Dhaka 6:59 pm, Friday, 3 February 2023

বালিয়াকান্দিতে মন্দিরে রহস্যজনক অগ্নিকান্ড ॥ পুড়েছে কালী ও শিব প্রতিমা

সংবাদদাতা-
  • প্রকাশের সময় : 08:10:56 pm, Thursday, 25 February 2021
  • / 1180 জন সংবাদটি পড়েছেন

জনতার আদালত অনলাইন ॥ রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলার নবাবপুর ইউনিয়নের সাহেবপাড়া গ্রামে শ্মশান কালী মন্দিরে রহস্যজনক অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটেছে। এতে মন্দিরে থাকা কালী ও শিব প্রতীমার শরীরের বিভিন্ন অংশ পুড়ে গেছে। মন্দির কর্তৃপক্ষের ধারণা দুর্বৃত্তরা অগ্নিসংযোগ করেছে। পুলিশ বলছে, সন্ধ্যা প্রদীপ থেকে অগ্নিকান্ড সংঘটিত হয়েছে।

স্থানীয় হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজন জানান, বৃহস্পতিবার সকালে তারা দেখতে পান, মন্দিরে থাকা কালী ও শিব প্রতীমার শরীরের বিভিন্ন অংশ পুড়ে গেছে। কালী  প্রতীমার একটি হাত ভাঙা। কালী প্রতীমার শরীরে যে কাপড়টি ছিল সেটি মন্দিরের বাইরে পোড়ানো অবস্থায় রয়েছে। পূজার সরঞ্জামাদি ভাঙা অবস্থায় রয়েছে।

সাহেবপাড়া শ্মশান মন্দির কমিটির সাধারণ সম্পাদক উত্তম কুমার বিশ^াস জানান, প্রতি বছর অগ্রহায়ন মাসে এই মন্দিরে পূজা হয়ে থাকে। এছাড়া স্থানীয় হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষ প্রতিদিন পূজার্চনা করে থাকে। তাদের ধারণা কোনো দুর্বৃত্ত মন্দিরের প্রতিমা পুড়িয়ে দিয়েছে। কেননা, যদি সন্ধ্যা প্রদীপ থেকে আগুন লাগতো তাহলে কালী প্রতিমার হাত ভাঙা থাকতো না। কালী প্রতিমার কাপড়ও বাইরে থাকতো না। বিষয়টি তিনি পুলিশকে জানিয়েছেন। পুলিশ এসে ঘটনাস্থল পরিদর্শন  করেছে।

বালিয়াকান্দি থানার ওসি তারিকুজ্জামান জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। সন্ধ্যা প্রদীপ থেকে অগ্নিকান্ডে প্রতীমার শরীরের বিভিন্ন অংশ পুড়েছে বলে তারা ধারণা করছেন। আগামী শনিবার ওই মন্দিরে পূজা হবে। দুর্বৃত্তদের কাজ হলে অন্যরকম হতো। তবুও বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

বালিয়াকান্দিতে মন্দিরে রহস্যজনক অগ্নিকান্ড ॥ পুড়েছে কালী ও শিব প্রতিমা

প্রকাশের সময় : 08:10:56 pm, Thursday, 25 February 2021

জনতার আদালত অনলাইন ॥ রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলার নবাবপুর ইউনিয়নের সাহেবপাড়া গ্রামে শ্মশান কালী মন্দিরে রহস্যজনক অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটেছে। এতে মন্দিরে থাকা কালী ও শিব প্রতীমার শরীরের বিভিন্ন অংশ পুড়ে গেছে। মন্দির কর্তৃপক্ষের ধারণা দুর্বৃত্তরা অগ্নিসংযোগ করেছে। পুলিশ বলছে, সন্ধ্যা প্রদীপ থেকে অগ্নিকান্ড সংঘটিত হয়েছে।

স্থানীয় হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজন জানান, বৃহস্পতিবার সকালে তারা দেখতে পান, মন্দিরে থাকা কালী ও শিব প্রতীমার শরীরের বিভিন্ন অংশ পুড়ে গেছে। কালী  প্রতীমার একটি হাত ভাঙা। কালী প্রতীমার শরীরে যে কাপড়টি ছিল সেটি মন্দিরের বাইরে পোড়ানো অবস্থায় রয়েছে। পূজার সরঞ্জামাদি ভাঙা অবস্থায় রয়েছে।

সাহেবপাড়া শ্মশান মন্দির কমিটির সাধারণ সম্পাদক উত্তম কুমার বিশ^াস জানান, প্রতি বছর অগ্রহায়ন মাসে এই মন্দিরে পূজা হয়ে থাকে। এছাড়া স্থানীয় হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষ প্রতিদিন পূজার্চনা করে থাকে। তাদের ধারণা কোনো দুর্বৃত্ত মন্দিরের প্রতিমা পুড়িয়ে দিয়েছে। কেননা, যদি সন্ধ্যা প্রদীপ থেকে আগুন লাগতো তাহলে কালী প্রতিমার হাত ভাঙা থাকতো না। কালী প্রতিমার কাপড়ও বাইরে থাকতো না। বিষয়টি তিনি পুলিশকে জানিয়েছেন। পুলিশ এসে ঘটনাস্থল পরিদর্শন  করেছে।

বালিয়াকান্দি থানার ওসি তারিকুজ্জামান জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। সন্ধ্যা প্রদীপ থেকে অগ্নিকান্ডে প্রতীমার শরীরের বিভিন্ন অংশ পুড়েছে বলে তারা ধারণা করছেন। আগামী শনিবার ওই মন্দিরে পূজা হবে। দুর্বৃত্তদের কাজ হলে অন্যরকম হতো। তবুও বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।