Dhaka 7:49 am, Sunday, 5 February 2023

হত্যাচেষ্টার অভিযোগে রাজবাড়ী জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে মামলা করলেন রিক্সাচালক

সংবাদদাতা-
  • প্রকাশের সময় : 08:07:50 pm, Monday, 28 September 2020
  • / 1439 জন সংবাদটি পড়েছেন

জনতার আদালত অনলাইন॥  হত্যাচেষ্টার অভিযোগে রাজবাড়ী জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম এরশাদসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে সোমবার রাজবাড়ীর ১ নং আমলী আদালতে মামলা করেছেন রিক্সাচালক মহিরুদ্দিন শেখ। মামলার বিচারক লাবণী আক্তার মামলাটি গ্রহণ করে তদন্তের জন্য রাজবাড়ী সদর থানার ওসিকে নির্দেশ দিয়েছেন।

মামলার বাদী মহিরুদ্দিন শেখ রাজবাড়ী সদর উপজেলার দাদশী ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ড সিংগা গ্রামের বাসিন্দা। সাইফুল ইসলাম এরশাদও একই ওয়ার্ডের মোহাম্মদপুর গ্রামে বাসিন্দা। মামলার অন্য আসামিরা হলো রিফাত, মুরাদ, ফরহাদ, মজিবর মোল্লা ও নুরুল হক শুভ। এদের সবার বাড়ি একই ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামে।

মামলায় বাদী অভিযোগ করেন, সাইফুল ইসলাম এরশাদের সাথে তার সামাজিক ও পারিবারিক বিরোধ ছিল। এর জের ধরে গত ১ আগস্ট তারিখে বেলা সাড়ে ১১টার দিকে জীবীকার তাগিদে রিক্সা নিয়ে বের হয়ে দাদশী ইউনিয়নের মোহাম্মদপুর ব্রিজ এলাকায় পৌছালে আসামিরা অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে তার পথরোধ করে। এসময় রিফাত তার রিক্সায় উঠে বসে। তিনি নামতে বলায় তাকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে। এরশাদসহ অন্যরা লোহার রড, কাঠের বাটাম দিয়ে তার মাথা ও শরীরের অন্যান্য স্থানে বেধরক পিটিয়ে গুরুতর জখম করে। তার রিক্সাটিও ভেঙ্গে চুরমার করে আসামিরা। পরে স্থানীয় লোকজন তাকে অজ্ঞান অবস্থায় প্রথমে রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখান থেকে চিকিৎসকরা ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। সেখানেও শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাকে ঢাকা ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট হাসপাতালে স্থানান্তর করেন। দীর্ঘদিন তাকে হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে হয়েছে।

রাজবাড়ী জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম এরশাদ ত্রা বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, মহিরুদ্দিন শেখের সাথে আমার কোনো বিরোধ ছিলনা। অন্য পোলাপানের গ্যাঞ্জাম আমার উপর চাপিয়ে দিয়েছে। এলাকার সবাই এটা জানে। গ্যাঞ্জাম হয়েছে আরও তিন মাস আগে। আমি এর সাথে জড়িত নই। আমার ব্যক্তি ইমেজ নষ্ট করার জন্য আমাকে জড়িয়ে এ মামলা করেছে।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

হত্যাচেষ্টার অভিযোগে রাজবাড়ী জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে মামলা করলেন রিক্সাচালক

প্রকাশের সময় : 08:07:50 pm, Monday, 28 September 2020

জনতার আদালত অনলাইন॥  হত্যাচেষ্টার অভিযোগে রাজবাড়ী জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম এরশাদসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে সোমবার রাজবাড়ীর ১ নং আমলী আদালতে মামলা করেছেন রিক্সাচালক মহিরুদ্দিন শেখ। মামলার বিচারক লাবণী আক্তার মামলাটি গ্রহণ করে তদন্তের জন্য রাজবাড়ী সদর থানার ওসিকে নির্দেশ দিয়েছেন।

মামলার বাদী মহিরুদ্দিন শেখ রাজবাড়ী সদর উপজেলার দাদশী ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ড সিংগা গ্রামের বাসিন্দা। সাইফুল ইসলাম এরশাদও একই ওয়ার্ডের মোহাম্মদপুর গ্রামে বাসিন্দা। মামলার অন্য আসামিরা হলো রিফাত, মুরাদ, ফরহাদ, মজিবর মোল্লা ও নুরুল হক শুভ। এদের সবার বাড়ি একই ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামে।

মামলায় বাদী অভিযোগ করেন, সাইফুল ইসলাম এরশাদের সাথে তার সামাজিক ও পারিবারিক বিরোধ ছিল। এর জের ধরে গত ১ আগস্ট তারিখে বেলা সাড়ে ১১টার দিকে জীবীকার তাগিদে রিক্সা নিয়ে বের হয়ে দাদশী ইউনিয়নের মোহাম্মদপুর ব্রিজ এলাকায় পৌছালে আসামিরা অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে তার পথরোধ করে। এসময় রিফাত তার রিক্সায় উঠে বসে। তিনি নামতে বলায় তাকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে। এরশাদসহ অন্যরা লোহার রড, কাঠের বাটাম দিয়ে তার মাথা ও শরীরের অন্যান্য স্থানে বেধরক পিটিয়ে গুরুতর জখম করে। তার রিক্সাটিও ভেঙ্গে চুরমার করে আসামিরা। পরে স্থানীয় লোকজন তাকে অজ্ঞান অবস্থায় প্রথমে রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখান থেকে চিকিৎসকরা ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। সেখানেও শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাকে ঢাকা ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট হাসপাতালে স্থানান্তর করেন। দীর্ঘদিন তাকে হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে হয়েছে।

রাজবাড়ী জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম এরশাদ ত্রা বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, মহিরুদ্দিন শেখের সাথে আমার কোনো বিরোধ ছিলনা। অন্য পোলাপানের গ্যাঞ্জাম আমার উপর চাপিয়ে দিয়েছে। এলাকার সবাই এটা জানে। গ্যাঞ্জাম হয়েছে আরও তিন মাস আগে। আমি এর সাথে জড়িত নই। আমার ব্যক্তি ইমেজ নষ্ট করার জন্য আমাকে জড়িয়ে এ মামলা করেছে।