Dhaka 6:50 am, Sunday, 5 February 2023

রাজবাড়ী রেড ক্রিসেন্ট ইউনিটে বার্ষিক সদস্যভূক্তির আবেদন ফরম বিতরণে অনিয়ম বিষয়ে প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ

সংবাদদাতা-
  • প্রকাশের সময় : 05:09:56 pm, Tuesday, 15 September 2020
  • / 1513 জন সংবাদটি পড়েছেন

গত ১২ সেপ্টেম্বর ২০২০ইং তারিখ দৈনিক মাতৃকণ্ঠে প্রকাশিত রাজবাড়ী রেড ক্রিসেন্ট ইউনিটে বার্ষিক সদস্যভূক্তির আবেদন ফরম বিতরণে অনিয়মের যে অভিযোগ প্রকাশিত হয়েছে তা মিথ্যা, ভিত্তিহীন ও উদ্দেশ্য প্রণোদিত। মোঃ শহিদুল ইসলাম আজীবন সদস্য (সনদ ক্রমিক নং-৫৩০৬৫) ও সম্ভাব্য সেক্রেটারী পদ প্রার্থী যে অভিযোগ করেছেন তা ভিত্তিহীন। কারণ তিনি জানেন না বর্তমান কোভিড-১৯ করোনা ভাইরাসে বাংলাদেশসহ সারা বিশ্ব আক্রান্তসহ লক্ষ লক্ষ লোকের প্রাণহানী হচ্ছে তখন বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি জাতীয় সদর দপ্তরের সিদ্ধান্তের কারণে পরিপত্র দেরি করে পাঠিয়েছেন। এই ইউনিটের বা ইউনিট অফিসারের কোন সমস্যা নয় তিনি আরো যে অভিযোগ করেছেন তাও ভিত্তিহীন, যতক্ষণ সদস্য আবেদন ফরম চাহিদা পাওয়া গেছে ততক্ষণ সদস্য ফরম জাতীয় সদর দপ্তর থেকে এনে বিতরণ চলমান রয়েছে। তিনি নিজে একজন আজীবন সদস্য হওয়া সত্যেও কয়েকবার তার নিজের নামে এবং বেনামে শত শত সদস্য ফরম সংগ্রহ করেছেন ফরম শেষ হলে পূনরায় টাকা ডিডি করে চাহিদাপত্র দেওয়া হয়েছে বিষয়টি তিনি না জেনে অভিযোগ অথবা জেনে উদ্দেশ্য প্রনোদিত হয়ে অভিযোগ করেছেন। মোঃ শহিদুল ইসলাম আজীবন সদস্য (সনদ ক্রমিক নং-৫৩০৬৫) ও সম্ভাব্য সেক্রেটারী পদপ্রার্থী বিধায় নানাবিধ মিথ্যা অভিযোগ দিয়ে যাচ্ছেন। আর উনি যে বার বার বিদায়ী কমিটিকে পূনরায় ক্ষমতায় আনার কথা বলেছেন এটি তার একান্তই ব্যক্তিগত অভিব্যক্তি কারণ এই কমিটির মেয়াদ ৩১ ডিসেম্বর ২০২০ইং তারিখ পর্যন্ত। আর কোন ইউনিটের কর্মকর্তা কোন কমিটিকে ক্ষমতায় আনতে পারে না। ক্ষমতায় আনার এখতিয়ার সম্মানিত ভোটারদের। ফরম বিক্রয়কৃত টাকা নিয়মিত ব্যাংক হিসাবে জমা এবং জাতীয় সদর দপ্তরের শেয়ার মানির টাকা নিয়মিত প্রেরণ করা হয়েছে। দীর্ঘ বছর ধরে একটি পারিবারিক সিন্ডিকেট নানা অপকৌশলে রাজবাড়ী রেড ক্রিসেন্টকে কুক্ষিগত করে প্রকৃত দূঃস্থ্য অসহায় মানুষের পরিবর্তে ত্রাণসামগ্রী ওই সিন্ডিকেটের এনজিও’র কর্মীদের দেওয়া হয় যিনি এই অভিযোগ করেছেন মোঃ শহিদুল ইসলাম আজীবন সদস্য (সনদ ক্রমিক নং-৫৩০৬৫) ও সম্ভাব্য সেক্রেটারী পদপ্রার্থী তিনি এই এনজিওর একজন কর্মী ছিলেন ১৭ বছর। সংস্থা থেকে বের হয়েই এই সংস্থার বিরুদ্ধাচারন তার হীনমন্যতাকেই প্রকাশ করে। সেই সাথে জানাচ্ছি এ ধরনের কোন প্রকার সুযোগ নেই কোন একটি প্রতিষ্ঠানের কর্মীদের বিশেষভাবে সুযোগ করে দেবার। তাই আমি এ ধরনের উদ্দেশ্য প্রণোদিত সংবাদের তীব্র নিন্দা জ্ঞাপন করছি। রেড ক্রিসেন্টের মত একটি সেবাধর্মী প্রতিষ্ঠানকে বিতর্কিত করার অপচেষ্টাকে ধিক্কার জানাই।

জীবন কুমার বিশ্বাস

ইউনিট লেভেল কর্মকর্তা

বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি

রাজবাড়ী ইউনিট।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

রাজবাড়ী রেড ক্রিসেন্ট ইউনিটে বার্ষিক সদস্যভূক্তির আবেদন ফরম বিতরণে অনিয়ম বিষয়ে প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ

প্রকাশের সময় : 05:09:56 pm, Tuesday, 15 September 2020

গত ১২ সেপ্টেম্বর ২০২০ইং তারিখ দৈনিক মাতৃকণ্ঠে প্রকাশিত রাজবাড়ী রেড ক্রিসেন্ট ইউনিটে বার্ষিক সদস্যভূক্তির আবেদন ফরম বিতরণে অনিয়মের যে অভিযোগ প্রকাশিত হয়েছে তা মিথ্যা, ভিত্তিহীন ও উদ্দেশ্য প্রণোদিত। মোঃ শহিদুল ইসলাম আজীবন সদস্য (সনদ ক্রমিক নং-৫৩০৬৫) ও সম্ভাব্য সেক্রেটারী পদ প্রার্থী যে অভিযোগ করেছেন তা ভিত্তিহীন। কারণ তিনি জানেন না বর্তমান কোভিড-১৯ করোনা ভাইরাসে বাংলাদেশসহ সারা বিশ্ব আক্রান্তসহ লক্ষ লক্ষ লোকের প্রাণহানী হচ্ছে তখন বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি জাতীয় সদর দপ্তরের সিদ্ধান্তের কারণে পরিপত্র দেরি করে পাঠিয়েছেন। এই ইউনিটের বা ইউনিট অফিসারের কোন সমস্যা নয় তিনি আরো যে অভিযোগ করেছেন তাও ভিত্তিহীন, যতক্ষণ সদস্য আবেদন ফরম চাহিদা পাওয়া গেছে ততক্ষণ সদস্য ফরম জাতীয় সদর দপ্তর থেকে এনে বিতরণ চলমান রয়েছে। তিনি নিজে একজন আজীবন সদস্য হওয়া সত্যেও কয়েকবার তার নিজের নামে এবং বেনামে শত শত সদস্য ফরম সংগ্রহ করেছেন ফরম শেষ হলে পূনরায় টাকা ডিডি করে চাহিদাপত্র দেওয়া হয়েছে বিষয়টি তিনি না জেনে অভিযোগ অথবা জেনে উদ্দেশ্য প্রনোদিত হয়ে অভিযোগ করেছেন। মোঃ শহিদুল ইসলাম আজীবন সদস্য (সনদ ক্রমিক নং-৫৩০৬৫) ও সম্ভাব্য সেক্রেটারী পদপ্রার্থী বিধায় নানাবিধ মিথ্যা অভিযোগ দিয়ে যাচ্ছেন। আর উনি যে বার বার বিদায়ী কমিটিকে পূনরায় ক্ষমতায় আনার কথা বলেছেন এটি তার একান্তই ব্যক্তিগত অভিব্যক্তি কারণ এই কমিটির মেয়াদ ৩১ ডিসেম্বর ২০২০ইং তারিখ পর্যন্ত। আর কোন ইউনিটের কর্মকর্তা কোন কমিটিকে ক্ষমতায় আনতে পারে না। ক্ষমতায় আনার এখতিয়ার সম্মানিত ভোটারদের। ফরম বিক্রয়কৃত টাকা নিয়মিত ব্যাংক হিসাবে জমা এবং জাতীয় সদর দপ্তরের শেয়ার মানির টাকা নিয়মিত প্রেরণ করা হয়েছে। দীর্ঘ বছর ধরে একটি পারিবারিক সিন্ডিকেট নানা অপকৌশলে রাজবাড়ী রেড ক্রিসেন্টকে কুক্ষিগত করে প্রকৃত দূঃস্থ্য অসহায় মানুষের পরিবর্তে ত্রাণসামগ্রী ওই সিন্ডিকেটের এনজিও’র কর্মীদের দেওয়া হয় যিনি এই অভিযোগ করেছেন মোঃ শহিদুল ইসলাম আজীবন সদস্য (সনদ ক্রমিক নং-৫৩০৬৫) ও সম্ভাব্য সেক্রেটারী পদপ্রার্থী তিনি এই এনজিওর একজন কর্মী ছিলেন ১৭ বছর। সংস্থা থেকে বের হয়েই এই সংস্থার বিরুদ্ধাচারন তার হীনমন্যতাকেই প্রকাশ করে। সেই সাথে জানাচ্ছি এ ধরনের কোন প্রকার সুযোগ নেই কোন একটি প্রতিষ্ঠানের কর্মীদের বিশেষভাবে সুযোগ করে দেবার। তাই আমি এ ধরনের উদ্দেশ্য প্রণোদিত সংবাদের তীব্র নিন্দা জ্ঞাপন করছি। রেড ক্রিসেন্টের মত একটি সেবাধর্মী প্রতিষ্ঠানকে বিতর্কিত করার অপচেষ্টাকে ধিক্কার জানাই।

জীবন কুমার বিশ্বাস

ইউনিট লেভেল কর্মকর্তা

বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি

রাজবাড়ী ইউনিট।