Dhaka ০৭:২২ অপরাহ্ন, বুধবার, ১২ জুন ২০২৪, ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

পদ্মা নদী থেকে নিখোঁজ শিশুর মরদেহ উদ্ধার

স্টাফ রিপোর্টার
  • প্রকাশের সময় : ০৯:৪০:৪৭ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৭ জুন ২০২৪
  • / ১০২৯ জন সংবাদটি পড়েছেন

রাজবাড়ী সদর উপজেলার মিজানপুর ইউনিয়নের মহাদেবপুর গ্রামের পদ্মা নদী থেকে শুক্রবার সকালে নিখোঁজ শিশু আব্দুর রহমানের মরদেহ উদ্ধার হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুর থেকে সে নিখোঁজ ছিল। সে একই গ্রামের মালয়েশিয়া প্রবাসী বিপ্লব মন্ডলের ছেলে।
এলাকাবাসী ও পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার দুপুরে আব্দুর রহমানের বড় ভাই সিমরান (১০) বাড়ির অনতিদূরে পদ্মা নদীতে গোসল করতে যায়। তার পেছন পেছন গিয়েছিল আব্দুর রহমান। বিষয়টি সিমরান লক্ষ্য করেনি। গোসল করে সে যথারীতি বাড়ি ফিরে আসে। অনেক সময় পেরিয়ে গেলেও আব্দুর রহমানকে না পেয়ে খোঁজাখুজি শুরু করে পরিবার। তখন প্রতিবেশি এক ব্যক্তি বলেন; আব্দুর রহমানকে সিমরানের পেছন পেছন যেতে দেখেছিলেন। ভেবেছিলেন বড় ভাইয়ের সাথেই যাচ্ছে। একারণে কিছু বলেন নি। বিকেল থেকেই তারা নদীতে খোঁজাখুজি শুরু করে। কিন্তু আব্দুর রহমানকে পাওয়া যায়নি। শুক্রবার সকালে পদ্মা নদীতে তার মরদেহ ভেসে ওঠে।
রাজবাড়ী সদর থানার এসআই মোয়াজ্জেম হোসেন জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। শিশুটি নদীর পানিতে ডুবে মারা গেছে- এবিষয়ে কারও কোনো সন্দেহ নেই। পরিবারেরও কোনো অভিযোগ নেই। একারণে আইনগত কোনো পদক্ষেপ নেওয়া হয়নি।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

পদ্মা নদী থেকে নিখোঁজ শিশুর মরদেহ উদ্ধার

প্রকাশের সময় : ০৯:৪০:৪৭ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৭ জুন ২০২৪

রাজবাড়ী সদর উপজেলার মিজানপুর ইউনিয়নের মহাদেবপুর গ্রামের পদ্মা নদী থেকে শুক্রবার সকালে নিখোঁজ শিশু আব্দুর রহমানের মরদেহ উদ্ধার হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুর থেকে সে নিখোঁজ ছিল। সে একই গ্রামের মালয়েশিয়া প্রবাসী বিপ্লব মন্ডলের ছেলে।
এলাকাবাসী ও পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার দুপুরে আব্দুর রহমানের বড় ভাই সিমরান (১০) বাড়ির অনতিদূরে পদ্মা নদীতে গোসল করতে যায়। তার পেছন পেছন গিয়েছিল আব্দুর রহমান। বিষয়টি সিমরান লক্ষ্য করেনি। গোসল করে সে যথারীতি বাড়ি ফিরে আসে। অনেক সময় পেরিয়ে গেলেও আব্দুর রহমানকে না পেয়ে খোঁজাখুজি শুরু করে পরিবার। তখন প্রতিবেশি এক ব্যক্তি বলেন; আব্দুর রহমানকে সিমরানের পেছন পেছন যেতে দেখেছিলেন। ভেবেছিলেন বড় ভাইয়ের সাথেই যাচ্ছে। একারণে কিছু বলেন নি। বিকেল থেকেই তারা নদীতে খোঁজাখুজি শুরু করে। কিন্তু আব্দুর রহমানকে পাওয়া যায়নি। শুক্রবার সকালে পদ্মা নদীতে তার মরদেহ ভেসে ওঠে।
রাজবাড়ী সদর থানার এসআই মোয়াজ্জেম হোসেন জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। শিশুটি নদীর পানিতে ডুবে মারা গেছে- এবিষয়ে কারও কোনো সন্দেহ নেই। পরিবারেরও কোনো অভিযোগ নেই। একারণে আইনগত কোনো পদক্ষেপ নেওয়া হয়নি।