Dhaka ১০:১৫ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ৩ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মা-বাবার কাছে ফিরতে চায় শিহাব

সংবাদদাতা-
  • প্রকাশের সময় : ০৭:০৬:১০ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২০
  • / ১৩৬৯ জন সংবাদটি পড়েছেন

জনতার আদালত অনলাইন ॥ রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলার নারুয়া ইউনিয়নের বড় ঘিকমলা গ্রামের ওমর আলী মোল্লার বাড়িতে অবস্থান করছে শিহাব নামে নয় বছরের একটি ছেলে। ছেলেটি তার বাবা-মায়ের কাছে ফিরে যেতে চায়। তবে সে নিজের নাম ছাড়া আর কিছুই বলতে পারেনা।

ওমর আলী মোল্লা জানান, গত ৭ সেপ্টেম্বর তারিখে তার ছেলৈ আব্দুল মোল্লা তার সঙ্গীদের নিয়ে বাগেরহাটের খানজাহান আলীর মাজার পরিদর্শনে যায়। সেখানে ছেলেটিকে অসহায় অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে তার কাছে সব কিছু জানতে চায়। সে নিজের নাম ছাড়া আর কিছুই বলতে পারেনি। পরে মানবিক  বিবেচনায় শিশুটিকে সাথে করে নিয়ে আসে তার ছেলে। ওই সময় ছেলেটির পরনে ছিল নীল রংয়ের গেঞ্জি ও ট্রাউজার। তাদের বাড়িতে রেখে শিশুটিকে লালন করছেন। কিন্তু সে এখন তার বাবা মায়ের কাছে ফিরে যেতে চেয়ে কান্নাকাটি করছে। বিষয়টি তিনি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, উপজেলা সমাজসেবা অফিসারকে অবগত করেছেন। এব্যাপারে থানায় একটি জিডিও করেছেন।

বালিয়াকান্দি থানার ওসি তারেকুজ্জামান জানান, সোমবার একটি জিডি হয়েছে। এবিষয়ে সমাজসেবা কর্মকর্তা আইনগত  পদক্ষেপ নিতে পারেন।

উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা অজয় রায় জানান, এধরণের শিশুর বাবা-মা খুঁজে না পেলে সাধারণত: ফরিদপুর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে পাঠানো হয়ে থাকে। এক্ষেত্রেও তাই করা হবে।

কেউ তার সন্ধান দিতে পারলে যোগাযোগ করুন-০১৭৪০-৮৪৯৫৫৮ও ০১৩০৭১৭৯২১৪।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

মা-বাবার কাছে ফিরতে চায় শিহাব

প্রকাশের সময় : ০৭:০৬:১০ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২০

জনতার আদালত অনলাইন ॥ রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলার নারুয়া ইউনিয়নের বড় ঘিকমলা গ্রামের ওমর আলী মোল্লার বাড়িতে অবস্থান করছে শিহাব নামে নয় বছরের একটি ছেলে। ছেলেটি তার বাবা-মায়ের কাছে ফিরে যেতে চায়। তবে সে নিজের নাম ছাড়া আর কিছুই বলতে পারেনা।

ওমর আলী মোল্লা জানান, গত ৭ সেপ্টেম্বর তারিখে তার ছেলৈ আব্দুল মোল্লা তার সঙ্গীদের নিয়ে বাগেরহাটের খানজাহান আলীর মাজার পরিদর্শনে যায়। সেখানে ছেলেটিকে অসহায় অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে তার কাছে সব কিছু জানতে চায়। সে নিজের নাম ছাড়া আর কিছুই বলতে পারেনি। পরে মানবিক  বিবেচনায় শিশুটিকে সাথে করে নিয়ে আসে তার ছেলে। ওই সময় ছেলেটির পরনে ছিল নীল রংয়ের গেঞ্জি ও ট্রাউজার। তাদের বাড়িতে রেখে শিশুটিকে লালন করছেন। কিন্তু সে এখন তার বাবা মায়ের কাছে ফিরে যেতে চেয়ে কান্নাকাটি করছে। বিষয়টি তিনি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, উপজেলা সমাজসেবা অফিসারকে অবগত করেছেন। এব্যাপারে থানায় একটি জিডিও করেছেন।

বালিয়াকান্দি থানার ওসি তারেকুজ্জামান জানান, সোমবার একটি জিডি হয়েছে। এবিষয়ে সমাজসেবা কর্মকর্তা আইনগত  পদক্ষেপ নিতে পারেন।

উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা অজয় রায় জানান, এধরণের শিশুর বাবা-মা খুঁজে না পেলে সাধারণত: ফরিদপুর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে পাঠানো হয়ে থাকে। এক্ষেত্রেও তাই করা হবে।

কেউ তার সন্ধান দিতে পারলে যোগাযোগ করুন-০১৭৪০-৮৪৯৫৫৮ও ০১৩০৭১৭৯২১৪।