Dhaka 7:24 pm, Friday, 3 February 2023

বালিয়াকান্দিতে অনলাইনে হবে পশু কেনাবেচা

সংবাদদাতা-
  • প্রকাশের সময় : 07:59:15 pm, Friday, 17 July 2020
  • / 1361 জন সংবাদটি পড়েছেন

জনতার আদালত অনলাইন ॥ রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দিতে অনলাইনে পশু কেনাবেচার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। শনিবার আনুষ্ঠানিকভাবে এর উদ্বোধনের কথা রয়েছে। বিষয়টি নিয়ে স্থানীয় ক্রেতা বিক্রেতাদের মধ্যেও ব্যাপক সাড়া পড়েছে। বালিয়াকান্দি উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে ‘বালিয়াকান্দি অনলাইন পশুর হাট’ নামের প্লাটফর্মটি উপজেলা প্রাণিসম্পদ বিভাগ ও  ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারের উদ্যোক্তারা বিষয়টির সমন্বয় করছেন বলে জানা গেছে। এতে করে স্বাস্থ্যবিধি প্রতিপালনের পাশাপাশি ক্রেতা বিক্রেতা উভয়েই উপকৃত হবে বলে মনে করছেন উদ্যোক্তারা।

বালিয়াকান্দি উপজেলা নির্র্বাহী কর্মকর্তা একেএম হেদায়েতুল ইসলাম জানান, এটি একটি যোগাযোগের প্লাটফর্ম মাত্র। উপজেলা প্রাণিসম্পদ বিভাগ ও  ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারের উদ্যোক্তারা বালিয়াকান্দির সাতটি ইউনিয়নে খামারীদের কাছ থেকে প্রাপ্ত  পশুর ছবিগুলো এই প্লাটফর্মে আপলোড করবেন। একই সাথে  গরুর ওজন,  বিক্রেতার নাম ঠিকানা, মোবাইল নম্বরসহ পাঁচাটি তথ্য উল্লেখ করা হবে। যাতে করে ক্রেতা সাধারণ সহজেই বিক্রেতার সাথে যোগাযোগ করতে পারেন। যারা স্বাস্থ্য সচেতন হাটে যেতে চান না। তাদের জন্য এটা খুবই উপযোগি।

তিনি বলেন, অনেক সময় উৎপাদনকারী হাটে পশু নিয়ে দালালদের খপ্পড়ে পড়ে সঠিক দাম পাওয়া থেকে বঞ্চিত  হন। এখানে সে সুযোগ নেই। বিক্রেতা সরাসরি তার পশু তার চাহিদা মত দামে বিক্রি করতে পারবে। আগামী সোমবারের মধ্যে উপজেলার সাতশ পশুর ছবি এ প্লাটফর্মে আপলোড করা হবে। এতে একদিকে যেমন স্বাস্থ্যবিধি প্রতিপালন হবে অন্যদিকে ক্রেতা বিক্রেতা উভয়ই লাভবান হবে।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

বালিয়াকান্দিতে অনলাইনে হবে পশু কেনাবেচা

প্রকাশের সময় : 07:59:15 pm, Friday, 17 July 2020

জনতার আদালত অনলাইন ॥ রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দিতে অনলাইনে পশু কেনাবেচার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। শনিবার আনুষ্ঠানিকভাবে এর উদ্বোধনের কথা রয়েছে। বিষয়টি নিয়ে স্থানীয় ক্রেতা বিক্রেতাদের মধ্যেও ব্যাপক সাড়া পড়েছে। বালিয়াকান্দি উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে ‘বালিয়াকান্দি অনলাইন পশুর হাট’ নামের প্লাটফর্মটি উপজেলা প্রাণিসম্পদ বিভাগ ও  ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারের উদ্যোক্তারা বিষয়টির সমন্বয় করছেন বলে জানা গেছে। এতে করে স্বাস্থ্যবিধি প্রতিপালনের পাশাপাশি ক্রেতা বিক্রেতা উভয়েই উপকৃত হবে বলে মনে করছেন উদ্যোক্তারা।

বালিয়াকান্দি উপজেলা নির্র্বাহী কর্মকর্তা একেএম হেদায়েতুল ইসলাম জানান, এটি একটি যোগাযোগের প্লাটফর্ম মাত্র। উপজেলা প্রাণিসম্পদ বিভাগ ও  ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারের উদ্যোক্তারা বালিয়াকান্দির সাতটি ইউনিয়নে খামারীদের কাছ থেকে প্রাপ্ত  পশুর ছবিগুলো এই প্লাটফর্মে আপলোড করবেন। একই সাথে  গরুর ওজন,  বিক্রেতার নাম ঠিকানা, মোবাইল নম্বরসহ পাঁচাটি তথ্য উল্লেখ করা হবে। যাতে করে ক্রেতা সাধারণ সহজেই বিক্রেতার সাথে যোগাযোগ করতে পারেন। যারা স্বাস্থ্য সচেতন হাটে যেতে চান না। তাদের জন্য এটা খুবই উপযোগি।

তিনি বলেন, অনেক সময় উৎপাদনকারী হাটে পশু নিয়ে দালালদের খপ্পড়ে পড়ে সঠিক দাম পাওয়া থেকে বঞ্চিত  হন। এখানে সে সুযোগ নেই। বিক্রেতা সরাসরি তার পশু তার চাহিদা মত দামে বিক্রি করতে পারবে। আগামী সোমবারের মধ্যে উপজেলার সাতশ পশুর ছবি এ প্লাটফর্মে আপলোড করা হবে। এতে একদিকে যেমন স্বাস্থ্যবিধি প্রতিপালন হবে অন্যদিকে ক্রেতা বিক্রেতা উভয়ই লাভবান হবে।