Dhaka 7:42 pm, Friday, 3 February 2023

দৌলতদিয়ায় যৌনকর্মীদের সভা॥ নারী পাচারকারী ও দালালচক্রের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোর আহ্বান

সংবাদদাতা-
  • প্রকাশের সময় : 08:24:24 pm, Saturday, 28 September 2019
  • / 1602 জন সংবাদটি পড়েছেন


জনতার আদালত অনলাইন ॥ রাজবাড়ীর গোয়ালন্দের দৌলতদিয়া পতিতাপল্লী। সেখানে নারী পাচারকারী ও দালালচক্রের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোর আহ্বান জানিয়েছে ওই পল্লীর সাধারণ বাড়িওয়ালী ও যৌনকর্মীদের নতুন সংগঠন ‘নারী ঐক্য’। বৃহস্পতিবার বিকেলে দৌলতদিয়া পতিতাপল্লীতে নারী ঐক্যের আয়োজনে এক আলোচনা সভায় এই আহ্বান জানানো হয়। আয়োজক সংগঠনের সভানেত্রী ঝুমুর আক্তারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ওই সভায় বক্তব্য রাখেন বাড়িওয়ালী ছলে বেগম, পারভীন আক্তার,আলেয়া বেগম, নারী ঐক্যের সাধারণ সম্পাদক মনি বেগম প্রমূখ। আলোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্যে ঝুমুর আক্তার বলেন, ‘এই পল্লীর শান্তিপ্রিয় সাধারণ বাড়িওয়ালী ও যৌনকর্মীরা অনেক ক্ষেত্রে অধিকারঞ্চিত হয়ে আছে। এলাকার প্রভাবশালী লোকজনসহ নারী পাচারকারি দালাল শ্রেণির দ্বারা নানা ভাবে তারা প্রতিনিয়ত বিভিন্ন নির্যাতনের শিকার হচ্ছেন। তাই এখন থেকে নির্যাতনকারী, নারী পাচারকারী ও দালালচক্রের বিরুদ্ধে আমাদের নারী ঐক্য সংগঠন রুখে দাঁড়াবে। কোন প্রকারের অন্যায়-অত্যাচার আমরা আর মুখ বুজে সহ্য করবো না।’ সভায় পল্লীর শতাধিক বাড়িওয়ালী ও যৌনকর্মী এ সময় উপস্থিত ছিলেন।
উল্লেখ্য, দেশের সবচেয়ে বড় পাতিতাপল্লী গোয়ালন্দের দৌলতদিয়া ঘাট রেলস্টেশনের পাশে অবস্থিত। বর্তমান সেখানে প্রায় তিন হাজার যৌনকর্মীর বসবাস। এর মধ্যে পাঁচ শতাধিক শিশু-কিশোরী (অপ্রাপ্ত বয়সী) যৌনকর্মী রয়েছে। এদিকে কোন শিশু কিশোরী নারীকে যৌনপেশায় লিপ্ত করানো সম্পূর্ণ আইন নিষিদ্ধ। তা সত্বেও দৌলতদিয়া পতিতাপল্লীকে ঘিরে গড়ে উঠেছে বিশাল এক দালালচক্র। দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে তারা কৌশলে বিভিন্ন প্রলোভনের ফাঁদে ফেলে সাধারণ মেয়েদেরকে ওই যৌনপল্লীতে নিয়ে আসে। পরে পল্লীর বিভিন্ন বাড়িওয়ালীর কাছে ফুঁসলিয়ে আনা মেয়েদেরকে নগদ টাকায় বিক্রি করে দালালরা পালিয়ে যায়।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

দৌলতদিয়ায় যৌনকর্মীদের সভা॥ নারী পাচারকারী ও দালালচক্রের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোর আহ্বান

প্রকাশের সময় : 08:24:24 pm, Saturday, 28 September 2019


জনতার আদালত অনলাইন ॥ রাজবাড়ীর গোয়ালন্দের দৌলতদিয়া পতিতাপল্লী। সেখানে নারী পাচারকারী ও দালালচক্রের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোর আহ্বান জানিয়েছে ওই পল্লীর সাধারণ বাড়িওয়ালী ও যৌনকর্মীদের নতুন সংগঠন ‘নারী ঐক্য’। বৃহস্পতিবার বিকেলে দৌলতদিয়া পতিতাপল্লীতে নারী ঐক্যের আয়োজনে এক আলোচনা সভায় এই আহ্বান জানানো হয়। আয়োজক সংগঠনের সভানেত্রী ঝুমুর আক্তারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ওই সভায় বক্তব্য রাখেন বাড়িওয়ালী ছলে বেগম, পারভীন আক্তার,আলেয়া বেগম, নারী ঐক্যের সাধারণ সম্পাদক মনি বেগম প্রমূখ। আলোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্যে ঝুমুর আক্তার বলেন, ‘এই পল্লীর শান্তিপ্রিয় সাধারণ বাড়িওয়ালী ও যৌনকর্মীরা অনেক ক্ষেত্রে অধিকারঞ্চিত হয়ে আছে। এলাকার প্রভাবশালী লোকজনসহ নারী পাচারকারি দালাল শ্রেণির দ্বারা নানা ভাবে তারা প্রতিনিয়ত বিভিন্ন নির্যাতনের শিকার হচ্ছেন। তাই এখন থেকে নির্যাতনকারী, নারী পাচারকারী ও দালালচক্রের বিরুদ্ধে আমাদের নারী ঐক্য সংগঠন রুখে দাঁড়াবে। কোন প্রকারের অন্যায়-অত্যাচার আমরা আর মুখ বুজে সহ্য করবো না।’ সভায় পল্লীর শতাধিক বাড়িওয়ালী ও যৌনকর্মী এ সময় উপস্থিত ছিলেন।
উল্লেখ্য, দেশের সবচেয়ে বড় পাতিতাপল্লী গোয়ালন্দের দৌলতদিয়া ঘাট রেলস্টেশনের পাশে অবস্থিত। বর্তমান সেখানে প্রায় তিন হাজার যৌনকর্মীর বসবাস। এর মধ্যে পাঁচ শতাধিক শিশু-কিশোরী (অপ্রাপ্ত বয়সী) যৌনকর্মী রয়েছে। এদিকে কোন শিশু কিশোরী নারীকে যৌনপেশায় লিপ্ত করানো সম্পূর্ণ আইন নিষিদ্ধ। তা সত্বেও দৌলতদিয়া পতিতাপল্লীকে ঘিরে গড়ে উঠেছে বিশাল এক দালালচক্র। দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে তারা কৌশলে বিভিন্ন প্রলোভনের ফাঁদে ফেলে সাধারণ মেয়েদেরকে ওই যৌনপল্লীতে নিয়ে আসে। পরে পল্লীর বিভিন্ন বাড়িওয়ালীর কাছে ফুঁসলিয়ে আনা মেয়েদেরকে নগদ টাকায় বিক্রি করে দালালরা পালিয়ে যায়।