Dhaka 12:35 am, Sunday, 5 February 2023

আশুলিয়ায় অগ্নিকান্ডে ৮ দোকান ভষ্মিভুত

সংবাদদাতা-
  • প্রকাশের সময় : 07:38:22 pm, Thursday, 9 April 2020
  • / 1346 জন সংবাদটি পড়েছেন

জনতার আদালত অনলাইন ॥ রাজধানী ঢাকার পার্শবর্তী শিল্পনগরী আশুলিয়ার অগ্নিকান্ডের ঘটনায় ৮ দোকান ভষ্মিভুত হয়েছে। মঙ্গলবার দিবাগত রাত দেড়টার দিকে বাইপাইল এলাকায় হাজী মিজান মার্কেটে এই অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে।
বুধবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে অগ্নিকান্ডের বিষয়টি নিশ্চিত করেন ডিইপিজেড ফায়ার সার্ভিসের সিনিয়র স্টেশন অফিসার জাহাঙ্গীর আলম।
প্রত্যক্ষদর্শী ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার দিবাগত রাত দেড়টার দিকে বাইপাইলের হাজী মিজান মার্কেটে আগুন দেখে এলাকাবাসী ফায়ার সার্ভিসে খবর দেয়। ফায়ার সার্ভিসের তিনটি ইউনিট প্রায় ১ ঘন্টা চেষ্টার পর আগুন নিয়ন্ত্রনে আনতে সক্ষম হয়। ততক্ষনে শাহ জামাল, আল আমীন, বাচ্চু মিয়া, পিন্টু খন্দকার সহ সাতজনের দোকানের সমস্ত মালামাল আগুনে ভষ্মিভুত হয়ে যায়।
মার্কেট ম্যানেজার দেলোয়ার জানান, অগ্নিকান্ডের ঘটনায় প্রায় দেড় কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে জানিয়েছে ক্ষতিগ্রস্থ ব্যবসায়ীরা। তবে আগুনের সুত্রপাত কিভাবে হয়েছে তা নিশ্চতভাবে কেউ বলতে পারছে না।
এ ব্যাপারে ডিইপিজেড ফায়ার সার্ভিসের সিনিয়র স্টেশন অফিসার জাহাঙ্গীর আলম জানান, খবর পেয়ে ডিইপিজেড ফায়ার সার্ভিসের ৩টি ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌঁছে প্রায় ১ ঘণ্টা চেষ্টার পর আগুন পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে আসে।
তিনি আরো বলেন, বৈদ্যুতিক তারগুলো এলোমেলো ভাবে ঝুঁলানো ছিলো যার কারণে দ্রুত আগুন ছড়িয়ে পরে। তবে কি কারণে আগুনের সূত্রপাত তা এখনো নিশ্চিত করা যায়নি। তবে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছি বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকেই আগুনের সূত্রপাত হতে পারে।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

আশুলিয়ায় অগ্নিকান্ডে ৮ দোকান ভষ্মিভুত

প্রকাশের সময় : 07:38:22 pm, Thursday, 9 April 2020

জনতার আদালত অনলাইন ॥ রাজধানী ঢাকার পার্শবর্তী শিল্পনগরী আশুলিয়ার অগ্নিকান্ডের ঘটনায় ৮ দোকান ভষ্মিভুত হয়েছে। মঙ্গলবার দিবাগত রাত দেড়টার দিকে বাইপাইল এলাকায় হাজী মিজান মার্কেটে এই অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে।
বুধবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে অগ্নিকান্ডের বিষয়টি নিশ্চিত করেন ডিইপিজেড ফায়ার সার্ভিসের সিনিয়র স্টেশন অফিসার জাহাঙ্গীর আলম।
প্রত্যক্ষদর্শী ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার দিবাগত রাত দেড়টার দিকে বাইপাইলের হাজী মিজান মার্কেটে আগুন দেখে এলাকাবাসী ফায়ার সার্ভিসে খবর দেয়। ফায়ার সার্ভিসের তিনটি ইউনিট প্রায় ১ ঘন্টা চেষ্টার পর আগুন নিয়ন্ত্রনে আনতে সক্ষম হয়। ততক্ষনে শাহ জামাল, আল আমীন, বাচ্চু মিয়া, পিন্টু খন্দকার সহ সাতজনের দোকানের সমস্ত মালামাল আগুনে ভষ্মিভুত হয়ে যায়।
মার্কেট ম্যানেজার দেলোয়ার জানান, অগ্নিকান্ডের ঘটনায় প্রায় দেড় কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে জানিয়েছে ক্ষতিগ্রস্থ ব্যবসায়ীরা। তবে আগুনের সুত্রপাত কিভাবে হয়েছে তা নিশ্চতভাবে কেউ বলতে পারছে না।
এ ব্যাপারে ডিইপিজেড ফায়ার সার্ভিসের সিনিয়র স্টেশন অফিসার জাহাঙ্গীর আলম জানান, খবর পেয়ে ডিইপিজেড ফায়ার সার্ভিসের ৩টি ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌঁছে প্রায় ১ ঘণ্টা চেষ্টার পর আগুন পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে আসে।
তিনি আরো বলেন, বৈদ্যুতিক তারগুলো এলোমেলো ভাবে ঝুঁলানো ছিলো যার কারণে দ্রুত আগুন ছড়িয়ে পরে। তবে কি কারণে আগুনের সূত্রপাত তা এখনো নিশ্চিত করা যায়নি। তবে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছি বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকেই আগুনের সূত্রপাত হতে পারে।