Dhaka ০৪:০০ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সাবেক স্ত্রীর বিদেশযাত্রা ঠেকাতে ইয়াবা দিয়ে ফাঁসানোর চেষ্টা

স্টাফ রিপোর্টার
  • প্রকাশের সময় : ০৭:১৩:২০ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪
  • / ১০৩০ জন সংবাদটি পড়েছেন

 সাবেক স্ত্রীকে বিদেশ যাওয়া ঠেকাতে বন্ধু ইমরান শেখের সাহায্যে ইয়াবা দিয়ে ফাঁসাতে চেয়েছিল রকি শেখ। সে উদ্দেশ্য সফল হয়নি। ইমরান শেখ ধরা পড়েছে রাজবাড়ী ডিবি পুলিশের হাতে। রোববার সন্ধ্যায় রাজবাড়ী শহীদ খুশী রেলওয়ে ময়দানে বাণিজ্য মেলায় ঘটে এ ঘটনা। ইমরান রাজবাড়ী শহরের বিনোদপুর এলাকার আবু বক্কার সিদ্দিকের ছেলে। সে পুলিশের সোর্স হিসেবে কাজ করতো। মূলহোতা রকি একই গ্রামের রোকন শেখের ছেলে।

রাজবাড়ীর ডিবি সূত্র জানায়, রাজবাড়ী সদর উপজেলার চন্দনী এলাকার বাসিন্দা ওই তরুণীর বিয়ে হয়েছিল রকির সাথে। রকি ছিল মাদকাসক্ত। রকির নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে তালাক দিয়ে বাবার বাড়িতে বসবাস করছিল তরুণী। সম্প্রতি সে কাজের জন্য সৌদি আরব যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়। এজন্য ভিসা পাসপোর্টও করেছে। বিষয়টি জানতে পেরে রকি ওই তরুণীকে কিছু কেনাকাটা করে দেওয়ার কথা বলে বাণিজ্য মেলায় আসতে বলে। তরুণী বাণিজ্য মেলায় এলে তাকে একটি থ্রি পিচ কিনে দেয়। তার ভেতরে কৌশলে গুজে দেয় ৫২ পিচ ইয়াবা। এরপর ইমরান তরুণীর বর্ণনা দিয়ে ডিবি পুলিশকে ফোনে জানায় তার কাছে ইয়াবা আছে। পুলিশ তরুণীকে চ্যালেঞ্জ করলে সে স্বাভাবিকভাবেই তার ভ্যানিটি ব্যাগ দিয়ে দেয়। পরে নতুন থ্রি পিচের ভেতরে পাওয়া যায় ইয়াবা। এ দেখে তরুণী হতভম্ব হয়ে পড়ে। তরুণীকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে বেরিয়ে আসে আসল ঘটনা। তাৎক্ষণিক ইমরানকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করলে সে সব কথা খুলে বলে। তরুণীর বিদেশযাত্রা আটকাতেই ইয়াবা দিয়ে ফাঁসাতে চেয়েছিল।

রাজবাড়ীর ডিবি ওসি মো. মনিরুজ্জামান জানান, পুলিশ ইমরানকে গ্রেপ্তার করেছে। এ ঘটনায় ইমরান ও রকির বিরুদ্ধে মাদক আইনে মামলা হয়েছে। ঘটনার পর থেকে রকি পলাতক। তাকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে। ওই তরুণীকে মুক্ত করা হয়েছে।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

সাবেক স্ত্রীর বিদেশযাত্রা ঠেকাতে ইয়াবা দিয়ে ফাঁসানোর চেষ্টা

প্রকাশের সময় : ০৭:১৩:২০ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪

 সাবেক স্ত্রীকে বিদেশ যাওয়া ঠেকাতে বন্ধু ইমরান শেখের সাহায্যে ইয়াবা দিয়ে ফাঁসাতে চেয়েছিল রকি শেখ। সে উদ্দেশ্য সফল হয়নি। ইমরান শেখ ধরা পড়েছে রাজবাড়ী ডিবি পুলিশের হাতে। রোববার সন্ধ্যায় রাজবাড়ী শহীদ খুশী রেলওয়ে ময়দানে বাণিজ্য মেলায় ঘটে এ ঘটনা। ইমরান রাজবাড়ী শহরের বিনোদপুর এলাকার আবু বক্কার সিদ্দিকের ছেলে। সে পুলিশের সোর্স হিসেবে কাজ করতো। মূলহোতা রকি একই গ্রামের রোকন শেখের ছেলে।

রাজবাড়ীর ডিবি সূত্র জানায়, রাজবাড়ী সদর উপজেলার চন্দনী এলাকার বাসিন্দা ওই তরুণীর বিয়ে হয়েছিল রকির সাথে। রকি ছিল মাদকাসক্ত। রকির নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে তালাক দিয়ে বাবার বাড়িতে বসবাস করছিল তরুণী। সম্প্রতি সে কাজের জন্য সৌদি আরব যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়। এজন্য ভিসা পাসপোর্টও করেছে। বিষয়টি জানতে পেরে রকি ওই তরুণীকে কিছু কেনাকাটা করে দেওয়ার কথা বলে বাণিজ্য মেলায় আসতে বলে। তরুণী বাণিজ্য মেলায় এলে তাকে একটি থ্রি পিচ কিনে দেয়। তার ভেতরে কৌশলে গুজে দেয় ৫২ পিচ ইয়াবা। এরপর ইমরান তরুণীর বর্ণনা দিয়ে ডিবি পুলিশকে ফোনে জানায় তার কাছে ইয়াবা আছে। পুলিশ তরুণীকে চ্যালেঞ্জ করলে সে স্বাভাবিকভাবেই তার ভ্যানিটি ব্যাগ দিয়ে দেয়। পরে নতুন থ্রি পিচের ভেতরে পাওয়া যায় ইয়াবা। এ দেখে তরুণী হতভম্ব হয়ে পড়ে। তরুণীকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে বেরিয়ে আসে আসল ঘটনা। তাৎক্ষণিক ইমরানকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করলে সে সব কথা খুলে বলে। তরুণীর বিদেশযাত্রা আটকাতেই ইয়াবা দিয়ে ফাঁসাতে চেয়েছিল।

রাজবাড়ীর ডিবি ওসি মো. মনিরুজ্জামান জানান, পুলিশ ইমরানকে গ্রেপ্তার করেছে। এ ঘটনায় ইমরান ও রকির বিরুদ্ধে মাদক আইনে মামলা হয়েছে। ঘটনার পর থেকে রকি পলাতক। তাকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে। ওই তরুণীকে মুক্ত করা হয়েছে।