Dhaka ০৮:৫৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ৫ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
প্রেস ব্রিফিং

রাজবাড়ীতে স্কুল শিক্ষক হত্যায় গ্রেপ্তার ৫ \ অস্ত্রগুলি উদ্ধার

স্টাফ রিপোর্টার
  • প্রকাশের সময় : ০৭:১৫:২০ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৫ মে ২০২৩
  • / ১১৩৬ জন সংবাদটি পড়েছেন

রাজবাড়ীর পাংশা উপজেলার কলিমহর ইউনিয়নের হোসেনডাঙ্গায় স্কুলশিক্ষক মিজানুর রহমানকে হত্যার ঘটনায় পাঁচ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পাংশা থানার পুলিশ। এসময় তাদের কাছ থেকে একটি বন্দুক ও দুই রাউন্ড কার্তুজ উদ্ধার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃতরা হলো একই ইউনিয়নের হাটবনগ্রামের কলম শেখের ছেলে শাকিবুল হাসান, আনন্দ সরকারের ছেলে আকাশ সরকার, ইন্দ্রজিৎ সরকারের ছেলে রামপ্রসাদ সরকার, অজিত সরকারের ছেলে বিজয় সরকার ও অরবিন্দু সরকারের ছেলে বাদল সরকার। গ্রেপ্তারকৃতদের মধ্যে তিনজনই কিশোর বয়সী।

শুক্রবার সকালে রাজবাড়ী পুলিশ সুপারের সম্মেলন কক্ষে এসব তথ্য জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ সুপার এমএম শাকিলুজ্জামান বলেন, গত ৩০ এপ্রিল শিক্ষক মিজানুর রহমান তার দোকানের হালখাতা শেষ করে মোটরসাইকেলযোগে বাড়ি ফেরার পথে ৮/১০ জন দুর্বৃত্ত টাকা ছিনিয়ে নেওয়ার জন্য তার গতিরোধ করে। টাকা না পেয়ে বাদানুবাদের এক পর্যায়ে তার মাথায় গুলি করে পালিয়ে যায়। মূলত টাকা ছিনতাইয়ের উদ্দেশ্যে তাকে হত্যা করা হয়। গ্রেপ্তারকৃতরা হত্যাকান্ডে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে।

সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন রাজবাড়ীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহম্মদ সালাউদ্দিন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রেজাউল করিম, সহকারী পুলিশ সুপার (পাংশা সার্কেল) সুমন কুমার সাহা,  পাংশা থানার ওসি মাসুদুর রহমান প্রমুখ।

প্রসঙ্গত, গত ৩০ এপ্রিল রোববার রাত সাড়ে ৯টার দিকে পাংশা উপজেলার কলিমহর ইউনিয়নের হোসেনডাঙ্গা বাজার থেকে মোটরসাইকেলযোগে বাড়ি ফেরার পথে অজ্ঞাতনামা দুর্বৃত্তরা স্কুল শিক্ষক মিজানুর রহমানকে গুলি করে হত্যা করে। তিনি একই ইউনিয়নের বসাকুষ্টিয়া গ্রামের বাসিন্দা ছিলেন।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

প্রেস ব্রিফিং

রাজবাড়ীতে স্কুল শিক্ষক হত্যায় গ্রেপ্তার ৫ \ অস্ত্রগুলি উদ্ধার

প্রকাশের সময় : ০৭:১৫:২০ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৫ মে ২০২৩

রাজবাড়ীর পাংশা উপজেলার কলিমহর ইউনিয়নের হোসেনডাঙ্গায় স্কুলশিক্ষক মিজানুর রহমানকে হত্যার ঘটনায় পাঁচ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পাংশা থানার পুলিশ। এসময় তাদের কাছ থেকে একটি বন্দুক ও দুই রাউন্ড কার্তুজ উদ্ধার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃতরা হলো একই ইউনিয়নের হাটবনগ্রামের কলম শেখের ছেলে শাকিবুল হাসান, আনন্দ সরকারের ছেলে আকাশ সরকার, ইন্দ্রজিৎ সরকারের ছেলে রামপ্রসাদ সরকার, অজিত সরকারের ছেলে বিজয় সরকার ও অরবিন্দু সরকারের ছেলে বাদল সরকার। গ্রেপ্তারকৃতদের মধ্যে তিনজনই কিশোর বয়সী।

শুক্রবার সকালে রাজবাড়ী পুলিশ সুপারের সম্মেলন কক্ষে এসব তথ্য জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ সুপার এমএম শাকিলুজ্জামান বলেন, গত ৩০ এপ্রিল শিক্ষক মিজানুর রহমান তার দোকানের হালখাতা শেষ করে মোটরসাইকেলযোগে বাড়ি ফেরার পথে ৮/১০ জন দুর্বৃত্ত টাকা ছিনিয়ে নেওয়ার জন্য তার গতিরোধ করে। টাকা না পেয়ে বাদানুবাদের এক পর্যায়ে তার মাথায় গুলি করে পালিয়ে যায়। মূলত টাকা ছিনতাইয়ের উদ্দেশ্যে তাকে হত্যা করা হয়। গ্রেপ্তারকৃতরা হত্যাকান্ডে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে।

সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন রাজবাড়ীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহম্মদ সালাউদ্দিন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রেজাউল করিম, সহকারী পুলিশ সুপার (পাংশা সার্কেল) সুমন কুমার সাহা,  পাংশা থানার ওসি মাসুদুর রহমান প্রমুখ।

প্রসঙ্গত, গত ৩০ এপ্রিল রোববার রাত সাড়ে ৯টার দিকে পাংশা উপজেলার কলিমহর ইউনিয়নের হোসেনডাঙ্গা বাজার থেকে মোটরসাইকেলযোগে বাড়ি ফেরার পথে অজ্ঞাতনামা দুর্বৃত্তরা স্কুল শিক্ষক মিজানুর রহমানকে গুলি করে হত্যা করে। তিনি একই ইউনিয়নের বসাকুষ্টিয়া গ্রামের বাসিন্দা ছিলেন।