Dhaka ০২:২৩ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১২ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

রাজবাড়ীর পদ্মায় মুখোশধারী দুর্বৃত্তদের হামলা ॥ গুলিবিদ্ধ ৪ বালু শ্রমিক

সংবাদদাতা-
  • প্রকাশের সময় : ০৮:২৪:১০ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০১৭
  • / ১৩৭০ জন সংবাদটি পড়েছেন

স্টাফ রিপোর্টার ॥ ॥ রাজবাড়ী সদর উপজেলার মিজানপুর ইউনিয়নের চর বেনিনগর এলাকায় পদ্মা নদীতে মুখোশধারী দুর্বৃত্তদের গুলিতে ট্রলার মালিকসহ চার বালু শ্রমিক আহত হয়েছে। আহতরা হলো ট্রলার মালিক ইউনুস মন্ডল, শ্রমিক ফজলাল খা, রিপন প্রামানিক ও কুদ্দুস আলী। এদের সবার বাড়ি পাবনা জেলার সদর উপজেলার বিভিন্ন গ্রামে। তাদেরকে রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১০ টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। কারা কেন তাদের উপর হামলা  চালিয়েছে তা এখনও জানা যায়নি। তবে বালুর ব্যবসার বিরোধকে কেন্দ্র করে এ ঘটনা ঘটেছে বলে স্থানীয়দের ধারণা। ওই শ্রমিকরা রাজবাড়ী সদর উপজেলার জৌকুড়া বালু মহলের ইজারাদার  দীপক কুন্ডুর বালু আনা নেয়া করছিল।
ইজারাদার দীপক কুন্ডুর ম্যানেজার সোহেল  রানা জানান, তিনি জৌকুড়া অফিসে বসে গোলাগুলির খবর শুনতে পান। তবে কারা এ ঘটনা ঘটিয়েছে তা জানেন না বলে জানান তিনি।
হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ট্রলার মালিক ইউনুস আলী জানান, বিভিন্ন বালু মহাল থেকে তারা ট্রলারে করে বালু পরিবহন করে থাকে। বৃহস্পতিবার রাজবাড়ী জৌকুড়া এলাকার বালু মহাল থেকে বালু তুলে তা মাওয়া ঘাট এলাকায় নামিয়ে দিয়ে আবারও জৌকুড়া ফিরছিলেন। ওই সময় তিনিসহ সাতজন শ্রমিক ট্রলারটিতে ছিলেন। তাদের ট্রলারটি রাজবাড়ীর গোদারবাজার পেরিয়ে পদ্মা নদীর চর বেনিনগর এলাকায় পৌছালে একটি ছোট নৌকায় মুখোশধারী তিনজন দুর্বৃত্ত তাদের ট্রলারের কাছাকাছি এসে অতর্কিতে এলোপাথারি গুলি করে পালিয়ে যায়। এতে চার শ্রমিক আহত হয়। কেন কি কারণে তাদের উপর হামলা হয়েছে তা তারা তিনি জানাতে পারেনি।
রাজবাড়ী সদর থানার ওসি আবুল বাশার জানান, খবর  পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। তবে এখনও পর্যন্ত এঘটনায় কেউ মামলা বা কোনো লিখিত অভিযোগ দায়ের করেনি।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

রাজবাড়ীর পদ্মায় মুখোশধারী দুর্বৃত্তদের হামলা ॥ গুলিবিদ্ধ ৪ বালু শ্রমিক

প্রকাশের সময় : ০৮:২৪:১০ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০১৭

স্টাফ রিপোর্টার ॥ ॥ রাজবাড়ী সদর উপজেলার মিজানপুর ইউনিয়নের চর বেনিনগর এলাকায় পদ্মা নদীতে মুখোশধারী দুর্বৃত্তদের গুলিতে ট্রলার মালিকসহ চার বালু শ্রমিক আহত হয়েছে। আহতরা হলো ট্রলার মালিক ইউনুস মন্ডল, শ্রমিক ফজলাল খা, রিপন প্রামানিক ও কুদ্দুস আলী। এদের সবার বাড়ি পাবনা জেলার সদর উপজেলার বিভিন্ন গ্রামে। তাদেরকে রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১০ টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। কারা কেন তাদের উপর হামলা  চালিয়েছে তা এখনও জানা যায়নি। তবে বালুর ব্যবসার বিরোধকে কেন্দ্র করে এ ঘটনা ঘটেছে বলে স্থানীয়দের ধারণা। ওই শ্রমিকরা রাজবাড়ী সদর উপজেলার জৌকুড়া বালু মহলের ইজারাদার  দীপক কুন্ডুর বালু আনা নেয়া করছিল।
ইজারাদার দীপক কুন্ডুর ম্যানেজার সোহেল  রানা জানান, তিনি জৌকুড়া অফিসে বসে গোলাগুলির খবর শুনতে পান। তবে কারা এ ঘটনা ঘটিয়েছে তা জানেন না বলে জানান তিনি।
হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ট্রলার মালিক ইউনুস আলী জানান, বিভিন্ন বালু মহাল থেকে তারা ট্রলারে করে বালু পরিবহন করে থাকে। বৃহস্পতিবার রাজবাড়ী জৌকুড়া এলাকার বালু মহাল থেকে বালু তুলে তা মাওয়া ঘাট এলাকায় নামিয়ে দিয়ে আবারও জৌকুড়া ফিরছিলেন। ওই সময় তিনিসহ সাতজন শ্রমিক ট্রলারটিতে ছিলেন। তাদের ট্রলারটি রাজবাড়ীর গোদারবাজার পেরিয়ে পদ্মা নদীর চর বেনিনগর এলাকায় পৌছালে একটি ছোট নৌকায় মুখোশধারী তিনজন দুর্বৃত্ত তাদের ট্রলারের কাছাকাছি এসে অতর্কিতে এলোপাথারি গুলি করে পালিয়ে যায়। এতে চার শ্রমিক আহত হয়। কেন কি কারণে তাদের উপর হামলা হয়েছে তা তারা তিনি জানাতে পারেনি।
রাজবাড়ী সদর থানার ওসি আবুল বাশার জানান, খবর  পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। তবে এখনও পর্যন্ত এঘটনায় কেউ মামলা বা কোনো লিখিত অভিযোগ দায়ের করেনি।