Dhaka 6:37 am, Sunday, 5 February 2023

পাংশায় চাঁদাবাজি মামলায় গ্রেপ্তার ৭

সংবাদদাতা-
  • প্রকাশের সময় : 07:22:30 pm, Saturday, 3 October 2020
  • / 1265 জন সংবাদটি পড়েছেন

জনতার আদালত অনলাইন ॥ রাজবাড়ীর পাংশা থানার পুলিশ শুক্রবার দিবাগত রাতে পাংশা উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে চাঁদাবাজি ও ভেকু পোড়ানো মামলার সাত আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে। গ্রেপ্তারকৃতরা হলো উপজেলার পাট্টা গ্রামের ইন্তাজ আলী খার ছেলে উজির আলী খা, মোসলেম সরদারের ছেলে নান্নু সরদার, গুধিবাড়ি গ্রামের হানিফ বিশ^াসের ছেলে কামাল বিশ^াস, মাগুড়াডঙ্গি গ্রামের আবুল কমিশনারের ছেলে আব্দুর রাজ্জাক রাজাই, রামপ্রসাদ পালের ছেলে পলাশ পাল, সত্যজিৎপুর গ্রামের জালাল শিকদারের ছেলে রাসেল শিকদার ও চরঝিকরি গ্রামের আবুল মোল্লার ছেলে আকমল মোল্লা। এদের মধ্যে আব্দুর রাজ্জাক রাজাই  উপজেলা  যুবলীগের সদস্য ও কামাল বিশ^াস উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান জালাল বিশ^াসের ছোট ভাই। অন্যরা আওয়ামী লীগের সহযোগি সংগঠনের কর্মী বলে জানা গেছে।

পাংশা থানার ওসি শাহাদত হোসেন জানান, গ্রেপ্তারকৃতরা চাঁদাবাজি  মামলার পরোয়ানাভুক্ত আসামি। কয়েকজনের বিরুদ্ধে ভেকু পোড়ানোর অভিযোগেও মামলা আছে। শুক্রবার দিবাগত রাতে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। শনিবার সব আসামিকে রাজবাড়ীর আদালতে চালান করা হয়েছে।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

পাংশায় চাঁদাবাজি মামলায় গ্রেপ্তার ৭

প্রকাশের সময় : 07:22:30 pm, Saturday, 3 October 2020

জনতার আদালত অনলাইন ॥ রাজবাড়ীর পাংশা থানার পুলিশ শুক্রবার দিবাগত রাতে পাংশা উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে চাঁদাবাজি ও ভেকু পোড়ানো মামলার সাত আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে। গ্রেপ্তারকৃতরা হলো উপজেলার পাট্টা গ্রামের ইন্তাজ আলী খার ছেলে উজির আলী খা, মোসলেম সরদারের ছেলে নান্নু সরদার, গুধিবাড়ি গ্রামের হানিফ বিশ^াসের ছেলে কামাল বিশ^াস, মাগুড়াডঙ্গি গ্রামের আবুল কমিশনারের ছেলে আব্দুর রাজ্জাক রাজাই, রামপ্রসাদ পালের ছেলে পলাশ পাল, সত্যজিৎপুর গ্রামের জালাল শিকদারের ছেলে রাসেল শিকদার ও চরঝিকরি গ্রামের আবুল মোল্লার ছেলে আকমল মোল্লা। এদের মধ্যে আব্দুর রাজ্জাক রাজাই  উপজেলা  যুবলীগের সদস্য ও কামাল বিশ^াস উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান জালাল বিশ^াসের ছোট ভাই। অন্যরা আওয়ামী লীগের সহযোগি সংগঠনের কর্মী বলে জানা গেছে।

পাংশা থানার ওসি শাহাদত হোসেন জানান, গ্রেপ্তারকৃতরা চাঁদাবাজি  মামলার পরোয়ানাভুক্ত আসামি। কয়েকজনের বিরুদ্ধে ভেকু পোড়ানোর অভিযোগেও মামলা আছে। শুক্রবার দিবাগত রাতে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। শনিবার সব আসামিকে রাজবাড়ীর আদালতে চালান করা হয়েছে।