Dhaka ০৭:১৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ধর্ষণে ৭ মাসের অন্তসত্ত¡া কিশোরী

বালিয়াকান্দি প্রতিনিধি
  • প্রকাশের সময় : ০৯:৪৭:৪৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ১ এপ্রিল ২০২৪
  • / ১০৫১ জন সংবাদটি পড়েছেন

 

বালিয়াকান্দিতে ধর্ষণের শিকার সপ্তম শ্রেণির এক মাদ্রাসাছাত্রী অন্তসত্ত¡া হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় কিশোরীর বাবা গত রবিবার সিরাজ শেখের (৫৫) বিরুদ্ধে বালিয়াকান্দি থানায় মামলা করেছেন। সিরাজ শেখ উপজেলার বহরপুর (উত্তরপাড়া) গ্রামের মৃত আ. জব্বার শেখের ছেলে।

মামলা সূত্রে জানা যায়, ওই মাদ্রাসাছাত্রীর বাবা কৃষিকাজের পাশাপাশি ভ্যান গাড়ি চালান। তার পাঁচ সন্তানের মধ্যে চতুর্থ মেয়ে শারীরিকভাবে অসুস্থ থাকায় তার দেখাশোনা করার জন্য স্ত্রী মাঝে মধ্যেই ঢাকায় থাকতেন। ছোট মেয়ে (১৩) মাদ্রাসায় সপ্তম শ্রেণিতে পড়াশোনা করে।

গত বছরের  এপ্রিল মাসে তার মেয়ে বাড়ি থেকে দোকানে যাওয়ার পথে সিরাজ শেখ পানি এনে দেওয়ার কথা বলে ডেকে নিয়ে তার ইচ্ছার বিরুদ্ধে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। তখন ওই ছাত্রীর চিৎকারে সিরাজ তাকে হত্যার হুমকি দেয় এবং বিষয়টি গোপন রাখার জন্য বলে। পরবর্তীকালে সিরাজ বিভিন্ন সময়ে ভয়ভীতি দেখিয়ে ওই ছাত্রীকে একাধিকবার ধর্ষণ করে। এরপর ওই ছাত্রীর শরীরের অবস্থা দেখে সন্দেহ হলে তার মা তাকে গত ২৭ মার্চ শহরের একটি ডায়াগনস্টিক সেন্টারে নিয়ে যায়। সেখানে পরীক্ষার মাধ্যমে জানেন তার মেয়ে ৭ মাসের অন্তসত্ত¡া।

থানার ওসি মো. আলমগীর হোসেন বলেন, ‘অভিযোগ পেয়েছি। তদন্তপূর্বক আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

ধর্ষণে ৭ মাসের অন্তসত্ত¡া কিশোরী

প্রকাশের সময় : ০৯:৪৭:৪৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ১ এপ্রিল ২০২৪

 

বালিয়াকান্দিতে ধর্ষণের শিকার সপ্তম শ্রেণির এক মাদ্রাসাছাত্রী অন্তসত্ত¡া হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় কিশোরীর বাবা গত রবিবার সিরাজ শেখের (৫৫) বিরুদ্ধে বালিয়াকান্দি থানায় মামলা করেছেন। সিরাজ শেখ উপজেলার বহরপুর (উত্তরপাড়া) গ্রামের মৃত আ. জব্বার শেখের ছেলে।

মামলা সূত্রে জানা যায়, ওই মাদ্রাসাছাত্রীর বাবা কৃষিকাজের পাশাপাশি ভ্যান গাড়ি চালান। তার পাঁচ সন্তানের মধ্যে চতুর্থ মেয়ে শারীরিকভাবে অসুস্থ থাকায় তার দেখাশোনা করার জন্য স্ত্রী মাঝে মধ্যেই ঢাকায় থাকতেন। ছোট মেয়ে (১৩) মাদ্রাসায় সপ্তম শ্রেণিতে পড়াশোনা করে।

গত বছরের  এপ্রিল মাসে তার মেয়ে বাড়ি থেকে দোকানে যাওয়ার পথে সিরাজ শেখ পানি এনে দেওয়ার কথা বলে ডেকে নিয়ে তার ইচ্ছার বিরুদ্ধে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। তখন ওই ছাত্রীর চিৎকারে সিরাজ তাকে হত্যার হুমকি দেয় এবং বিষয়টি গোপন রাখার জন্য বলে। পরবর্তীকালে সিরাজ বিভিন্ন সময়ে ভয়ভীতি দেখিয়ে ওই ছাত্রীকে একাধিকবার ধর্ষণ করে। এরপর ওই ছাত্রীর শরীরের অবস্থা দেখে সন্দেহ হলে তার মা তাকে গত ২৭ মার্চ শহরের একটি ডায়াগনস্টিক সেন্টারে নিয়ে যায়। সেখানে পরীক্ষার মাধ্যমে জানেন তার মেয়ে ৭ মাসের অন্তসত্ত¡া।

থানার ওসি মো. আলমগীর হোসেন বলেন, ‘অভিযোগ পেয়েছি। তদন্তপূর্বক আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’