Dhaka ০৩:০৯ অপরাহ্ন, বুধবার, ১২ জুন ২০২৪, ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

পল্লী চিকিৎসককে কুপিয়েছে দুর্বৃত্তরা

স্টাফ রিপোর্টার
  • প্রকাশের সময় : ০৫:৫৫:৪৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ৮ জুন ২০২৪
  • / ১০২৫ জন সংবাদটি পড়েছেন

রাজবাড়ী সদর উপজেলার বসন্তপুর ইউনিয়নের বসন্তপুর বাজার এলাকায় বাদশা মৃধা নামে এক পল্লী চিকিৎসককে কুপিয়ে জখম করেছে দুর্বৃত্তরা। শুক্রবার রাত ১১টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। আহত বাদশা একই ইউনিয়নের হাটজয়পুর গ্রামের বাসিন্দা। বর্তমানে তিনি ঢাকার পঙ্গু হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

স্থানীয় সূত্র জানায়, বসন্তপুর বাজারে বাদশা মৃধার ওষুধের দোকান রয়েছে। সেখানে ওষুধ বিক্রির পাশাপাশি ফ্লেক্সিলোডের ব্যবসাও করেন। রাত ১১টার দিকে দোকান বন্ধ করে বাড়ি ফেরার সময় একদল দুর্বৃত্ত তাকে কুপিয়ে জখম করে। তার চিৎকারে লোকজন এগিয়ে এলে দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়। রাতেই তাকে ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে সেখান থেকে ঢাকার পঙ্গু হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়।

রাজবাড়ী সদর থানার ওসি ইফতেখারুল আলম প্রধান জানান, বিষয়টি তিনি শুনেছেন। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। তার হাতের কনুইয়ের নীচে আঘাত লেগেছে। কী কারণে দুর্বৃত্তরা হামলা করেছে তা এখনও জানা যায়নি। তবে, পারিবারিক ঝামেলা হতেও পারে। আহতের স্বজনরা চিকিৎসা নিয়ে ব্যস্ত থাকায় থানায় লিখিত অভিযোগ দেয়নি। দুর্বৃত্তদের চিহ্নিত করে গ্রেপ্তারের চেষ্টা অব্যাহত আছে।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

পল্লী চিকিৎসককে কুপিয়েছে দুর্বৃত্তরা

প্রকাশের সময় : ০৫:৫৫:৪৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ৮ জুন ২০২৪

রাজবাড়ী সদর উপজেলার বসন্তপুর ইউনিয়নের বসন্তপুর বাজার এলাকায় বাদশা মৃধা নামে এক পল্লী চিকিৎসককে কুপিয়ে জখম করেছে দুর্বৃত্তরা। শুক্রবার রাত ১১টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। আহত বাদশা একই ইউনিয়নের হাটজয়পুর গ্রামের বাসিন্দা। বর্তমানে তিনি ঢাকার পঙ্গু হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

স্থানীয় সূত্র জানায়, বসন্তপুর বাজারে বাদশা মৃধার ওষুধের দোকান রয়েছে। সেখানে ওষুধ বিক্রির পাশাপাশি ফ্লেক্সিলোডের ব্যবসাও করেন। রাত ১১টার দিকে দোকান বন্ধ করে বাড়ি ফেরার সময় একদল দুর্বৃত্ত তাকে কুপিয়ে জখম করে। তার চিৎকারে লোকজন এগিয়ে এলে দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়। রাতেই তাকে ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে সেখান থেকে ঢাকার পঙ্গু হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়।

রাজবাড়ী সদর থানার ওসি ইফতেখারুল আলম প্রধান জানান, বিষয়টি তিনি শুনেছেন। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। তার হাতের কনুইয়ের নীচে আঘাত লেগেছে। কী কারণে দুর্বৃত্তরা হামলা করেছে তা এখনও জানা যায়নি। তবে, পারিবারিক ঝামেলা হতেও পারে। আহতের স্বজনরা চিকিৎসা নিয়ে ব্যস্ত থাকায় থানায় লিখিত অভিযোগ দেয়নি। দুর্বৃত্তদের চিহ্নিত করে গ্রেপ্তারের চেষ্টা অব্যাহত আছে।