Dhaka 7:19 am, Sunday, 5 February 2023

দৌলতদিয়ায় ফেরির জাল টিকিটসহ গ্রেপ্তার  ২

সংবাদদাতা-
  • প্রকাশের সময় : 08:03:13 pm, Tuesday, 21 July 2020
  • / 1326 জন সংবাদটি পড়েছেন

 

জনতার আদালত অনলাইন ॥ গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়া ফেরি ঘাটে জাল টিকিটে পরিবহন নদী পারের চেষ্টাকালে দুইজনকে আটক করেছে বিআইডব্লিউটিসি’র সদস্যরা। সোমবার রাত ১০টার দিকে তাদের বিরুদ্ধে গোয়ালন্দ ঘাট থানায় মামলা দিয়ে পুলিশে হস্তান্তর করা হয়।

আটককৃতরা হলো, যশোর জেলার কোতোয়ালী থানার বালিয়াডাঙ্গা গ্রামের ওবায়দুর শিকদারের ছেলে আব্দুল আলিম ওরফে তুহিন শিকদার (২৩) ও মাগুড়া জেলার শ্রীপুর উপজেলার নাকোল গ্রামের নুর ইসলামের ছেলে মোল্লার ছেলে সবুজ মোল্লা (২৪)।

বিআইডব্লিউটিসি ও থানা পুলিশ সূত্রে জানা যায়, সোমবার সন্ধ্যায় দৌলতদিয়া ৬নং ফেরি ঘাট দিয়ে নদী পারের লক্ষ্যে সোহাগ পরিবহনের (নং ঢাকা মেট্টে ব-১৪-৯৫১৩) একটি বাস শাপলা শালুক নামের ইউটিলিটি ফেরিতে ওঠে। এসময় সেখানে কর্তব্যরত বিআইডব্লিউটিসি’র প্রান্তিক অধিক্ষক আশরাফুল ফেরির টিকিট পরীক্ষার জন্য টিকিট দেখেন। প্রদর্শিত টিকিটে উল্লেখ করা বাসের নম্বরে গড়মিলসহ বিভিন্ন কারণে টিকিটটি জাল বলে সন্দেহ হয়। বিষয়টি তিনি বিআইডব্লিউটিসি’র দৌলতদিয়া ঘাট ব্যবস্থাপক আবুল আব্দুল্লাহকে অবগত করলে তিনি ঘটনাস্থলে গিয়ে জাল টিকিটটি সনাক্ত করেন।

এ বিষয়ে আটককৃতরা জানায়, টিকিটটি তারা বিআইডব্লিউটিসি’র নির্ধারিত কাউন্টার থেকে সংগ্রহ করেননি। কাউন্টারের বাইরে অজ্ঞাত এক ব্যাক্তির কাছ থেকে কিনেছেন।

গোয়ালন্দ ঘাট থানার ওসি আশিকুর রহমান জানান, আটকৃত দুইজনসহ আরো অজ্ঞত ৭/৮ জনের যোগসাজসে ফেরির জাল টিকিটের মাধ্যমের সরকারী লক্ষ লক্ষ টাকা রাজস্ব ফাঁকির অভিযোগ এনে বিআইডব্লিউটিসি’র দৌলতদিয়া অফিসের সহকারী ব্যবস্থাপক মাহবুব আলী সরদার মামলা দায়ের করেছেন।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

দৌলতদিয়ায় ফেরির জাল টিকিটসহ গ্রেপ্তার  ২

প্রকাশের সময় : 08:03:13 pm, Tuesday, 21 July 2020

 

জনতার আদালত অনলাইন ॥ গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়া ফেরি ঘাটে জাল টিকিটে পরিবহন নদী পারের চেষ্টাকালে দুইজনকে আটক করেছে বিআইডব্লিউটিসি’র সদস্যরা। সোমবার রাত ১০টার দিকে তাদের বিরুদ্ধে গোয়ালন্দ ঘাট থানায় মামলা দিয়ে পুলিশে হস্তান্তর করা হয়।

আটককৃতরা হলো, যশোর জেলার কোতোয়ালী থানার বালিয়াডাঙ্গা গ্রামের ওবায়দুর শিকদারের ছেলে আব্দুল আলিম ওরফে তুহিন শিকদার (২৩) ও মাগুড়া জেলার শ্রীপুর উপজেলার নাকোল গ্রামের নুর ইসলামের ছেলে মোল্লার ছেলে সবুজ মোল্লা (২৪)।

বিআইডব্লিউটিসি ও থানা পুলিশ সূত্রে জানা যায়, সোমবার সন্ধ্যায় দৌলতদিয়া ৬নং ফেরি ঘাট দিয়ে নদী পারের লক্ষ্যে সোহাগ পরিবহনের (নং ঢাকা মেট্টে ব-১৪-৯৫১৩) একটি বাস শাপলা শালুক নামের ইউটিলিটি ফেরিতে ওঠে। এসময় সেখানে কর্তব্যরত বিআইডব্লিউটিসি’র প্রান্তিক অধিক্ষক আশরাফুল ফেরির টিকিট পরীক্ষার জন্য টিকিট দেখেন। প্রদর্শিত টিকিটে উল্লেখ করা বাসের নম্বরে গড়মিলসহ বিভিন্ন কারণে টিকিটটি জাল বলে সন্দেহ হয়। বিষয়টি তিনি বিআইডব্লিউটিসি’র দৌলতদিয়া ঘাট ব্যবস্থাপক আবুল আব্দুল্লাহকে অবগত করলে তিনি ঘটনাস্থলে গিয়ে জাল টিকিটটি সনাক্ত করেন।

এ বিষয়ে আটককৃতরা জানায়, টিকিটটি তারা বিআইডব্লিউটিসি’র নির্ধারিত কাউন্টার থেকে সংগ্রহ করেননি। কাউন্টারের বাইরে অজ্ঞাত এক ব্যাক্তির কাছ থেকে কিনেছেন।

গোয়ালন্দ ঘাট থানার ওসি আশিকুর রহমান জানান, আটকৃত দুইজনসহ আরো অজ্ঞত ৭/৮ জনের যোগসাজসে ফেরির জাল টিকিটের মাধ্যমের সরকারী লক্ষ লক্ষ টাকা রাজস্ব ফাঁকির অভিযোগ এনে বিআইডব্লিউটিসি’র দৌলতদিয়া অফিসের সহকারী ব্যবস্থাপক মাহবুব আলী সরদার মামলা দায়ের করেছেন।