Dhaka ০১:৩২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

যাত্রী ছাউনী গুঁড়িয়ে দেওয়ায় চার্জশীট, রাজবাড়ী জেলা পরিষদের সদস্য মজনুকে বরখাস্ত করে প্রজ্ঞাপন

সংবাদদাতা-
  • প্রকাশের সময় : ০৮:১১:২০ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৩ জানুয়ারী ২০২১
  • / ১৫০৭ জন সংবাদটি পড়েছেন

জনতার আদালত অনলাইন ॥ রাজবাড়ী জেলা পরিষদের ১০ নং ওয়ার্ডের সদস্য মিজানুর রহমান মজনুকে সাময়িক বরখাস্ত করে প্রজ্ঞাপন জারী করেছে স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের স্থানীয় সরকার বিভাগ। মজনু কালুখালী উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক। তার বাড়ি কালুখালী উপজেলার মদাপুর ইউনিয়ন এলাকায়।

স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের উপসচিব তানভীর আজম সিদ্দিকী স্বাক্ষরিত প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়েছে, রাজবাড়ী জেলা পরিষদের ১০ নং ওয়ার্ডের সদস্য মিজানুর রহমান মজনুর বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলার অভিযোগপত্র আদালতে গৃহীত হওয়ায় তার দ্বারা জেলা পরিষদের ক্ষমতা প্রয়োগ জনস্বার্থের পরিপন্থি বলে সরকার মনে করে। সেকারণে জেলা পরিষদ আইন ২০০০  (জেলা পরিষদ (সংশোধন) আইন, ২০১৬ দ্বারা সংশোধিত) এর ১০ ক ধারা অনুযায়ী রাজবাড়ী জেলা পরিষদের সদস্য মিজানুর রহমান মজনুকে জনস্বার্থে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হলো।

রাজবাড়ী জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা ফকীর আব্দুল জব্বার জেলা পরিষদের সদস্য পদ থেকে মিজানুর রহমান মজনুকে বরখাস্তের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

২০১৯ সালের ২০ ফেব্রুয়ারি তারিখ মাঝরাতে দৌলতদিয়া-কুষ্টিয়া আঞ্চলিক মহাসড়কের রাজবাড়ীর কালুখালী উপজেলার চাঁদপুর বাসস্ট্যান্ডে অবস্থিত জেলা পরিষদের যাত্রী ছাউনীটি ভেঙে গুড়িয়ে দেওয়া হয়। ঘটনার পাঁচদিন পর ২৫ ফেব্রুয়ারি তারিখে রাজবাড়ী জেলা পরিষদের সহকারী প্রকৌশলী আবু ইউসুছ মোল্লা বাদী হয়ে কালুখালী থানায় অজ্ঞাতনামা আসামিদের বিরুদ্ধে মামলা করেন। দীর্ঘ এক বছর ৯ মাস পর মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা পিবিআই ফরিদপুর এর এসআই মাহবুবুর রহমান যাত্রী ছাউনী ভাঙার জন্য মিজানুর রহমান মজনুকে অভিযুক্ত করে রাজবাড়ীর আদালতে চার্জশীট দাখিল করেন।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

যাত্রী ছাউনী গুঁড়িয়ে দেওয়ায় চার্জশীট, রাজবাড়ী জেলা পরিষদের সদস্য মজনুকে বরখাস্ত করে প্রজ্ঞাপন

প্রকাশের সময় : ০৮:১১:২০ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৩ জানুয়ারী ২০২১

জনতার আদালত অনলাইন ॥ রাজবাড়ী জেলা পরিষদের ১০ নং ওয়ার্ডের সদস্য মিজানুর রহমান মজনুকে সাময়িক বরখাস্ত করে প্রজ্ঞাপন জারী করেছে স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের স্থানীয় সরকার বিভাগ। মজনু কালুখালী উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক। তার বাড়ি কালুখালী উপজেলার মদাপুর ইউনিয়ন এলাকায়।

স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের উপসচিব তানভীর আজম সিদ্দিকী স্বাক্ষরিত প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়েছে, রাজবাড়ী জেলা পরিষদের ১০ নং ওয়ার্ডের সদস্য মিজানুর রহমান মজনুর বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলার অভিযোগপত্র আদালতে গৃহীত হওয়ায় তার দ্বারা জেলা পরিষদের ক্ষমতা প্রয়োগ জনস্বার্থের পরিপন্থি বলে সরকার মনে করে। সেকারণে জেলা পরিষদ আইন ২০০০  (জেলা পরিষদ (সংশোধন) আইন, ২০১৬ দ্বারা সংশোধিত) এর ১০ ক ধারা অনুযায়ী রাজবাড়ী জেলা পরিষদের সদস্য মিজানুর রহমান মজনুকে জনস্বার্থে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হলো।

রাজবাড়ী জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা ফকীর আব্দুল জব্বার জেলা পরিষদের সদস্য পদ থেকে মিজানুর রহমান মজনুকে বরখাস্তের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

২০১৯ সালের ২০ ফেব্রুয়ারি তারিখ মাঝরাতে দৌলতদিয়া-কুষ্টিয়া আঞ্চলিক মহাসড়কের রাজবাড়ীর কালুখালী উপজেলার চাঁদপুর বাসস্ট্যান্ডে অবস্থিত জেলা পরিষদের যাত্রী ছাউনীটি ভেঙে গুড়িয়ে দেওয়া হয়। ঘটনার পাঁচদিন পর ২৫ ফেব্রুয়ারি তারিখে রাজবাড়ী জেলা পরিষদের সহকারী প্রকৌশলী আবু ইউসুছ মোল্লা বাদী হয়ে কালুখালী থানায় অজ্ঞাতনামা আসামিদের বিরুদ্ধে মামলা করেন। দীর্ঘ এক বছর ৯ মাস পর মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা পিবিআই ফরিদপুর এর এসআই মাহবুবুর রহমান যাত্রী ছাউনী ভাঙার জন্য মিজানুর রহমান মজনুকে অভিযুক্ত করে রাজবাড়ীর আদালতে চার্জশীট দাখিল করেন।