Dhaka ০২:০৬ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রাজবাড়ীতে শান্তিপূর্ণ নির্বাচন

সংবাদদাতা-
  • প্রকাশের সময় : ০৬:৪৭:৪৭ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২১
  • / ১২২৮ জন সংবাদটি পড়েছেন

জনতার আদালত অনলাইন॥ রাজবাড়ীতে অবাধ, সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সকাল থেকে প্রতিটি কেন্দ্রে ভোটারদের ছিল দীর্ঘ লাইন। ইভিএম এর মাধ্যমে ভোট হওয়ায় ভোট প্রদানে কিছুটা ধীরগতি লক্ষ্য করা গেছে। দুপুর সাড়ে তিনটার দিকেও অনেক কেন্দ্রে ভোটাররা লাইনে দাঁড়িয়ে ছিল। এখন পর্যন্ত কোনো প্রকার অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি।
ভোট চলাকালীন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থা ছিল লক্ষ্যণীয়। পুলিশ ও আনসার বাহিনী ছিল ভোটকেন্দ্রের নিরাপত্তার দায়িত্বে। র‌্যাব ও বিজিবিকেও টহল দিতে দেখা গেছে। বেলা ১০টা ৪০ এর দিকে পৌরসভার ৯ নং ওয়ার্ডের রাজবাড়ী সরকারি কলেজ কেন্দ্রে গিয়ে জানা যায়, ৩৯৪ জন ভোটার ভোট প্রদান করেছে। ওই সময় নারী ভোটারদের দীর্ঘ লাইন দেখা গেছে। এই কেন্দ্রের মোট ভোটার ২৫১৭ জন। এই কেন্দ্রের ভোটগ্রহণকারী একজন কর্মকর্তা জানান, ইভিএম এ ভোটাররা অভ্যস্ত না হওয়ায় ভোট দিতে কিছুটা সময় বেশি লাগছে। কেন্দ্রের প্রিসাইডিং অফিসার অরূপ কুমার প্রামানিক জানান, তিনি নিজে ভোটারদের ভোট দেওয়া শেখাচ্ছেন। তারপরও বিলম্ব হচ্ছে।
১১টা পর্যন্ত ১ নং ওয়ার্ডের কাজী হেদায়েত হোসেন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে ভোট পড়ে ৪৭৯টি। এই কেন্দ্রের মোট ভোটার ২০৭৫ জন।
তবে ব্যতিক্রম দেখা গেছে ৩ নং ওয়ার্ডের পৌর প্রাথমিক বিদ্যালয়ে। বেলা ১২টা পর্যন্ত এই কেন্দ্রে ভোট পড়ে ৬৪৪টি। এই কেন্দ্রে ছয়টি বুথের মাধ্যমে ভোটগ্রহণ করা হয়।
দুপুর সোয়া তিনটার দিকে ৮ নং ওয়ার্ডের বাজার পাঠশালা সরকারি কেন্দ্রে গিয়ে দেখা যায়, ভোটাররা লাইনে দাঁড়িয়ে আছে ভোট দেওয়ার অপেক্ষায়। কেন্দ্রের প্রিসাইডিং অফিসার জানান, ৩১২৬ জন ভোটারের মধ্যে ১৬৫৮ জন ভোট দিয়েছে।
এদিকে ভোট দিতে গিয়ে সমস্যা হয়নি বলে জানিয়েছেন ভোটাররা। পৌরসভার ধুঞ্চি গ্রামের বাসিন্দা ৭৫ বছর বয়সী শরীফা বেগম জানান, ভোটগ্রহণকারী কর্মকর্তারা তাকে যেভাবে দেখিয়ে দিয়েছে সেভাবেই ভোট দিয়েছেন। কোনো সমস্যা হয়নি। একই কথা জানান, বিনোদপুর গ্রামের গৃহবধূ মলিনা পারভীন।
রাজবাড়ীর জেলা প্রশাসক দিলসাদ বেগম ও পুলিশ সুপার এমএম শাকিলুজ্জামান বিভিন্ন ভোটকেন্দ্র পরিদর্শন করেন।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

রাজবাড়ীতে শান্তিপূর্ণ নির্বাচন

প্রকাশের সময় : ০৬:৪৭:৪৭ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২১

জনতার আদালত অনলাইন॥ রাজবাড়ীতে অবাধ, সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সকাল থেকে প্রতিটি কেন্দ্রে ভোটারদের ছিল দীর্ঘ লাইন। ইভিএম এর মাধ্যমে ভোট হওয়ায় ভোট প্রদানে কিছুটা ধীরগতি লক্ষ্য করা গেছে। দুপুর সাড়ে তিনটার দিকেও অনেক কেন্দ্রে ভোটাররা লাইনে দাঁড়িয়ে ছিল। এখন পর্যন্ত কোনো প্রকার অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি।
ভোট চলাকালীন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থা ছিল লক্ষ্যণীয়। পুলিশ ও আনসার বাহিনী ছিল ভোটকেন্দ্রের নিরাপত্তার দায়িত্বে। র‌্যাব ও বিজিবিকেও টহল দিতে দেখা গেছে। বেলা ১০টা ৪০ এর দিকে পৌরসভার ৯ নং ওয়ার্ডের রাজবাড়ী সরকারি কলেজ কেন্দ্রে গিয়ে জানা যায়, ৩৯৪ জন ভোটার ভোট প্রদান করেছে। ওই সময় নারী ভোটারদের দীর্ঘ লাইন দেখা গেছে। এই কেন্দ্রের মোট ভোটার ২৫১৭ জন। এই কেন্দ্রের ভোটগ্রহণকারী একজন কর্মকর্তা জানান, ইভিএম এ ভোটাররা অভ্যস্ত না হওয়ায় ভোট দিতে কিছুটা সময় বেশি লাগছে। কেন্দ্রের প্রিসাইডিং অফিসার অরূপ কুমার প্রামানিক জানান, তিনি নিজে ভোটারদের ভোট দেওয়া শেখাচ্ছেন। তারপরও বিলম্ব হচ্ছে।
১১টা পর্যন্ত ১ নং ওয়ার্ডের কাজী হেদায়েত হোসেন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে ভোট পড়ে ৪৭৯টি। এই কেন্দ্রের মোট ভোটার ২০৭৫ জন।
তবে ব্যতিক্রম দেখা গেছে ৩ নং ওয়ার্ডের পৌর প্রাথমিক বিদ্যালয়ে। বেলা ১২টা পর্যন্ত এই কেন্দ্রে ভোট পড়ে ৬৪৪টি। এই কেন্দ্রে ছয়টি বুথের মাধ্যমে ভোটগ্রহণ করা হয়।
দুপুর সোয়া তিনটার দিকে ৮ নং ওয়ার্ডের বাজার পাঠশালা সরকারি কেন্দ্রে গিয়ে দেখা যায়, ভোটাররা লাইনে দাঁড়িয়ে আছে ভোট দেওয়ার অপেক্ষায়। কেন্দ্রের প্রিসাইডিং অফিসার জানান, ৩১২৬ জন ভোটারের মধ্যে ১৬৫৮ জন ভোট দিয়েছে।
এদিকে ভোট দিতে গিয়ে সমস্যা হয়নি বলে জানিয়েছেন ভোটাররা। পৌরসভার ধুঞ্চি গ্রামের বাসিন্দা ৭৫ বছর বয়সী শরীফা বেগম জানান, ভোটগ্রহণকারী কর্মকর্তারা তাকে যেভাবে দেখিয়ে দিয়েছে সেভাবেই ভোট দিয়েছেন। কোনো সমস্যা হয়নি। একই কথা জানান, বিনোদপুর গ্রামের গৃহবধূ মলিনা পারভীন।
রাজবাড়ীর জেলা প্রশাসক দিলসাদ বেগম ও পুলিশ সুপার এমএম শাকিলুজ্জামান বিভিন্ন ভোটকেন্দ্র পরিদর্শন করেন।