Dhaka ১২:২৩ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১২ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
পদ্মা সেতু দিয়ে আরও ২ ট্রেন চালু হলো

১২৫ টাকায় রাজবাড়ী থেকে ঢাকা

স্টাফ রিপোর্টার
  • প্রকাশের সময় : ০৯:৩৮:২৪ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১ ডিসেম্বর ২০২৩
  • / ১১৩৭ জন সংবাদটি পড়েছেন

শুক্রবার থেকে রাজবাড়ী হয়ে ঢাকায় যাচ্ছে আরও দুটি ট্রেন। এ ট্রেন দুটি হলো রাজশাহী থেকে ছেড়ে আসা আন্তঃনগর মধুমতি এক্সপ্রেস ও খুলনা থেকে ছেড়ে আসা নকশীকাঁথা মেইল ট্রেন। ট্রেনের ভাড়া সাশ্রয়ী হওয়ায় রাজবাড়ীবাসীর আনন্দের শেষ নেই। ১২৫ টাকা ভাড়ায় রাজবাড়ী থেকে যাওয়া যাবে রাজধানী ঢাকায়। তবে, বগির সংখ্যা বাড়ানোর দাবি করেছেন তারা। এই দুটি ট্রেন চালুর মধ্য দিয়ে এ রুটে ট্রেনের সংখ্যা দাঁড়ালো চারটিতে।

রেল সূত্র জানায়, নকশীকাঁথা এক্সপ্রেস মেইল ট্রেনটি খুলনা থেকে গোয়ালন্দ ঘাট পর্যন্ত চলাচল করতো। ট্রেনটি রাজবাড়ীর পাঁচুরিয়ার জংশন স্টেশন থেকে রুট পরিবর্তন করে চলে যাবে ঢাকায়। ট্রেনটি খুলনা থেকে রাত সাড়ে ১১টায় ছেড়ে পরদিন সকাল ৬টা ২০ মিনিটে রাজবাড়ী পৌছাবে। নির্দিষ্ট সময়ের বিরতি দিয়ে ঢাকায় পৌছাবে সকাল ১০টা ১০ মিনিটে। ঢাকা থেকে বেলা ১১টা ৪০ মিনিটে ছেড়ে রাজবাড়ী পৌছাবে দুপুর ৩টা ৫ মিনিটে। আর খুলনা ফিরে যাবে রাত ১০টা ২০ মিনিটে। রাজবাড়ী থেকে ঢাকা পর্যন্ত ভাড়া নির্ধারণ করা হয়েছে ১২৫ টাকা। ট্রেনটি কখনও পাঁচটি আবার কখনও ছয়টি বগি নিয়ে চলাচল করে। ট্রেনটি আগে সকল স্টেশনে থামতো। তবে নতুনভাবে শুরু করার পর রাজবাড়ীর সূর্যনগর ও পাঁচুরিয়া স্টেশনে যাত্রা বিরতি রাখা হয়নি।

অপরদিকে আন্তঃনগর মধুমতি এক্সপ্রেস ট্রেনটি রাজশাহী থেকে ভাঙ্গা পর্যন্ত চলাচল করতো। আজ শুক্রবার থেকে চলবে ঢাকা পর্যন্ত। নতুন সূচি অনুযায়ী রাজশাহী থেকে সকাল ৬টা ৪০ মিনিটে ছেড়ে রাজবাড়ী পৌছাবে বেলা ১০টা ৪৫ মিনিটে। ১৫ মিনিটের বিরতি দিয়ে ১১টায় ছেড়ে ঢাকায় পৌছাবে দুপুর ২টায়। ঢাকা থেকে দুপুর ৩টায় ছেড়ে রাজবাড়ী পৌছাবে সন্ধ্যা ৬টা ৫মিনিটে। ১৫ মিনিটের বিরতি দিয়ে ৬টা ২০ মিনিটে ছেড়ে রাজশাহী পৌছাবে ১০টা ৪০ মিনিটে। ট্রেনটির বগির সংখ্যা সাতটি। রাজবাড়ী থেকে ঢাকা পর্যন্ত শোভন ভাড়া নির্ধারণ করা হয়েছে ২৪৫ টাকা।

বাংলাদেশ রেলওয়ের এমন সিদ্ধান্তে রাজবাড়ীর বিশিষ্টজন থেকে শুরু করে ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী সবাই যারপরনাই খুশী। কারণ সকাল বা ভোরে যেসব ব্যবসায়ী ঢাকায় যান তাদের জন্য খুবই সুবিধা হলো। তবে, তারা ট্রেনের সিডিউল ঠিক রেখে বগির সংখ্যা বাড়ানোর জোর দাবি জানিয়েছেন।

জাকির আলী নামের একজন ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী জানান, তাকে মাঝে মধ্যেই ঢাকায় যেতে হয় বিভিন্ন মালামাল কিনতে। বাসে যেতে অনেক সময় লাগে। ভাড়াও বেশি লাগতো। মেইল ট্রেনে মাত্র ১২৫ টাকায় ঢাকা যাওয়া যাবে জেনে খুবই খুশী লাগছে। কিন্তু ট্রেনে প্রচুর ভিড় হবে বলে মনে হচ্ছে। বগির সংখ্যা বাড়ানো হলে যাত্রীদের জন্য সুবিধা হতো। তিনি আরও জানান, ঢাকা যেতে আগে অনেক ভোগান্তি পোহাতে হতো। এখন ্আর ভোগান্তি পোহাতে হবেনা।

রাজবাড়ী শহরের সজ্জনকান্দা এলাকার বাসিন্দা রাজবাড়ী একাডেমির সহ সভাপতি কমল কান্তি সরকার বলেন, নিরাপদ ও আরামদায়ক ভ্রমণের জন্য রেলের জুড়ি নেই। রেলের শহর হিসেবেই রাজবাড়ী পরিচিত। রাজবাড়ী থেকে ট্রেনে ঢাকা যাওয়া যাচ্ছে এটাই আমাদের কাছে এক বিস্ময়। সেখানে একে একে চারটি ট্রেন চালু হলো। নি¤œ শ্রেণি থেকে উচ্চ শ্রেণির সকল মানুষ এখন ট্রেনে ঢাকা যেতে পারছে। এতে করে এলাকার শিক্ষা, স্বাস্থ্য, ব্যবসা-বাণিজ্যের প্রসার ঘটবে।

রাজবাড়ী রেলওয়ে স্টেশন মাস্টার তন্ময় কুমার দত্ত জানান, শুক্রবার থেকে নকশীকাঁথা মেইল ও আন্তঃনগর মধুমতি এক্সপ্রেস ট্রেন দুটি চালুর জন্য সবরকম প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। মেইল ট্রেনের টিকিট স্টেশন কাউন্টার থেকে সংগ্রহ করা যাবে। আন্তঃনগর ট্রেনের টিকিট অনলাইনের পাশাপাশি কাউন্টার থেকে নেওয়া যাবে।

বাংলাদেশ রেলওয়ের পাকশী অঞ্চলের বিভাগীয় পরিবহন কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেন জানান, যে কয়টি বগি নিয়ে ট্রেন দুটি চলাচল করে আপাততঃ তাই থাকছে। ভবিষ্যতে বগির সংখ্যা বাড়ানো হতে পারে।

প্রসঙ্গত, পদ্মা সেতু উদ্বোধনের দীর্ঘদিন পর গত ১০ অক্টোবর রেলপথ উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ১ নভেম্বর থেকে খুলনা-ঢাকা-খুলনা সুন্দরবন এক্সপ্রেস চলাচলের মধ্য দিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হয় ট্রেন চলাচল। এরপর বেনাপোল-ঢাকা-বেনাপোল আন্তঃনগর এক্সপ্রেস ট্রেন চলাচল শুরু হয় ২ নভেম্বর তারিখে।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

পদ্মা সেতু দিয়ে আরও ২ ট্রেন চালু হলো

১২৫ টাকায় রাজবাড়ী থেকে ঢাকা

প্রকাশের সময় : ০৯:৩৮:২৪ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১ ডিসেম্বর ২০২৩

শুক্রবার থেকে রাজবাড়ী হয়ে ঢাকায় যাচ্ছে আরও দুটি ট্রেন। এ ট্রেন দুটি হলো রাজশাহী থেকে ছেড়ে আসা আন্তঃনগর মধুমতি এক্সপ্রেস ও খুলনা থেকে ছেড়ে আসা নকশীকাঁথা মেইল ট্রেন। ট্রেনের ভাড়া সাশ্রয়ী হওয়ায় রাজবাড়ীবাসীর আনন্দের শেষ নেই। ১২৫ টাকা ভাড়ায় রাজবাড়ী থেকে যাওয়া যাবে রাজধানী ঢাকায়। তবে, বগির সংখ্যা বাড়ানোর দাবি করেছেন তারা। এই দুটি ট্রেন চালুর মধ্য দিয়ে এ রুটে ট্রেনের সংখ্যা দাঁড়ালো চারটিতে।

রেল সূত্র জানায়, নকশীকাঁথা এক্সপ্রেস মেইল ট্রেনটি খুলনা থেকে গোয়ালন্দ ঘাট পর্যন্ত চলাচল করতো। ট্রেনটি রাজবাড়ীর পাঁচুরিয়ার জংশন স্টেশন থেকে রুট পরিবর্তন করে চলে যাবে ঢাকায়। ট্রেনটি খুলনা থেকে রাত সাড়ে ১১টায় ছেড়ে পরদিন সকাল ৬টা ২০ মিনিটে রাজবাড়ী পৌছাবে। নির্দিষ্ট সময়ের বিরতি দিয়ে ঢাকায় পৌছাবে সকাল ১০টা ১০ মিনিটে। ঢাকা থেকে বেলা ১১টা ৪০ মিনিটে ছেড়ে রাজবাড়ী পৌছাবে দুপুর ৩টা ৫ মিনিটে। আর খুলনা ফিরে যাবে রাত ১০টা ২০ মিনিটে। রাজবাড়ী থেকে ঢাকা পর্যন্ত ভাড়া নির্ধারণ করা হয়েছে ১২৫ টাকা। ট্রেনটি কখনও পাঁচটি আবার কখনও ছয়টি বগি নিয়ে চলাচল করে। ট্রেনটি আগে সকল স্টেশনে থামতো। তবে নতুনভাবে শুরু করার পর রাজবাড়ীর সূর্যনগর ও পাঁচুরিয়া স্টেশনে যাত্রা বিরতি রাখা হয়নি।

অপরদিকে আন্তঃনগর মধুমতি এক্সপ্রেস ট্রেনটি রাজশাহী থেকে ভাঙ্গা পর্যন্ত চলাচল করতো। আজ শুক্রবার থেকে চলবে ঢাকা পর্যন্ত। নতুন সূচি অনুযায়ী রাজশাহী থেকে সকাল ৬টা ৪০ মিনিটে ছেড়ে রাজবাড়ী পৌছাবে বেলা ১০টা ৪৫ মিনিটে। ১৫ মিনিটের বিরতি দিয়ে ১১টায় ছেড়ে ঢাকায় পৌছাবে দুপুর ২টায়। ঢাকা থেকে দুপুর ৩টায় ছেড়ে রাজবাড়ী পৌছাবে সন্ধ্যা ৬টা ৫মিনিটে। ১৫ মিনিটের বিরতি দিয়ে ৬টা ২০ মিনিটে ছেড়ে রাজশাহী পৌছাবে ১০টা ৪০ মিনিটে। ট্রেনটির বগির সংখ্যা সাতটি। রাজবাড়ী থেকে ঢাকা পর্যন্ত শোভন ভাড়া নির্ধারণ করা হয়েছে ২৪৫ টাকা।

বাংলাদেশ রেলওয়ের এমন সিদ্ধান্তে রাজবাড়ীর বিশিষ্টজন থেকে শুরু করে ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী সবাই যারপরনাই খুশী। কারণ সকাল বা ভোরে যেসব ব্যবসায়ী ঢাকায় যান তাদের জন্য খুবই সুবিধা হলো। তবে, তারা ট্রেনের সিডিউল ঠিক রেখে বগির সংখ্যা বাড়ানোর জোর দাবি জানিয়েছেন।

জাকির আলী নামের একজন ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী জানান, তাকে মাঝে মধ্যেই ঢাকায় যেতে হয় বিভিন্ন মালামাল কিনতে। বাসে যেতে অনেক সময় লাগে। ভাড়াও বেশি লাগতো। মেইল ট্রেনে মাত্র ১২৫ টাকায় ঢাকা যাওয়া যাবে জেনে খুবই খুশী লাগছে। কিন্তু ট্রেনে প্রচুর ভিড় হবে বলে মনে হচ্ছে। বগির সংখ্যা বাড়ানো হলে যাত্রীদের জন্য সুবিধা হতো। তিনি আরও জানান, ঢাকা যেতে আগে অনেক ভোগান্তি পোহাতে হতো। এখন ্আর ভোগান্তি পোহাতে হবেনা।

রাজবাড়ী শহরের সজ্জনকান্দা এলাকার বাসিন্দা রাজবাড়ী একাডেমির সহ সভাপতি কমল কান্তি সরকার বলেন, নিরাপদ ও আরামদায়ক ভ্রমণের জন্য রেলের জুড়ি নেই। রেলের শহর হিসেবেই রাজবাড়ী পরিচিত। রাজবাড়ী থেকে ট্রেনে ঢাকা যাওয়া যাচ্ছে এটাই আমাদের কাছে এক বিস্ময়। সেখানে একে একে চারটি ট্রেন চালু হলো। নি¤œ শ্রেণি থেকে উচ্চ শ্রেণির সকল মানুষ এখন ট্রেনে ঢাকা যেতে পারছে। এতে করে এলাকার শিক্ষা, স্বাস্থ্য, ব্যবসা-বাণিজ্যের প্রসার ঘটবে।

রাজবাড়ী রেলওয়ে স্টেশন মাস্টার তন্ময় কুমার দত্ত জানান, শুক্রবার থেকে নকশীকাঁথা মেইল ও আন্তঃনগর মধুমতি এক্সপ্রেস ট্রেন দুটি চালুর জন্য সবরকম প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। মেইল ট্রেনের টিকিট স্টেশন কাউন্টার থেকে সংগ্রহ করা যাবে। আন্তঃনগর ট্রেনের টিকিট অনলাইনের পাশাপাশি কাউন্টার থেকে নেওয়া যাবে।

বাংলাদেশ রেলওয়ের পাকশী অঞ্চলের বিভাগীয় পরিবহন কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেন জানান, যে কয়টি বগি নিয়ে ট্রেন দুটি চলাচল করে আপাততঃ তাই থাকছে। ভবিষ্যতে বগির সংখ্যা বাড়ানো হতে পারে।

প্রসঙ্গত, পদ্মা সেতু উদ্বোধনের দীর্ঘদিন পর গত ১০ অক্টোবর রেলপথ উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ১ নভেম্বর থেকে খুলনা-ঢাকা-খুলনা সুন্দরবন এক্সপ্রেস চলাচলের মধ্য দিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হয় ট্রেন চলাচল। এরপর বেনাপোল-ঢাকা-বেনাপোল আন্তঃনগর এক্সপ্রেস ট্রেন চলাচল শুরু হয় ২ নভেম্বর তারিখে।