Dhaka ০৮:১৯ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ৩০ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

রাজবাড়ীতে সাবেক সেনা সদস্যকে পিটিয়ে জখমের অভিযোগ মামার বিরুদ্ধে

সংবাদদাতা-
  • প্রকাশের সময় : ০৭:১৬:২৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২১
  • / ১৩২৩ জন সংবাদটি পড়েছেন

জনতার আদালত অনলাইন ॥  জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে সাবেক সেনা সদস্য এমএ খালেদ সুজনকে পিটিয়ে জখম করার অভিযোগ উঠেছে মামার বিরুদ্ধে। রোববার সকালে রাজবাড়ী সদর উপজেলার শহীদ ওহাবপুর ইউনিয়নের নিমতলা বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আহত সুজনকে রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তিনি একই গ্রামের এটিএম তালেবের ছেলে।

আহত এমএ খালেদ সুজন জানান, দীর্ঘ ১২ বছর ব্রুনাই থেকে ২০২০ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে তিনি দেশে ফেরেন। দেশে থাকতে তিনি প্রিমিয়ার ডিভিশন লীগে হকি খেলতেন। জমি নিয়ে তার মামা শহীদ ওহাবপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান শফিউদ্দিন কাশেম, জাফর আলীর সাথে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলছে। জমিটি আমার মায়ের। সেই সূত্রে আমরাই দাবিদার। সেখানে তারা ভবন নির্মাণের কাজ করছেন। তার মামা তাদের মাঝে মধ্যেই হুমকি ধমকি দেন। এ নিয়ে তিনি আদালতে মামলাও করেছেন। রোববার সকালে নিমতলা বাজারে বসেছিলেন। এসময় তার মামা লোকজন নিয়ে অতর্কিতে তার উপর হামলা চালায়। তাকে রড, লাঠি দিয়ে পিটিয়ে জখম করে ফেলে রেখে যায়।

অভিযুক্ত শফিউদ্দিন কাশেম বলেন, আমাদের নামের সম্পত্তির উপর দিয়ে বাউন্ডারী ওয়াল দেওয়ায় তাকে বাধা দিয়েছিলাম। সে বাধা উপেক্ষা করেই বাউন্ডারী ওয়াল করছে। বিষয়টি  নিয়ে তার সাথে বিরোধ রয়েছে। কিন্তু তাকে আমরা কেউ মারধর করিনি। ঘটনার সময় সেখানে আমি ছিলামও না।

রাজবাড়ী সদর থানার ওসি স্বপন কুমার মজুমদার জানান, বিষয়টি তিনি শুনেছেন। লিখিত অভিযোগ দিলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

রাজবাড়ীতে সাবেক সেনা সদস্যকে পিটিয়ে জখমের অভিযোগ মামার বিরুদ্ধে

প্রকাশের সময় : ০৭:১৬:২৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২১

জনতার আদালত অনলাইন ॥  জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে সাবেক সেনা সদস্য এমএ খালেদ সুজনকে পিটিয়ে জখম করার অভিযোগ উঠেছে মামার বিরুদ্ধে। রোববার সকালে রাজবাড়ী সদর উপজেলার শহীদ ওহাবপুর ইউনিয়নের নিমতলা বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আহত সুজনকে রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তিনি একই গ্রামের এটিএম তালেবের ছেলে।

আহত এমএ খালেদ সুজন জানান, দীর্ঘ ১২ বছর ব্রুনাই থেকে ২০২০ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে তিনি দেশে ফেরেন। দেশে থাকতে তিনি প্রিমিয়ার ডিভিশন লীগে হকি খেলতেন। জমি নিয়ে তার মামা শহীদ ওহাবপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান শফিউদ্দিন কাশেম, জাফর আলীর সাথে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলছে। জমিটি আমার মায়ের। সেই সূত্রে আমরাই দাবিদার। সেখানে তারা ভবন নির্মাণের কাজ করছেন। তার মামা তাদের মাঝে মধ্যেই হুমকি ধমকি দেন। এ নিয়ে তিনি আদালতে মামলাও করেছেন। রোববার সকালে নিমতলা বাজারে বসেছিলেন। এসময় তার মামা লোকজন নিয়ে অতর্কিতে তার উপর হামলা চালায়। তাকে রড, লাঠি দিয়ে পিটিয়ে জখম করে ফেলে রেখে যায়।

অভিযুক্ত শফিউদ্দিন কাশেম বলেন, আমাদের নামের সম্পত্তির উপর দিয়ে বাউন্ডারী ওয়াল দেওয়ায় তাকে বাধা দিয়েছিলাম। সে বাধা উপেক্ষা করেই বাউন্ডারী ওয়াল করছে। বিষয়টি  নিয়ে তার সাথে বিরোধ রয়েছে। কিন্তু তাকে আমরা কেউ মারধর করিনি। ঘটনার সময় সেখানে আমি ছিলামও না।

রাজবাড়ী সদর থানার ওসি স্বপন কুমার মজুমদার জানান, বিষয়টি তিনি শুনেছেন। লিখিত অভিযোগ দিলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।