Dhaka 5:05 pm, Friday, 3 February 2023

কাঁচা মরিচ, বড্ড ঝাল!

সংবাদদাতা-
  • প্রকাশের সময় : 06:35:39 pm, Friday, 4 September 2020
  • / 1211 জন সংবাদটি পড়েছেন

জনতার আদালত অনলাইন ॥ রাজবাড়ীতে হঠাৎ করেই কাঁচা মরিচের তীব্র সংকট দেখা দিয়েছে। বৃহস্পতিবার রাতে বাজারে কাঁচা মরিচ ছিলইনা বলে জানা গেছে। শুক্রবার পাওয়া গেলেও  দাম ছিল নাগালের বাইরে। দীর্ঘস্থায়ী বন্যার কারণে মরিচ ক্ষেত ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার কারণে এ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে বলে জানা গেছে।

শুক্রবার সকালে রাজবাড়ী বাজার ঘুরে দেখা গেছে, ভারতীয় কাঁচা মরিচ খুচরা প্রতি কেজি দুইশ থেকে দুইশ বিশ টাকা পর্যন্ত বিক্রি হচ্ছে।

নিতীশ সাহা নামে একজন ক্রেতা বৃহস্পতিবার রাতে বাজার করতে গিয়ে কাঁচামরিচ পাননি বলে জানান। পরে বিকল্প হিসেবে কিনেছেন শুকনা মরিচ।

খুচরা বিক্রেতা কিয়াম উদ্দিন জানান, বৃহস্পতিবার রাতে তিনশ টাকা কেজি দরে বিক্রি হয়েছে কাঁচা মরিচ। এরপর তাও পাওয়া যায়নি। আড়ত থেকে কেনার উপর নির্ভর করে খুচরা বিক্রি। আজ (শুক্রবার) ভারতীয় মরিচ দুশ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। দেশি মরিচ পাওয়া যাচ্ছে না।

রাজবাড়ী বাজারের আড়তপট্টির মেসার্স মোক্তার ট্রেডার্সের মালিক মোক্তার হোসেন মিঠু জানান, আমদানীর উপর নির্ভর করে কেনাবেচা। বন্যায় মরিচ ক্ষেত নষ্ট হয়ে যাওয়ায় দেশি মরিচের আমদানী নেই বললেই চলে। সাধারণত মধুখালী আর জামালপুর থেকে দেশি মরিচ আমদানী হয়। তাও দাম বেশি। আজ দুদিন দেশি মরিচ আমদানী হচ্ছেনা। বর্তমানে ভারতীয় মরিচ বিক্রি হচ্ছে। পাইকারী তারা ১৮০ টাকা কেজি দরে বিক্রি করছেন। দেশি মরিচ আমদানী শুরু হলে দাম করতে পারে বলে জানান তিনি।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

কাঁচা মরিচ, বড্ড ঝাল!

প্রকাশের সময় : 06:35:39 pm, Friday, 4 September 2020

জনতার আদালত অনলাইন ॥ রাজবাড়ীতে হঠাৎ করেই কাঁচা মরিচের তীব্র সংকট দেখা দিয়েছে। বৃহস্পতিবার রাতে বাজারে কাঁচা মরিচ ছিলইনা বলে জানা গেছে। শুক্রবার পাওয়া গেলেও  দাম ছিল নাগালের বাইরে। দীর্ঘস্থায়ী বন্যার কারণে মরিচ ক্ষেত ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার কারণে এ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে বলে জানা গেছে।

শুক্রবার সকালে রাজবাড়ী বাজার ঘুরে দেখা গেছে, ভারতীয় কাঁচা মরিচ খুচরা প্রতি কেজি দুইশ থেকে দুইশ বিশ টাকা পর্যন্ত বিক্রি হচ্ছে।

নিতীশ সাহা নামে একজন ক্রেতা বৃহস্পতিবার রাতে বাজার করতে গিয়ে কাঁচামরিচ পাননি বলে জানান। পরে বিকল্প হিসেবে কিনেছেন শুকনা মরিচ।

খুচরা বিক্রেতা কিয়াম উদ্দিন জানান, বৃহস্পতিবার রাতে তিনশ টাকা কেজি দরে বিক্রি হয়েছে কাঁচা মরিচ। এরপর তাও পাওয়া যায়নি। আড়ত থেকে কেনার উপর নির্ভর করে খুচরা বিক্রি। আজ (শুক্রবার) ভারতীয় মরিচ দুশ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। দেশি মরিচ পাওয়া যাচ্ছে না।

রাজবাড়ী বাজারের আড়তপট্টির মেসার্স মোক্তার ট্রেডার্সের মালিক মোক্তার হোসেন মিঠু জানান, আমদানীর উপর নির্ভর করে কেনাবেচা। বন্যায় মরিচ ক্ষেত নষ্ট হয়ে যাওয়ায় দেশি মরিচের আমদানী নেই বললেই চলে। সাধারণত মধুখালী আর জামালপুর থেকে দেশি মরিচ আমদানী হয়। তাও দাম বেশি। আজ দুদিন দেশি মরিচ আমদানী হচ্ছেনা। বর্তমানে ভারতীয় মরিচ বিক্রি হচ্ছে। পাইকারী তারা ১৮০ টাকা কেজি দরে বিক্রি করছেন। দেশি মরিচ আমদানী শুরু হলে দাম করতে পারে বলে জানান তিনি।