Dhaka ০৬:৩২ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

করোনায় রাজবাড়ীর সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান বিএনপি নেতা অ্যড. এমএ খালেকের মৃত্যু

সংবাদদাতা-
  • প্রকাশের সময় : ০১:২৪:৫৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ৩০ অগাস্ট ২০২০
  • / ১৪৮৭ জন সংবাদটি পড়েছেন

জনতার আদালত অনলাইন ॥ প্রাণঘাতি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন রাজবাড়ী সদর উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান, রাজবাড়ী জেলা বার এর সিনিয়র আইনজীবী বিএনপি নেতা অ্যড. এমএ খালেক(৬৫)। শনিবার রাত ১০টার দিকে ঢাকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান (ইন্নালিল্লাহি..রাজিউন)। রাজবাড়ী পৌর এলাকার লক্ষীকোল গ্রামের বাসিন্দা ছিলেন তিনি। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, দুই ছেলে, আত্মীয় স্বজন ও গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

অ্যড. এমএ খালেক দীর্ঘদিন পর্যায়ক্রমে রাজবাড়ী জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ও সহসভাপতির দায়িত্ব পালন করেছেন। বিএনপির প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে তিনি দলটির সাথে যুক্ত ছিলেন। ২০১৪ সালে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে বিএনপির প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করে জয়লাভ করেন। পরবর্তীতে আর নির্বাচনে অংশ নেননি। রাজবাড়ী হোমিওপ্যাথী কলেজের প্রতিষ্ঠাতাদের অন্যতম তিনি। রাজবাড়ী কেন্দ্রীয় সমবায় ব্যাংক, ডায়াবেটিকস এসোসিয়েশনসহ নানান প্রতিষ্ঠানের সাথেও জড়িত ছিলেন তিনি।

তার পারিবারিক সূত্র জানায়, জ¦র, শ^াসকষ্টসহ নানান উপসর্গ থাকায় গত ১৩ আগস্ট তারিখে  নমুনা দেন। গত ১৬ আগস্ট তারিখে তার রিপোর্ট পজিটিভ আসে। হোম আইসোলেশনে থাকাকালীন অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকায় নিয়ে যাওয়া হয়েছিল।

রোববার দুপুর দুইটায় রাজবাড়ী রেলওয়ে ঈদগাহ ময়দানে প্রথম এবং দুপুর তিনটায় লক্ষীকোল জামে মসজিদে দ্বিতীয় জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে তাকে দাফন করার কথা রয়েছে।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

করোনায় রাজবাড়ীর সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান বিএনপি নেতা অ্যড. এমএ খালেকের মৃত্যু

প্রকাশের সময় : ০১:২৪:৫৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ৩০ অগাস্ট ২০২০

জনতার আদালত অনলাইন ॥ প্রাণঘাতি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন রাজবাড়ী সদর উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান, রাজবাড়ী জেলা বার এর সিনিয়র আইনজীবী বিএনপি নেতা অ্যড. এমএ খালেক(৬৫)। শনিবার রাত ১০টার দিকে ঢাকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান (ইন্নালিল্লাহি..রাজিউন)। রাজবাড়ী পৌর এলাকার লক্ষীকোল গ্রামের বাসিন্দা ছিলেন তিনি। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, দুই ছেলে, আত্মীয় স্বজন ও গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

অ্যড. এমএ খালেক দীর্ঘদিন পর্যায়ক্রমে রাজবাড়ী জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ও সহসভাপতির দায়িত্ব পালন করেছেন। বিএনপির প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে তিনি দলটির সাথে যুক্ত ছিলেন। ২০১৪ সালে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে বিএনপির প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করে জয়লাভ করেন। পরবর্তীতে আর নির্বাচনে অংশ নেননি। রাজবাড়ী হোমিওপ্যাথী কলেজের প্রতিষ্ঠাতাদের অন্যতম তিনি। রাজবাড়ী কেন্দ্রীয় সমবায় ব্যাংক, ডায়াবেটিকস এসোসিয়েশনসহ নানান প্রতিষ্ঠানের সাথেও জড়িত ছিলেন তিনি।

তার পারিবারিক সূত্র জানায়, জ¦র, শ^াসকষ্টসহ নানান উপসর্গ থাকায় গত ১৩ আগস্ট তারিখে  নমুনা দেন। গত ১৬ আগস্ট তারিখে তার রিপোর্ট পজিটিভ আসে। হোম আইসোলেশনে থাকাকালীন অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকায় নিয়ে যাওয়া হয়েছিল।

রোববার দুপুর দুইটায় রাজবাড়ী রেলওয়ে ঈদগাহ ময়দানে প্রথম এবং দুপুর তিনটায় লক্ষীকোল জামে মসজিদে দ্বিতীয় জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে তাকে দাফন করার কথা রয়েছে।