Dhaka 2:09 am, Friday, 9 December 2022

পাংশায় প্রবাসীর বাড়িতে ডাকাতি

সংবাদদাতা-
  • প্রকাশের সময় : 08:40:34 pm, Friday, 22 September 2017
  • / 1304 জন সংবাদটি পড়েছেন

স্টাফ রিপোর্টার ॥ রাজবাড়ীর পাংশা উপজেলার ঢেকিপাড়া গ্রামে সৌদিআরব প্রবাসী বাকীবিল্লাহর বাড়িতে বুধবার দিবাগত রাতে ডাকাতি সংঘটিত হয়েছে। ডাকাতদল বাড়ির তিন সদস্যকে বেঁধে রেখে স্বর্ণালংকার ও মূলবান জিনিসপত্র লুটে নিয়ে যায়।
বাকীবিল্লাহর ভাতিজা ইলিয়াস হোসেন জানান, তার চাচা সৌদিআরব প্রবাসী। বাড়িতে তার চাচী ও চাচাতো ভাই কুতুবউদ্দিন থাকে। বুধবার রাত দুইটার দিকে একদল দুর্বৃত্ত তাদের প্রতিবেশি ইকবালকে হাতÑপা বেঁধে ‘চোর ধরেছি’ বলে তার চাচাতো ভাই ও চাচীকে ডাকাডাকি করে। তারা বের হলে চাচাতো ভাই কুতুবকে অস্ত্রের মুখে বেঁধে ফেলে। ওই রাতে তার চাচার বাড়িতে রাতযাপন করতে আসা প্রতিবেশি রকিবকেও বেঁধে ফেলে তিনজনকে একটি কক্ষে নিয়ে আটকে রাখা হয়। এরপর দুর্বৃত্তরা স্বর্ণালংকার, মোবাইল সেটসহ মূল্যবান জিনিসপত্র লুটে নিয়ে পালিয়ে যায়। পরে তার চাচী চাচাতো ভাই কুতুব ও প্রতিবেশি  রকিবের হাতের বাঁধন খুলে দেন। আর বাঁধা হাত নিয়েই পালিয়ে যায় ইকবাল।
পাংশা থানার ওসি মোফাজ্জেল হোসেন জানান, খবর পেয়ে পাংশা থানার পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। ভুক্তভোগীরা যাকে চিনে ফেলেছে তাকে আটকের চেষ্টা চলছে।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

পাংশায় প্রবাসীর বাড়িতে ডাকাতি

প্রকাশের সময় : 08:40:34 pm, Friday, 22 September 2017

স্টাফ রিপোর্টার ॥ রাজবাড়ীর পাংশা উপজেলার ঢেকিপাড়া গ্রামে সৌদিআরব প্রবাসী বাকীবিল্লাহর বাড়িতে বুধবার দিবাগত রাতে ডাকাতি সংঘটিত হয়েছে। ডাকাতদল বাড়ির তিন সদস্যকে বেঁধে রেখে স্বর্ণালংকার ও মূলবান জিনিসপত্র লুটে নিয়ে যায়।
বাকীবিল্লাহর ভাতিজা ইলিয়াস হোসেন জানান, তার চাচা সৌদিআরব প্রবাসী। বাড়িতে তার চাচী ও চাচাতো ভাই কুতুবউদ্দিন থাকে। বুধবার রাত দুইটার দিকে একদল দুর্বৃত্ত তাদের প্রতিবেশি ইকবালকে হাতÑপা বেঁধে ‘চোর ধরেছি’ বলে তার চাচাতো ভাই ও চাচীকে ডাকাডাকি করে। তারা বের হলে চাচাতো ভাই কুতুবকে অস্ত্রের মুখে বেঁধে ফেলে। ওই রাতে তার চাচার বাড়িতে রাতযাপন করতে আসা প্রতিবেশি রকিবকেও বেঁধে ফেলে তিনজনকে একটি কক্ষে নিয়ে আটকে রাখা হয়। এরপর দুর্বৃত্তরা স্বর্ণালংকার, মোবাইল সেটসহ মূল্যবান জিনিসপত্র লুটে নিয়ে পালিয়ে যায়। পরে তার চাচী চাচাতো ভাই কুতুব ও প্রতিবেশি  রকিবের হাতের বাঁধন খুলে দেন। আর বাঁধা হাত নিয়েই পালিয়ে যায় ইকবাল।
পাংশা থানার ওসি মোফাজ্জেল হোসেন জানান, খবর পেয়ে পাংশা থানার পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। ভুক্তভোগীরা যাকে চিনে ফেলেছে তাকে আটকের চেষ্টা চলছে।