Dhaka ০৯:১২ অপরাহ্ন, বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ৯ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

রাজবাড়ীতে সাম্প্রতিককালে দলছুট হনুমানের উপদ্রব বেড়েছে

জনতার আদালত অনলাইন ॥
  • প্রকাশের সময় : ০৬:৫৭:০০ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৭ জুন ২০২০
  • / ১৫৮৯ জন সংবাদটি পড়েছেন

রাজবাড়ীতে সাম্প্রতিককালে দলছুট হনুমান লক্ষ্য করা যাচ্ছে। এরা এক গাছ থেকে আরেক গাছে। এক বাড়ির ছাদ থেকে অন্য বাড়ির ছাদে আপন মনে লাফিয়ে বেড়াচ্ছে। প্রাণি সম্পদ কর্মকর্তারা বলছেন, সম্ভবত, তাদের বিচরণভূমিতে অত্যাচারিত হয়ে রাজবাড়ীতে এসেছে।

রাজবাড়ীতে সচরাচর হনুমানের দেখা মেলেনা। তবে বুধবার সকালে রাজবাড়ী শহরের বিনোদপুর গ্রামে দেখা গেছে একটি হনুমান। চলাচলের রাস্তা দিয়ে স্বভাবজাত ভাবে দৌড়ে এসে লাফিয়েয় উঠে পড়ে এক ব্যক্তির টিনের চালে। সেখান থেকে কাছে থাকা একটি গাছে চলে যায়। এভাবেই আপন মনে ঘুরছিলো হনুমানটি। এসময় হনুমানটিকে দেখতে উৎসুক মানুষ ভিড় জমায়।

স্থানীয়রা জানায়, এর আগেও তারা হনুমান দেখেছে এ এলাকায়। এরা কোথা থেকে আসে কোথায় যায়। তা কেউ বলতে পারেনা। কারো কোনো ক্ষতিও করেনা। অনেকে হনুমানকে লক্ষ্য করে দূর থেকে কলাসহ বিভিন্ন ফল ছুড়ে মারে। হনুমানের নাগালে সেটা মজা করে খায়।

রাজবাড়ী জেলা প্রাণি সম্পদ কর্মকর্তা ফজলুল হক সরদার জানান, হনুমানের বিচরণ ক্ষেত্র মেহেরপুর জেলা। হতে পারে সেখানকার মানুষের অত্যাচারে তারা দলছুুট হয়ে রাজবাড়ীতে এসেছে। তবে এরা সাধারণত কারো ক্ষতি করেনা।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

রাজবাড়ীতে সাম্প্রতিককালে দলছুট হনুমানের উপদ্রব বেড়েছে

প্রকাশের সময় : ০৬:৫৭:০০ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৭ জুন ২০২০

রাজবাড়ীতে সাম্প্রতিককালে দলছুট হনুমান লক্ষ্য করা যাচ্ছে। এরা এক গাছ থেকে আরেক গাছে। এক বাড়ির ছাদ থেকে অন্য বাড়ির ছাদে আপন মনে লাফিয়ে বেড়াচ্ছে। প্রাণি সম্পদ কর্মকর্তারা বলছেন, সম্ভবত, তাদের বিচরণভূমিতে অত্যাচারিত হয়ে রাজবাড়ীতে এসেছে।

রাজবাড়ীতে সচরাচর হনুমানের দেখা মেলেনা। তবে বুধবার সকালে রাজবাড়ী শহরের বিনোদপুর গ্রামে দেখা গেছে একটি হনুমান। চলাচলের রাস্তা দিয়ে স্বভাবজাত ভাবে দৌড়ে এসে লাফিয়েয় উঠে পড়ে এক ব্যক্তির টিনের চালে। সেখান থেকে কাছে থাকা একটি গাছে চলে যায়। এভাবেই আপন মনে ঘুরছিলো হনুমানটি। এসময় হনুমানটিকে দেখতে উৎসুক মানুষ ভিড় জমায়।

স্থানীয়রা জানায়, এর আগেও তারা হনুমান দেখেছে এ এলাকায়। এরা কোথা থেকে আসে কোথায় যায়। তা কেউ বলতে পারেনা। কারো কোনো ক্ষতিও করেনা। অনেকে হনুমানকে লক্ষ্য করে দূর থেকে কলাসহ বিভিন্ন ফল ছুড়ে মারে। হনুমানের নাগালে সেটা মজা করে খায়।

রাজবাড়ী জেলা প্রাণি সম্পদ কর্মকর্তা ফজলুল হক সরদার জানান, হনুমানের বিচরণ ক্ষেত্র মেহেরপুর জেলা। হতে পারে সেখানকার মানুষের অত্যাচারে তারা দলছুুট হয়ে রাজবাড়ীতে এসেছে। তবে এরা সাধারণত কারো ক্ষতি করেনা।