Dhaka 7:00 am, Sunday, 5 February 2023

গোয়ালন্দে  দুই আলীগ নেতার বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির অভিযোগে মামলা

সংবাদদাতা-
  • প্রকাশের সময় : 09:05:11 pm, Monday, 2 November 2020
  • / 1228 জন সংবাদটি পড়েছেন

জনতার আদালত অনলাইন : রাজবাড়ীর গোয়ালন্দে প্রভাবশালী দুই আওয়ামীলীগ নেতার বিরুদ্ধে আগ্নেয়াস্ত্র ঠেকিয়ে ব্যবসায়ীর কাছ থেকে চাঁদাবাজির অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় ব্যবসায়ী শরিফুল ইসলাম বাদি হয়ে রোববার দিনগত রাতে গোয়ালন্দ ঘাট থানায় আওয়ামীলীগের ওই দুই নেতাসহ ৬ জনের নাম উল্লোখ ও অজ্ঞাত ৬/৭ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে।

অভিযুক্ত আওয়ামীলীগের দুই নেতা হলেন, গোয়ালন্দ পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি (ভারপ্রাপ্ত) ও উপজেলা যুবলীগের সাবেক সাধারন সম্পাদক নজরুল ইসলাম মন্ডল (৪২) এবং উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ন সাধারন সম্পাদক মোহাম্মদ আলী মোল্লা (৪৫)। মামলার অপর আসামীরা হলো, নজরুল ইসলাম মন্ডলের ভাই মোস্তফা মন্ডল (৩৬), শাওন মন্ডল (২৮), কাশেম আলী খা (৩৫), মাসুদ মোল্লা (২৫)।

মামলার বাদী রাজবাড়ী সদর উপজেলার বানীবহ ইউনিয়নের ঘিমোড়া গ্রামের শরিফুল ইসলাম জানান, তিনি দৌলতদিয়া ৬নং ফেরি ঘাটের বিপরীত পাশে ব্যাক্তি মালীকানাধীন জমি লীজ নিয়ে কয়লা, পাথরসহ নির্মাণ সামগ্রী ব্যবসা শুরু করার উদ্যোগ নেন। এ লক্ষ্যে এক মাস আগে সেখানে কাজ শুরু করলে অভিযুক্তরা তার কাছে ১ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবি করেন। এক মাসের মধ্যে নির্ধারিত চাঁদা পরিশোধ না করলে প্রাণনাশের হুমকি ও ব্যবসা করেতে দেয়া হবে না বলে জানান। গত ৩১ অক্টোবর বেলা ১১টার দিকে আসামীরা আগ্নেয়াস্ত্র ও দেশীয় অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে চাঁদার দাবিতে এক শ্রমিককে মারধর করে। বিষয়টি জানতে পেরে তিনি তার মামাকে নিয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে আসেন। এসময় উল্লেখিত আসামীরা তাকে বলেন, ‘এক মাসের মধ্যে চাঁদার টাকা পরিশোধ করার কথা ছিল, তা না দিয়ে কাজ করছিস কেন।’ এসময় তিনি দাবীকৃত চাঁদা দিতে অস্বীকার করলে নজরুল ইসলাম মন্ডল ও মোহাম্মদ আলী মোল্লা তাদের কাছে থাকা পিস্তল ঠেকিয়ে তার পকেটে থাকা ১০ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয় এবং অবশিষ্ট ৯০ হাজার টাকা ৭ দিনের মধ্যে পরিশোধ করতে বলেন। সেই সাথে তাকে ও তার মামাকে মারপিট করে আহত করে চলে যায়।

জানা যায়, গোয়ালন্দ পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি (ভারপ্রাপ্ত) নজরুল ইসলাম মন্ডল আওয়ামীলীগ নেতা আবু হত্যা মামলার আসামী। বর্তমানে তিনি জামিনে আছেন।

গোয়ালন্দ ঘাট থানার ওসি আব্দুল্লাহ আল তায়াবীর জানান, এ ঘটনায় মামলা দায়েরের পর আসামীদের গ্রেফতারে পুলিশের অভিযান চলছে। আশা করি দ্রুত সময়ের মধ্যে আসামীদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনা হবে।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

গোয়ালন্দে  দুই আলীগ নেতার বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির অভিযোগে মামলা

প্রকাশের সময় : 09:05:11 pm, Monday, 2 November 2020

জনতার আদালত অনলাইন : রাজবাড়ীর গোয়ালন্দে প্রভাবশালী দুই আওয়ামীলীগ নেতার বিরুদ্ধে আগ্নেয়াস্ত্র ঠেকিয়ে ব্যবসায়ীর কাছ থেকে চাঁদাবাজির অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় ব্যবসায়ী শরিফুল ইসলাম বাদি হয়ে রোববার দিনগত রাতে গোয়ালন্দ ঘাট থানায় আওয়ামীলীগের ওই দুই নেতাসহ ৬ জনের নাম উল্লোখ ও অজ্ঞাত ৬/৭ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে।

অভিযুক্ত আওয়ামীলীগের দুই নেতা হলেন, গোয়ালন্দ পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি (ভারপ্রাপ্ত) ও উপজেলা যুবলীগের সাবেক সাধারন সম্পাদক নজরুল ইসলাম মন্ডল (৪২) এবং উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ন সাধারন সম্পাদক মোহাম্মদ আলী মোল্লা (৪৫)। মামলার অপর আসামীরা হলো, নজরুল ইসলাম মন্ডলের ভাই মোস্তফা মন্ডল (৩৬), শাওন মন্ডল (২৮), কাশেম আলী খা (৩৫), মাসুদ মোল্লা (২৫)।

মামলার বাদী রাজবাড়ী সদর উপজেলার বানীবহ ইউনিয়নের ঘিমোড়া গ্রামের শরিফুল ইসলাম জানান, তিনি দৌলতদিয়া ৬নং ফেরি ঘাটের বিপরীত পাশে ব্যাক্তি মালীকানাধীন জমি লীজ নিয়ে কয়লা, পাথরসহ নির্মাণ সামগ্রী ব্যবসা শুরু করার উদ্যোগ নেন। এ লক্ষ্যে এক মাস আগে সেখানে কাজ শুরু করলে অভিযুক্তরা তার কাছে ১ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবি করেন। এক মাসের মধ্যে নির্ধারিত চাঁদা পরিশোধ না করলে প্রাণনাশের হুমকি ও ব্যবসা করেতে দেয়া হবে না বলে জানান। গত ৩১ অক্টোবর বেলা ১১টার দিকে আসামীরা আগ্নেয়াস্ত্র ও দেশীয় অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে চাঁদার দাবিতে এক শ্রমিককে মারধর করে। বিষয়টি জানতে পেরে তিনি তার মামাকে নিয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে আসেন। এসময় উল্লেখিত আসামীরা তাকে বলেন, ‘এক মাসের মধ্যে চাঁদার টাকা পরিশোধ করার কথা ছিল, তা না দিয়ে কাজ করছিস কেন।’ এসময় তিনি দাবীকৃত চাঁদা দিতে অস্বীকার করলে নজরুল ইসলাম মন্ডল ও মোহাম্মদ আলী মোল্লা তাদের কাছে থাকা পিস্তল ঠেকিয়ে তার পকেটে থাকা ১০ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয় এবং অবশিষ্ট ৯০ হাজার টাকা ৭ দিনের মধ্যে পরিশোধ করতে বলেন। সেই সাথে তাকে ও তার মামাকে মারপিট করে আহত করে চলে যায়।

জানা যায়, গোয়ালন্দ পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি (ভারপ্রাপ্ত) নজরুল ইসলাম মন্ডল আওয়ামীলীগ নেতা আবু হত্যা মামলার আসামী। বর্তমানে তিনি জামিনে আছেন।

গোয়ালন্দ ঘাট থানার ওসি আব্দুল্লাহ আল তায়াবীর জানান, এ ঘটনায় মামলা দায়েরের পর আসামীদের গ্রেফতারে পুলিশের অভিযান চলছে। আশা করি দ্রুত সময়ের মধ্যে আসামীদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনা হবে।