Dhaka ০১:৩৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

গোয়ালন্দে শিশু ধর্ষণের অভিযোগ

সংবাদদাতা-
  • প্রকাশের সময় : ০৭:০৩:২৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ৭ নভেম্বর ২০২০
  • / ১২৪৩ জন সংবাদটি পড়েছেন

জনতার আদালত অনলাইন ॥ রাজবাড়ীর গোয়ালন্দে ১২ বছর বছর বয়সী এক শিশু ধর্ষণের শিকার হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় শনিবার গোয়ালন্দ ঘাট থানায় মামলা দায়ের করেছে ধর্ষিত শিশুর পিতা।

মামলার এজহার সূত্রে জানা যায়, শিশুটির পিতা দিনমজুরের কাজ করে। কাজের কারণে শুক্রবার তিনি বাড়ির বাইরে ছিলেন। শিশুটির মা গবাদি পশুর জন্য মাঠে ঘাস কাটতে যান। শুক্রবার বিকেলে শিশুটি তাদের বসতঘরে একাই ছিলো। এ সুযোগে গোয়ালন্দ উপজেলার দক্ষিণ দৌলতদিয়া ইছাক মুন্সির পাড়া গ্রামের মো. নাছির শেখের ছেলে রফিক শেখ (২১) তাদের ঘরে প্রবেশ করে। এসময় ঘরের দরজা বন্ধ করে দিয়ে শিশুটির ইচ্ছার বিরুদ্ধে ধর্ষণ করে। এক পর্যায়ে শিশুটির বাবা বাড়িতে এসে মেয়ের নাম ধরে ডাকলে ধর্ষক দরজা খুলে দৌড়ে পালিয়ে যায়।

এ বিষয়ে গোয়ালন্দ ঘাট থানার ওসি আব্দুল্লাহ আল তায়াবীর জানান, এ ঘটনায় রফিক শেখকে আসামী করে ওই শিশুর পিতা মামলা দায়ের করেছেন। শিশুটির স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য রাজবাড়ী সিভিল সার্জন অফিসে পাঠানো হয়েছে। অভিযুক্তকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা অব্যাহত আছে।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

গোয়ালন্দে শিশু ধর্ষণের অভিযোগ

প্রকাশের সময় : ০৭:০৩:২৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ৭ নভেম্বর ২০২০

জনতার আদালত অনলাইন ॥ রাজবাড়ীর গোয়ালন্দে ১২ বছর বছর বয়সী এক শিশু ধর্ষণের শিকার হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় শনিবার গোয়ালন্দ ঘাট থানায় মামলা দায়ের করেছে ধর্ষিত শিশুর পিতা।

মামলার এজহার সূত্রে জানা যায়, শিশুটির পিতা দিনমজুরের কাজ করে। কাজের কারণে শুক্রবার তিনি বাড়ির বাইরে ছিলেন। শিশুটির মা গবাদি পশুর জন্য মাঠে ঘাস কাটতে যান। শুক্রবার বিকেলে শিশুটি তাদের বসতঘরে একাই ছিলো। এ সুযোগে গোয়ালন্দ উপজেলার দক্ষিণ দৌলতদিয়া ইছাক মুন্সির পাড়া গ্রামের মো. নাছির শেখের ছেলে রফিক শেখ (২১) তাদের ঘরে প্রবেশ করে। এসময় ঘরের দরজা বন্ধ করে দিয়ে শিশুটির ইচ্ছার বিরুদ্ধে ধর্ষণ করে। এক পর্যায়ে শিশুটির বাবা বাড়িতে এসে মেয়ের নাম ধরে ডাকলে ধর্ষক দরজা খুলে দৌড়ে পালিয়ে যায়।

এ বিষয়ে গোয়ালন্দ ঘাট থানার ওসি আব্দুল্লাহ আল তায়াবীর জানান, এ ঘটনায় রফিক শেখকে আসামী করে ওই শিশুর পিতা মামলা দায়ের করেছেন। শিশুটির স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য রাজবাড়ী সিভিল সার্জন অফিসে পাঠানো হয়েছে। অভিযুক্তকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা অব্যাহত আছে।