Dhaka ০৬:২৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ৩০ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

‘অটিজম শিশুদের ভালোবেসে গড়ে তুলতে হবে’

স্টাফ রিপোর্টার
  • প্রকাশের সময় : ০৮:৫৭:২১ অপরাহ্ন, রবিবার, ২ এপ্রিল ২০২৩
  • / ১০৭৪ জন সংবাদটি পড়েছেন

অটিজম শিশুদের ঘৃণা নয়, ভালোবেসে সচেতনতার মাধ্যমে গড়ে তুলতে হবে। এতে তারা মানসিক বিকাশের সুযোগ পাবে। সেও স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসতে পারে। বিশ^ অটিজম সচেতনতা দিবস উপলক্ষে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় এমন কথাই বলেন বক্তারা। রাজবাড়ী জেলা প্রশাসন, জেলা সমাজসেবা কার্যালয় ও প্রতিবন্ধী সেবা সহায়তা কেন্দ্রের যৌথ আয়োজনে রোববার জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে এ আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন রাজবাড়ীর জেলা প্রশাসক আবু কায়সার খান।

রাজবাড়ীর অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) সূবর্ণা রানী সাহার সভাপতিত্বে অন্যদের মাঝে বক্তৃতা করেন রাজবাড়ীর সিভিল সার্জন ডা. ইব্রাহীম টিটন, সাবেক জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা ফকীর আব্দুল জব্বার, সমাজসেবা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক রুবায়েত ফেরদৌস, জেলা শিশু বিষয়ক কর্মকর্তা আলীমুর রেজা প্রমুখ।

বক্তারা আরও বলেন, অটিজম শিশুরা সুযোগ পেলে নতুন নতুন উদ্ভাবনেও ভূমিকা রাখতে পারে। প্রধানমন্ত্রীর কন্যা সাইমা ওয়াজেদ পুতুল অটিজম শিশুদের জীবনমান উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছেন।

আলোচনাসভা শেষে চিত্রাঙ্কনসহ বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারী ৩০ জন অটিজম শিশুর হাতে পুরষ্কার তুলে দেওয়া হয়।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

‘অটিজম শিশুদের ভালোবেসে গড়ে তুলতে হবে’

প্রকাশের সময় : ০৮:৫৭:২১ অপরাহ্ন, রবিবার, ২ এপ্রিল ২০২৩

অটিজম শিশুদের ঘৃণা নয়, ভালোবেসে সচেতনতার মাধ্যমে গড়ে তুলতে হবে। এতে তারা মানসিক বিকাশের সুযোগ পাবে। সেও স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসতে পারে। বিশ^ অটিজম সচেতনতা দিবস উপলক্ষে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় এমন কথাই বলেন বক্তারা। রাজবাড়ী জেলা প্রশাসন, জেলা সমাজসেবা কার্যালয় ও প্রতিবন্ধী সেবা সহায়তা কেন্দ্রের যৌথ আয়োজনে রোববার জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে এ আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন রাজবাড়ীর জেলা প্রশাসক আবু কায়সার খান।

রাজবাড়ীর অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) সূবর্ণা রানী সাহার সভাপতিত্বে অন্যদের মাঝে বক্তৃতা করেন রাজবাড়ীর সিভিল সার্জন ডা. ইব্রাহীম টিটন, সাবেক জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা ফকীর আব্দুল জব্বার, সমাজসেবা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক রুবায়েত ফেরদৌস, জেলা শিশু বিষয়ক কর্মকর্তা আলীমুর রেজা প্রমুখ।

বক্তারা আরও বলেন, অটিজম শিশুরা সুযোগ পেলে নতুন নতুন উদ্ভাবনেও ভূমিকা রাখতে পারে। প্রধানমন্ত্রীর কন্যা সাইমা ওয়াজেদ পুতুল অটিজম শিশুদের জীবনমান উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছেন।

আলোচনাসভা শেষে চিত্রাঙ্কনসহ বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারী ৩০ জন অটিজম শিশুর হাতে পুরষ্কার তুলে দেওয়া হয়।