Dhaka ১০:০৬ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৪ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

প্রাক্তন ছাত্র ও স্থানীয় জনসাধারণের দাবির প্রেক্ষিতে রাজবাড়ী সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের ঐতিহ্যবাহী লাল ভবন সংরক্ষণের সিদ্ধান্ত

সংবাদদাতা-
  • প্রকাশের সময় : ০৯:০২:৩০ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৩ জুলাই ২০১৯
  • / ১৫৮৪ জন সংবাদটি পড়েছেন


জনতার আদালত অনলাইন ॥ অবশেষে রাজবাড়ী সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের দেড়শ বছরের পুরনো ঐতিহ্যবাহী লাল ভবনটিকে সংরক্ষণের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। বিদ্যালয়ের প্রাক্তন ছাত্র ও স্থানীয় জনসাধারণের দাবির প্রেক্ষিতে শনিবার বিদ্যালয়ের শিক্ষক মিলনায়তনে রাজবাড়ীÑ১ আসনের সংসদ সদস্য কাজী কেরামত আলীর সাথে ঐতিহ্য সংরক্ষণ আন্দোলন রাজবাড়ীর নেতৃবৃন্দ, বিদ্যালয়ের শিক্ষক এবং সুশীল সমাজের প্রতিনিধিদের এক সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।
সভায় রাজবাড়ী সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের ঐতিহ্যবাহী লাল ভবনটিকে অক্ষুণœ রেখে বিদ্যালয়ের উন্নয়নের কাজ করা হবে এবং লাল ভবনের পাশেই ১০ তলা একাডেমিক ভবন নির্মিত হবে। এছাড়া ঐতিহ্যবাহী লাল ভবনটিকে কীভাবে সংষ্কার করা যায় তা পরবর্তীতে বসে যৌথ সিদ্ধান্তের ভিত্তিতে নেয়া হবে।
সভায় অন্যদের মাঝে ঐতিহ্য সংরক্ষণ আন্দোলন রাজবাড়ীর প্রধান সমন্বয়কারী বিদ্যালয়ের প্রাক্তন ছাত্র একুশে পদকপ্রাপ্ত চিত্রশিল্পী অথ্যাপক মনসুর উল করিম, বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মাহবুবা আক্তার, রাজবাড়ী জেলা বার এসোসিয়েশনের সভাপতি অ্যড. গণেশ নারায়ন চৌধুরী, আওয়ামী লীগ নেতা অ্যড. সফিকুল আজম মামুন, সাংবাদিক বাবু মল্লিক, সংগঠক মহিতুজ্জামান বেলাল প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
রাজবাড়ীÑ১ আসনের সংসদ সদস্য কাজী কেরামত আলী বলেন, বিদ্যালয়ের প্রাক্তন ছাত্র এবং স্থানীয় জনগণের দাবির সাথে একমত হয়ে পুরাতন ভবনটি রেখে নতুন ভবন করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। পুরাতন ভবনটি সংস্কার করতে অনেক টাকার প্রয়োজন। তাই ভবনটি সংস্কারে সবার সাথে তিনিও সহযোগিতা করবেন।
প্রসঙ্গত গত ৯ মে তারিখে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক (মাধ্যমিক ২) মো. আমিনুল ইসলাম টুকু স্বাক্ষরিত বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বরাবর প্রেরিত চিঠিতে ভবনটিকে অকেজো ঘোষণা করে তা নিলামে বিক্রি করার নির্দেশ দেয়া হয়। এরপই ক্ষোভে ফেটে পড়েন বিদ্যালয়ের প্রাক্তন ছাত্ররা। তারা ঐতিহ্যবাহী লাল ভবনটিকে রক্ষার জন্য বিক্ষোভ, মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করেন।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

প্রাক্তন ছাত্র ও স্থানীয় জনসাধারণের দাবির প্রেক্ষিতে রাজবাড়ী সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের ঐতিহ্যবাহী লাল ভবন সংরক্ষণের সিদ্ধান্ত

প্রকাশের সময় : ০৯:০২:৩০ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৩ জুলাই ২০১৯


জনতার আদালত অনলাইন ॥ অবশেষে রাজবাড়ী সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের দেড়শ বছরের পুরনো ঐতিহ্যবাহী লাল ভবনটিকে সংরক্ষণের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। বিদ্যালয়ের প্রাক্তন ছাত্র ও স্থানীয় জনসাধারণের দাবির প্রেক্ষিতে শনিবার বিদ্যালয়ের শিক্ষক মিলনায়তনে রাজবাড়ীÑ১ আসনের সংসদ সদস্য কাজী কেরামত আলীর সাথে ঐতিহ্য সংরক্ষণ আন্দোলন রাজবাড়ীর নেতৃবৃন্দ, বিদ্যালয়ের শিক্ষক এবং সুশীল সমাজের প্রতিনিধিদের এক সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।
সভায় রাজবাড়ী সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের ঐতিহ্যবাহী লাল ভবনটিকে অক্ষুণœ রেখে বিদ্যালয়ের উন্নয়নের কাজ করা হবে এবং লাল ভবনের পাশেই ১০ তলা একাডেমিক ভবন নির্মিত হবে। এছাড়া ঐতিহ্যবাহী লাল ভবনটিকে কীভাবে সংষ্কার করা যায় তা পরবর্তীতে বসে যৌথ সিদ্ধান্তের ভিত্তিতে নেয়া হবে।
সভায় অন্যদের মাঝে ঐতিহ্য সংরক্ষণ আন্দোলন রাজবাড়ীর প্রধান সমন্বয়কারী বিদ্যালয়ের প্রাক্তন ছাত্র একুশে পদকপ্রাপ্ত চিত্রশিল্পী অথ্যাপক মনসুর উল করিম, বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মাহবুবা আক্তার, রাজবাড়ী জেলা বার এসোসিয়েশনের সভাপতি অ্যড. গণেশ নারায়ন চৌধুরী, আওয়ামী লীগ নেতা অ্যড. সফিকুল আজম মামুন, সাংবাদিক বাবু মল্লিক, সংগঠক মহিতুজ্জামান বেলাল প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
রাজবাড়ীÑ১ আসনের সংসদ সদস্য কাজী কেরামত আলী বলেন, বিদ্যালয়ের প্রাক্তন ছাত্র এবং স্থানীয় জনগণের দাবির সাথে একমত হয়ে পুরাতন ভবনটি রেখে নতুন ভবন করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। পুরাতন ভবনটি সংস্কার করতে অনেক টাকার প্রয়োজন। তাই ভবনটি সংস্কারে সবার সাথে তিনিও সহযোগিতা করবেন।
প্রসঙ্গত গত ৯ মে তারিখে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক (মাধ্যমিক ২) মো. আমিনুল ইসলাম টুকু স্বাক্ষরিত বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বরাবর প্রেরিত চিঠিতে ভবনটিকে অকেজো ঘোষণা করে তা নিলামে বিক্রি করার নির্দেশ দেয়া হয়। এরপই ক্ষোভে ফেটে পড়েন বিদ্যালয়ের প্রাক্তন ছাত্ররা। তারা ঐতিহ্যবাহী লাল ভবনটিকে রক্ষার জন্য বিক্ষোভ, মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করেন।