Dhaka ১০:২৩ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

যৌনপল্লীতে লুটপাটের ঘটনায় চরমপন্থী নেতাসহ গ্রেপ্তার ২

সংবাদদাতা-
  • প্রকাশের সময় : ০৫:৪৫:০৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২০
  • / ১৩৯৩ জন সংবাদটি পড়েছেন

 

জনতার আদালত অনলাইন ॥ গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়া যৌনপল্লীতে ত্রাস সৃষ্টি ও লুটপাটের অভিযোগে বৃহস্পতিবার চরমপন্থী নেতা ৭টি ডাকাতি মামলার আসামীসহ দুই জনকে গ্রেপ্তার করেছে গোয়ালন্দ ঘাট থানা পুলিশ।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলো, ফরিদপুর জেলার ভাঙ্গা উপজেলার গুলপালাদী গ্রামের আ. মালেক মোল্লার ছেলে সোহেল মোল্লা ওরফে ভাঙ্গা সোহেল (৩১) ও রাজবাড়ী জেলার গোয়ালন্দ উপজেলার কিতাবউদ্দিন মোল্লার পাড়া গ্রামের হাবিব শেখের ছেলে আলেফ শেখ (৪৫)।

থানা পুলিশ সূত্র জানায়, দৌলতদিয়া যৌনপল্লীর বাসিন্দা খুশি বেগমের বাড়িতে গত মঙ্গলবার রাতে হামলা চালিয়ে ঘরে আসবাবপত্র ভাঙচুরসহ নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকার লুটপাট করে। এ ঘটনায় খুশি বেগম বৃহস্পতিবার গোয়ালন্দ ঘাট থানায় গ্রেপ্তারকৃত দুইজনসহ ৭ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। পরে দৌলতদিয়া যৌনপল্লীতে অভিযান চালিয়ে দুইজনকে গ্রেপ্তার করে।

গোয়ালন্দ ঘাট থানার ওসি আব্দুল্লাহ আল তায়াবীর জানান, দুর্ধর্ষ সন্ত্রাসী ও চরমপন্থী দলের সক্রিয় সদস্য ভাঙ্গা সোহেলের বিরুদ্ধে গোয়ালন্দ ঘাট থানা সহ অন্যান্য থানায় অন্তত ৭টি ডাকাতি মামলা রয়েছে। সে বিভিন্ন সময় দৌলতদিয়া যৌনপল্লীতে অবস্থান করে এই এলাকায় মহাসড়কে ডাকাতিসহ নানা অপকর্ম পরিচালনা করে আসছিল।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

যৌনপল্লীতে লুটপাটের ঘটনায় চরমপন্থী নেতাসহ গ্রেপ্তার ২

প্রকাশের সময় : ০৫:৪৫:০৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২০

 

জনতার আদালত অনলাইন ॥ গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়া যৌনপল্লীতে ত্রাস সৃষ্টি ও লুটপাটের অভিযোগে বৃহস্পতিবার চরমপন্থী নেতা ৭টি ডাকাতি মামলার আসামীসহ দুই জনকে গ্রেপ্তার করেছে গোয়ালন্দ ঘাট থানা পুলিশ।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলো, ফরিদপুর জেলার ভাঙ্গা উপজেলার গুলপালাদী গ্রামের আ. মালেক মোল্লার ছেলে সোহেল মোল্লা ওরফে ভাঙ্গা সোহেল (৩১) ও রাজবাড়ী জেলার গোয়ালন্দ উপজেলার কিতাবউদ্দিন মোল্লার পাড়া গ্রামের হাবিব শেখের ছেলে আলেফ শেখ (৪৫)।

থানা পুলিশ সূত্র জানায়, দৌলতদিয়া যৌনপল্লীর বাসিন্দা খুশি বেগমের বাড়িতে গত মঙ্গলবার রাতে হামলা চালিয়ে ঘরে আসবাবপত্র ভাঙচুরসহ নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকার লুটপাট করে। এ ঘটনায় খুশি বেগম বৃহস্পতিবার গোয়ালন্দ ঘাট থানায় গ্রেপ্তারকৃত দুইজনসহ ৭ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। পরে দৌলতদিয়া যৌনপল্লীতে অভিযান চালিয়ে দুইজনকে গ্রেপ্তার করে।

গোয়ালন্দ ঘাট থানার ওসি আব্দুল্লাহ আল তায়াবীর জানান, দুর্ধর্ষ সন্ত্রাসী ও চরমপন্থী দলের সক্রিয় সদস্য ভাঙ্গা সোহেলের বিরুদ্ধে গোয়ালন্দ ঘাট থানা সহ অন্যান্য থানায় অন্তত ৭টি ডাকাতি মামলা রয়েছে। সে বিভিন্ন সময় দৌলতদিয়া যৌনপল্লীতে অবস্থান করে এই এলাকায় মহাসড়কে ডাকাতিসহ নানা অপকর্ম পরিচালনা করে আসছিল।