Dhaka ০৬:৫০ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ১১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সাড়ে ৩ হাজার গ্রাহকের ৪২ কোটি টাকা আত্মসাৎ

জেকা বাজারের এমডিসহ ১৫ জনের বিরুদ্ধে মানি লন্ডারিং মামলা

স্টাফ রিপোর্টার \
  • প্রকাশের সময় : ০৭:২৮:৫৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৩
  • / ১১০১ জন সংবাদটি পড়েছেন

 রাজবাড়ীতে প্রায় সাড়ে ৩ হাজার গ্রাহকের ৪২ কোটি টাকা আত্মসাতের ঘটনায় জেকা বাজার লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) জাবিউল্লাহ খান জাবিরসহ ১৫ জনের বিরুদ্ধে রাজবাড়ী সদর থানায় মামলা হয়েছে। রাজবাড়ী সিআইডি বিভাগের এসআই কোরবান আলী সরকার বাদী হয়ে মানি লন্ডারিং আইনে গত সোমবার মামলাটি দায়ের করেন। প্রধান আসামি জাবির রাজবাড়ী কালুখালীর গঙ্গানন্দপুরের শুকুর আলীর ছেলে।

মামলার অন্য আসামিরা হলো পাবনা সুজানগরের সাগরকান্দি ইউনিয়নের মুরারীপুর মন্ডলপাড়ার সাইদুল বাশার ওরফে বাবু, খলিলপুর গ্রামের আনিসুর রহমান, রাজবাড়ী সদর উপজেলার খানগঞ্জ ইউনিয়নের বোয়ালমারি গ্রামের মো. ইশানুর রহমান, ভবদিয়া গ্রামের এসএম রাশিদুল ইসলাম কনক, বালিয়াকান্দির শামুকখোলা গ্রামের আব্দুর রহিম, তেনাই গ্রামের নায়েব আলী, সোনাপুরের আনিসুর রহমান, কালুখালী উপজেলার রতনদিয়া ইউনিয়নের রুপসা গ্রামের মিলন প্রামাণিক, রতনদিয়ার শাহ ফিরোজ আহমেদ, গঙ্গানন্দপুর গ্রামের শুকুর আলী শেখ, মমতাজ বেগম, রুকাইয়া খাতুন, রাসেল সৈকত এবং মাদারীপুর জেলার কালকিনি উপজেলার রোদায়ানুল ইসলাম।

মামলায় বাদী উল্লেখ করেছেন, রাজবাড়ী পৌর শহরের পান্না চত্বরের নান্নু টাওয়ারের দ্বিতীয় ও তৃতীয় তলা ভাড়া নিয়ে ই-কমার্স ব্যবসা খোলে জেকা বাজার লিমিটেড। ২০২২ সালের ২৫ মে সিআইডি বিভাগের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তার নির্দেশক্রমে অনুসন্ধান কার্যক্রম চালানো হয়। ওই অনুসন্ধানে দেখা যায়, লাখে ২০ হাজার টাকা লাভ দেওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে প্রায় সাড়ে তিন হাজার গ্রাহকের কাছ থেকে মোট ৪২ কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়ে আত্মগোপন করে। একই বছরের ১৬ জুলাই প্রধান আসামি জাবিউল্লাহ খান জাবিরকে ফরিদপুরের আলীপুর এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করে সিআইডি পুলিশ।

রাজবাড়ী সদর থানার ওসি (তদন্ত) উত্তম কুমার ঘোষ জানান, সিআইডির পক্ষ থেকে দেয়া মামলাটি থানায় রেকর্ড করা হয়েছে।

মামলার বাদী রাজবাড়ী সিআইডি বিভাগের এসআই কোরবান আলী জানান, জেকা বাজার লিমিটেড নামে প্রতিষ্ঠানটি মানুষের কাছ থেকে কোটি কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছে। তাদের প্রতারণায় অনেকে নিঃস্ব হয়ে পথে বসেছে। এ ঘটনায় মামলা হলে তদন্তভার সিআইডির হাতে আসে। মামলাটি তদন্ত করতে গিয়ে এর সত্যতা পাওয়া যায়। যেকারণে জেকা বাজারের সাথে জড়িত ১৫ জনের বিরুদ্ধে মানি লন্ডারিং ্আইনে মামলা করা হয়েছে। মামলার আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

সাড়ে ৩ হাজার গ্রাহকের ৪২ কোটি টাকা আত্মসাৎ

জেকা বাজারের এমডিসহ ১৫ জনের বিরুদ্ধে মানি লন্ডারিং মামলা

প্রকাশের সময় : ০৭:২৮:৫৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৩

 রাজবাড়ীতে প্রায় সাড়ে ৩ হাজার গ্রাহকের ৪২ কোটি টাকা আত্মসাতের ঘটনায় জেকা বাজার লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) জাবিউল্লাহ খান জাবিরসহ ১৫ জনের বিরুদ্ধে রাজবাড়ী সদর থানায় মামলা হয়েছে। রাজবাড়ী সিআইডি বিভাগের এসআই কোরবান আলী সরকার বাদী হয়ে মানি লন্ডারিং আইনে গত সোমবার মামলাটি দায়ের করেন। প্রধান আসামি জাবির রাজবাড়ী কালুখালীর গঙ্গানন্দপুরের শুকুর আলীর ছেলে।

মামলার অন্য আসামিরা হলো পাবনা সুজানগরের সাগরকান্দি ইউনিয়নের মুরারীপুর মন্ডলপাড়ার সাইদুল বাশার ওরফে বাবু, খলিলপুর গ্রামের আনিসুর রহমান, রাজবাড়ী সদর উপজেলার খানগঞ্জ ইউনিয়নের বোয়ালমারি গ্রামের মো. ইশানুর রহমান, ভবদিয়া গ্রামের এসএম রাশিদুল ইসলাম কনক, বালিয়াকান্দির শামুকখোলা গ্রামের আব্দুর রহিম, তেনাই গ্রামের নায়েব আলী, সোনাপুরের আনিসুর রহমান, কালুখালী উপজেলার রতনদিয়া ইউনিয়নের রুপসা গ্রামের মিলন প্রামাণিক, রতনদিয়ার শাহ ফিরোজ আহমেদ, গঙ্গানন্দপুর গ্রামের শুকুর আলী শেখ, মমতাজ বেগম, রুকাইয়া খাতুন, রাসেল সৈকত এবং মাদারীপুর জেলার কালকিনি উপজেলার রোদায়ানুল ইসলাম।

মামলায় বাদী উল্লেখ করেছেন, রাজবাড়ী পৌর শহরের পান্না চত্বরের নান্নু টাওয়ারের দ্বিতীয় ও তৃতীয় তলা ভাড়া নিয়ে ই-কমার্স ব্যবসা খোলে জেকা বাজার লিমিটেড। ২০২২ সালের ২৫ মে সিআইডি বিভাগের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তার নির্দেশক্রমে অনুসন্ধান কার্যক্রম চালানো হয়। ওই অনুসন্ধানে দেখা যায়, লাখে ২০ হাজার টাকা লাভ দেওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে প্রায় সাড়ে তিন হাজার গ্রাহকের কাছ থেকে মোট ৪২ কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়ে আত্মগোপন করে। একই বছরের ১৬ জুলাই প্রধান আসামি জাবিউল্লাহ খান জাবিরকে ফরিদপুরের আলীপুর এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করে সিআইডি পুলিশ।

রাজবাড়ী সদর থানার ওসি (তদন্ত) উত্তম কুমার ঘোষ জানান, সিআইডির পক্ষ থেকে দেয়া মামলাটি থানায় রেকর্ড করা হয়েছে।

মামলার বাদী রাজবাড়ী সিআইডি বিভাগের এসআই কোরবান আলী জানান, জেকা বাজার লিমিটেড নামে প্রতিষ্ঠানটি মানুষের কাছ থেকে কোটি কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছে। তাদের প্রতারণায় অনেকে নিঃস্ব হয়ে পথে বসেছে। এ ঘটনায় মামলা হলে তদন্তভার সিআইডির হাতে আসে। মামলাটি তদন্ত করতে গিয়ে এর সত্যতা পাওয়া যায়। যেকারণে জেকা বাজারের সাথে জড়িত ১৫ জনের বিরুদ্ধে মানি লন্ডারিং ্আইনে মামলা করা হয়েছে। মামলার আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।