Dhaka ০২:৫৫ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বালিয়াকান্দিতে স্ত্রীর লাশ ফেলে পালিয়েছে স্বামী

সংবাদদাতা-
  • প্রকাশের সময় : ০৭:৪৪:৫৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ৭ অক্টোবর ২০২০
  • / ১৩২৮ জন সংবাদটি পড়েছেন

জনতার আদালত অনলাইন ॥ রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে স্ত্রী ঝর্ণা বেগমের লাশ ফেলে পালিয়েছে স্বামী আসিফ শেখ। বুধবার সকাল ১০টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। আসিফ শেখ বালিয়াকান্দি উপজেলার জামালপুর ইউনিয়নের বেতেঙ্গা গ্রামের বাসিন্দা। গৃহবধূ ঝর্ণা বেগমের বাবার বাড়ি একই উপজেলার ডাঙ্গাহাতিমোহন গ্রামে।

বালিয়াকান্দি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্র জানায়, সকাল সাড়ে নয়টার  দিকে গৃহবধূ ঝর্ণা বেগমকে তার স্বামী হাসপাতালে নিয়ে এসে জানান ঝর্ণা বেগম বিষপান করেছে। তাৎক্ষণিক প্রাথমিক ব্যবস্থা হিসেবে ওয়াশ করার ব্যবস্থা নেয়া হয়। ওয়াশ করা অবস্থায় ঝর্ণা বেগম মারা যান। গৃহবধূর মৃত্যুর খবর শুনে স্বামী আসিফ শেখ পালিয়ে যায়।

নিহতের বাবার বাড়ি সদস্যরা জানান, দুই বছর আগে আসিফ শেখের সাথে ঝর্ণা বেগমের বিয়ে হয়। তাদের সংসারে পাঁচ মাস বয়সী একটি মেয়ে আছে। তারা অভিযোগ করেন, বিয়ের পর থেকে আসিফ যৌতুকের জন্য ঝর্ণার উপর নির্যাতন চালাতো। গত মঙ্গল ও বুধবার আসিফ শেখ আবারও মারধর করে। পরে তারা ঝর্ণার মৃত্যুর খবর শুনে ছুটে আসেন। তারা ধারণা করছেন ঝর্ণাকে হত্যা করা হয়েছে।

বালিয়াকান্দি হাসপাতালের জরুরী বিভাগে কর্মরত চিকিৎসক ডা. জুয়েল রানা জানান, হাসপাতালে আনার পর তাকে ওয়াশ করার সময় গৃহবধূ মারা যায়। তার নাকে মুখে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। মারা যাওয়ার কথা শুনেই তার স্বামী ও স্বজনরা হাসপাতালে লাশ ফেলে রেখে পালিয়ে যায়।

বালিয়াকান্দি থানার ওসি তারিকুজ্জামান জানান, গৃহবধূকে তার স্বামী ও চাচী শাশুড়ি হাসপাতালে নিয়ে গিয়েছিল। গৃহবধূর মৃত্যুর পর স্বামী পালিয়েছে। সে এখনও পলাতক। প্রাথমিকভাবে জানা গেছে, সকালে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়ঝাটি হয়েছিল। যার জেরে গৃহবধূ বিষপান করেছে। পুলিশ বিষয়টি গভীরভাবে তদন্ত করছে। ভুক্তভোগীর পরিবারের পক্ষ থেকে মামলা দিলে গ্রহণ করা হবে। নিহতের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য রাজবাড়ী সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্ত রিপোর্ট পাওয়ার পর মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যাবে।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

বালিয়াকান্দিতে স্ত্রীর লাশ ফেলে পালিয়েছে স্বামী

প্রকাশের সময় : ০৭:৪৪:৫৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ৭ অক্টোবর ২০২০

জনতার আদালত অনলাইন ॥ রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে স্ত্রী ঝর্ণা বেগমের লাশ ফেলে পালিয়েছে স্বামী আসিফ শেখ। বুধবার সকাল ১০টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। আসিফ শেখ বালিয়াকান্দি উপজেলার জামালপুর ইউনিয়নের বেতেঙ্গা গ্রামের বাসিন্দা। গৃহবধূ ঝর্ণা বেগমের বাবার বাড়ি একই উপজেলার ডাঙ্গাহাতিমোহন গ্রামে।

বালিয়াকান্দি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্র জানায়, সকাল সাড়ে নয়টার  দিকে গৃহবধূ ঝর্ণা বেগমকে তার স্বামী হাসপাতালে নিয়ে এসে জানান ঝর্ণা বেগম বিষপান করেছে। তাৎক্ষণিক প্রাথমিক ব্যবস্থা হিসেবে ওয়াশ করার ব্যবস্থা নেয়া হয়। ওয়াশ করা অবস্থায় ঝর্ণা বেগম মারা যান। গৃহবধূর মৃত্যুর খবর শুনে স্বামী আসিফ শেখ পালিয়ে যায়।

নিহতের বাবার বাড়ি সদস্যরা জানান, দুই বছর আগে আসিফ শেখের সাথে ঝর্ণা বেগমের বিয়ে হয়। তাদের সংসারে পাঁচ মাস বয়সী একটি মেয়ে আছে। তারা অভিযোগ করেন, বিয়ের পর থেকে আসিফ যৌতুকের জন্য ঝর্ণার উপর নির্যাতন চালাতো। গত মঙ্গল ও বুধবার আসিফ শেখ আবারও মারধর করে। পরে তারা ঝর্ণার মৃত্যুর খবর শুনে ছুটে আসেন। তারা ধারণা করছেন ঝর্ণাকে হত্যা করা হয়েছে।

বালিয়াকান্দি হাসপাতালের জরুরী বিভাগে কর্মরত চিকিৎসক ডা. জুয়েল রানা জানান, হাসপাতালে আনার পর তাকে ওয়াশ করার সময় গৃহবধূ মারা যায়। তার নাকে মুখে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। মারা যাওয়ার কথা শুনেই তার স্বামী ও স্বজনরা হাসপাতালে লাশ ফেলে রেখে পালিয়ে যায়।

বালিয়াকান্দি থানার ওসি তারিকুজ্জামান জানান, গৃহবধূকে তার স্বামী ও চাচী শাশুড়ি হাসপাতালে নিয়ে গিয়েছিল। গৃহবধূর মৃত্যুর পর স্বামী পালিয়েছে। সে এখনও পলাতক। প্রাথমিকভাবে জানা গেছে, সকালে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়ঝাটি হয়েছিল। যার জেরে গৃহবধূ বিষপান করেছে। পুলিশ বিষয়টি গভীরভাবে তদন্ত করছে। ভুক্তভোগীর পরিবারের পক্ষ থেকে মামলা দিলে গ্রহণ করা হবে। নিহতের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য রাজবাড়ী সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্ত রিপোর্ট পাওয়ার পর মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যাবে।