Dhaka ১১:০১ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৪ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বালিয়াকান্দিতে মীর মশাররফ হোসেনের মৃত্যুবার্ষিকী পালিত

সংবাদদাতা-
  • প্রকাশের সময় : ০৭:২১:৪২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৯ ডিসেম্বর ২০১৯
  • / ১৫৪৪ জন সংবাদটি পড়েছেন

জনতার আদালত অনলাইন ॥ কালজয়ী উপন্যাস বিষাদ সিন্ধু রচয়িতা উনবিংশ শতাব্দীর সর্বশ্রেষ্ঠ মুসলিম সাহিত্যিক মীর মশাররফ হোসেনের ১০৮তম মৃত্যুবার্ষিকী বৃহস্পতিবার পালিত হয়েছে।
সকালে মীর মশাররফ হোসেন স্মৃতি কেন্দ্র, মীর মশাররফ হোসেন সাহিত্য পরিষদ, বালিয়াকান্দি আদর্শ ক্লাব, মীর মশাররফ হোসেন ডিগ্রী কলেজসহ বিভিন্ন সামাজিক ও সাহিত্যিক সংগঠন বালিয়াকান্দির পদমদীতে মীর মশাররফ হোসেন স্মৃতি কেন্দ্রে মীরের সমাধিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করে। পরে দোয়া অনুষ্ঠিত হয়।
১৯১১ সালের ১৯ ডিসেম্বর রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলার নবাবপুর ইউনিয়নের পদমদী গ্রামে মৃত্যুবরণ করেন তিনি। তার জন্ম হয়েছিল ১৮৪৭ সালের ১৩ নভেম্বর কুষ্টিয়ার কুমারখালী জেলার লাহিনীপাড়ায় মাতুলালয়ে।
মীর মশাররফ হোসেন গল্প, উপন্যাস, নাটক, কবিতা, আত্মজীবনী, প্রবন্ধ ও ধর্ম বিষয়ক ৩৭টি বই রচনা করেছেন। তার রচনা সামগ্রীর মধ্যে রতœাবতী, গৌরি সেতু, বসন্ত কুমারী, জমিদার দর্পন, সংগীত লহরী, উদাসীন পথিকের মনের কথা, মদিনার গৌরব, বিষাদ সিন্ধু, গো-জীবন, বেহুলা গীতাভিনয়, গাজী মিয়ার বোস্তানী, মৌলুদ শরীফ, মুসলমানের বাঙ্গালা শিক্ষা, বিবি খোদেজার বিবাহ, হযরত ওমরের ধর্মজীবন লাভ, হযরত বেলালের জীবনী, হযরত আমীর হামজার ধর্ম জীবন লাভ, মোসলেম বীরত্ব, এসলামের জয়, আমার জীবনী, বাজিমাত, হযরত ইউসোফ, খোতবা বা ঈদুল ফিতর, বিবি কুলসুম, ভাই ভাই এইতো চাই, ফাস কাগজ, একি!, টালা অভিনয়, পঞ্চনারী, প্রেম পারিজাত, বাধাখাতা, নিয়তী কি অবনতি, তহমিনা, গাজী মিয়ার গুলি ও বৃহৎ হীরক খনি সহ উল্লেখযোগ্য।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

বালিয়াকান্দিতে মীর মশাররফ হোসেনের মৃত্যুবার্ষিকী পালিত

প্রকাশের সময় : ০৭:২১:৪২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৯ ডিসেম্বর ২০১৯

জনতার আদালত অনলাইন ॥ কালজয়ী উপন্যাস বিষাদ সিন্ধু রচয়িতা উনবিংশ শতাব্দীর সর্বশ্রেষ্ঠ মুসলিম সাহিত্যিক মীর মশাররফ হোসেনের ১০৮তম মৃত্যুবার্ষিকী বৃহস্পতিবার পালিত হয়েছে।
সকালে মীর মশাররফ হোসেন স্মৃতি কেন্দ্র, মীর মশাররফ হোসেন সাহিত্য পরিষদ, বালিয়াকান্দি আদর্শ ক্লাব, মীর মশাররফ হোসেন ডিগ্রী কলেজসহ বিভিন্ন সামাজিক ও সাহিত্যিক সংগঠন বালিয়াকান্দির পদমদীতে মীর মশাররফ হোসেন স্মৃতি কেন্দ্রে মীরের সমাধিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করে। পরে দোয়া অনুষ্ঠিত হয়।
১৯১১ সালের ১৯ ডিসেম্বর রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলার নবাবপুর ইউনিয়নের পদমদী গ্রামে মৃত্যুবরণ করেন তিনি। তার জন্ম হয়েছিল ১৮৪৭ সালের ১৩ নভেম্বর কুষ্টিয়ার কুমারখালী জেলার লাহিনীপাড়ায় মাতুলালয়ে।
মীর মশাররফ হোসেন গল্প, উপন্যাস, নাটক, কবিতা, আত্মজীবনী, প্রবন্ধ ও ধর্ম বিষয়ক ৩৭টি বই রচনা করেছেন। তার রচনা সামগ্রীর মধ্যে রতœাবতী, গৌরি সেতু, বসন্ত কুমারী, জমিদার দর্পন, সংগীত লহরী, উদাসীন পথিকের মনের কথা, মদিনার গৌরব, বিষাদ সিন্ধু, গো-জীবন, বেহুলা গীতাভিনয়, গাজী মিয়ার বোস্তানী, মৌলুদ শরীফ, মুসলমানের বাঙ্গালা শিক্ষা, বিবি খোদেজার বিবাহ, হযরত ওমরের ধর্মজীবন লাভ, হযরত বেলালের জীবনী, হযরত আমীর হামজার ধর্ম জীবন লাভ, মোসলেম বীরত্ব, এসলামের জয়, আমার জীবনী, বাজিমাত, হযরত ইউসোফ, খোতবা বা ঈদুল ফিতর, বিবি কুলসুম, ভাই ভাই এইতো চাই, ফাস কাগজ, একি!, টালা অভিনয়, পঞ্চনারী, প্রেম পারিজাত, বাধাখাতা, নিয়তী কি অবনতি, তহমিনা, গাজী মিয়ার গুলি ও বৃহৎ হীরক খনি সহ উল্লেখযোগ্য।