম্বার ও এলাকাবাসী ভ্যানসহ ১০ বস্তা চাল জব্দ করে তাকে খবর দেন। তিনি ঘটনাস্থলে গিয়ে জেলা প্রশাসক, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, পুলিশকে বিষয়টি জানান। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে দোকান খুলে আরও ৪০ বস্তা চাল উদ্ধার করে।
তিনি আরও জানান, মতিউর ডিলার হলেও রাজীব নামে এক ব্যক্তি তা পরিচালনা করে। ঘটনার সাথে যারাই জড়িত থাকুক তাদের শাস্তির দাবি জানান তিনি।
ডিলার মতিউর রহমান অবৈধ ভাবে কারো কাছে কোন চাল বিক্রি করেননি বলে দাবি করেন।
খানখানাপুর পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ শহিদুল ইসলাম জানান, ঘটনাস্থলে গিয়ে ১০ বস্তা চাল পান। পরে শাহীনের দোকান থেকে আরো ৪০ বস্তা চাউল উদ্ধার করেন। তবে এ ঘটনায় কাউকে আটক করতে পারেন নি।
রাজবাড়ী সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সাইদুজ্জামান খান জানান, চালগুলো জব্দ করে থানায় দেয়া হয়েছে। পাশাপাশি এব্যাপারে মামলা করে দুর্নীতি দমন কমিশন ফরিদপুর কার্যালয়ে পাঠানো হয়েছে। দুদক তদন্ত করে দায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে।
রাজবাড়ী সদর থানার ওসি স্বপন কুমার মজুমদার জানান, এব্যাপারে তিনজনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। পুলিশ বিষয়টি তদন্ত করছে।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

রাজবাড়ীতে খাদ্য বান্ধব কর্মসূচীর ৫০ বস্তা চাল জব্দ ॥ ৩ জনের বিরুদ্ধে মামলা

প্রকাশের সময় : ০৭:১৪:২৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ৫ অক্টোবর ২০১৯


জনতার আদালত অনলাইন ॥ রাজবাড়ী সদর উপজেলার বসন্তপুর ইউনিয়নের রাজাপুর এলাকার একটি মুদি দোকান থেকে শুক্রবার সন্ধ্যায় খাদ্য বান্ধব কর্মসূচীর ১০ টাকা কেজি দরের ৫০ বস্তা চাল জব্দ করা হয়েছে। এ ঘটনায় শনিবার সংশ্লিষ্ট ট্যাগ অফিসার ও উপজেলা সহকারী প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা নৃপেন্দ্র নাথ সরকার বাদী হয়ে তিনজনের বিরুদ্ধে রাজবাড়ী সদর থানায় মামলা করেছেন। ঘটনার পর থেকে মুদি ব্যবসায়ী শাহীন পলাতক রয়েছে।
এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, বসন্তপুর ইউনিয়নের কোলারহাট বাজারের খাদ্যবান্ধব কর্মসূচীর ডিলার মতিউর রহমানের দোকান থেকে ১০ বস্তা চাল রাজাপুর এলাকার শাহীনের মুদি দোকানে নেয়ার সময় স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও এলাকাবাসী চালগুলো জব্দ করে বসন্তপুর ইউপি চেয়ারম্যান ও প্রশাসনকে খবর দেন। পুলিশ গিয়ে চালগুলো জব্দ করে। পরে শাহীনের দোকান থেকে আরও ৪০ বস্তা চাল উদ্ধার করে।
বসন্তপুর ইউপি চেয়ারম্যান মীর্জা বদিউজ্জামান বাবু জানান, তিনি ইউনিয়ন খাদ্যবান্ধব কর্মসূচীর সভাপতি। তার ইউনিয়নের কোলারহাট বাজারের ডিলার মতিউর অবৈধ ভাবে খাদ্যবান্ধব কর্মসূচীর ১০ টাকা কেজি দরের চাল বিক্রি করবে। এমন খবর পেয়ে ইউপি মেম্বারদের খোঁজ খবর নিতে বলেন। শুক্রবার বিকেলে জানতে পারেন মহারাজপুরের মুদি দোকানদার শাহীন চাল কিনে তার দোকানে নিয়ে যাচ্ছে। শাহীনের দোকানের সামনে থেকে মেম্বার ও এলাকাবাসী ভ্যানসহ ১০ বস্তা চাল জব্দ করে তাকে খবর দেন। তিনি ঘটনাস্থলে গিয়ে জেলা প্রশাসক, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, পুলিশকে বিষয়টি জানান। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে দোকান খুলে আরও ৪০ বস্তা চাল উদ্ধার করে।
তিনি আরও জানান, মতিউর ডিলার হলেও রাজীব নামে এক ব্যক্তি তা পরিচালনা করে। ঘটনার সাথে যারাই জড়িত থাকুক তাদের শাস্তির দাবি জানান তিনি।
ডিলার মতিউর রহমান অবৈধ ভাবে কারো কাছে কোন চাল বিক্রি করেননি বলে দাবি করেন।
খানখানাপুর পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ শহিদুল ইসলাম জানান, ঘটনাস্থলে গিয়ে ১০ বস্তা চাল পান। পরে শাহীনের দোকান থেকে আরো ৪০ বস্তা চাউল উদ্ধার করেন। তবে এ ঘটনায় কাউকে আটক করতে পারেন নি।
রাজবাড়ী সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সাইদুজ্জামান খান জানান, চালগুলো জব্দ করে থানায় দেয়া হয়েছে। পাশাপাশি এব্যাপারে মামলা করে দুর্নীতি দমন কমিশন ফরিদপুর কার্যালয়ে পাঠানো হয়েছে। দুদক তদন্ত করে দায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে।
রাজবাড়ী সদর থানার ওসি স্বপন কুমার মজুমদার জানান, এব্যাপারে তিনজনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। পুলিশ বিষয়টি তদন্ত করছে।