Dhaka 12:33 pm, Friday, 2 December 2022

ভয়াল আগস্ট”——- মোঃ শহিদুল হুদা,

সংবাদদাতা-
  • প্রকাশের সময় : 07:49:46 pm, Friday, 14 August 2020
  • / 1486 জন সংবাদটি পড়েছেন

পনর-আগস্ট তুমি স্বাধিকার,

করুণ আর্তনাদ।

পনর-আগস্ট তুমি বাঙালীর-

সুপ্ত এক কালিমা।

পনর-আগস্ট তুমি বাঙালী-

চেতনার গুপ্ত ঘাতক।

পনর-আগস্ট তুমি সমগ্র-

বিশ্বের  করুণ এক যন্ত্রণা।

পনর-আগস্ট তুমি বাঙালী-

জাতির অকল্পনিয় এক ইতিহাস।

পনর-আগস্ট তুমি যাকে নিয়ে গেছো-

না ফেরার দেশে।

সে তো সাধারণ কেউ নও।

সে তো এক অসাধারণ ঐতিহাসিক-

সংগ্রামী স্বাধীন চেতা সংগ্রামী–

মহা-নায়ক,মহা-মানব।

যার প্রেরণা যার ঐতিহাসিক-”

হৃদয় বিদির্ণ করা কথা মালা—

বাঙালী জাতিকে দিয়ে ছিলো—

স্বাধীকারের দিক নির্দেশনা।

সারা বিশ্ব সে দিন ফিরে-“-

পেয়ে ছিলো সংগ্রামের নতুন চেতনা।

যার অমৃত্য সুধা পানে—-

বাঙালী পেয়ে ছিলো মুক্তির সংগ্রামের—-

নব উল্লসিত উদ্দীপনা।

সে ভয়ে ভিতু হয়ে কিছু বাঙালী—-

নামধারী রক্তো পিপাসু নরঘাতক

বুলেটের আঘাতে করে ছিলো রক্ত পাত।

মহা-মানব জাতির স্বপ্নদ্রষ্টা তুমি—-

তাই ভুলি নাই আজও সেই ভয়াল রাত।

হে মহা-বিশ্বখ্যাত নন্দিত নেতা—

শয়নে স্বপ্নে সারা বিশ্বোই মনে রেখেছে—

তোমার অকুতভয় সংগ্রামী সব—-

বলে যাওয়া বাংলামায়ের ভালবাসার কথা।

বাঙালী জাতির পিতা তুমি থাকবে চিরকাল

যত দিন বহমান থাকবে পদ্মা,মেঘনা,যমুনার,

কলতান।

দৃশ্যমান না থাকলেও তুমি বাঙালী মনে—-

চিরভাস্বর তুমি তুমি চির অম্লান—

তুমি ছিলে,তুমি আছো,তুমি থাকবে—-

বিশ্বের সব ইতিহাসে।

তুমি অমৃতসুধা বাঙালী তথা—

সারা বিশ্ব মানবতার কাছে।

 

লেখক: অবসরপ্রাপ্ত ব্যবস্থাপক

রূপালী ব্যাংক লিমিটেড

রাজবাড়ী শাখা

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

ভয়াল আগস্ট”——- মোঃ শহিদুল হুদা,

প্রকাশের সময় : 07:49:46 pm, Friday, 14 August 2020

পনর-আগস্ট তুমি স্বাধিকার,

করুণ আর্তনাদ।

পনর-আগস্ট তুমি বাঙালীর-

সুপ্ত এক কালিমা।

পনর-আগস্ট তুমি বাঙালী-

চেতনার গুপ্ত ঘাতক।

পনর-আগস্ট তুমি সমগ্র-

বিশ্বের  করুণ এক যন্ত্রণা।

পনর-আগস্ট তুমি বাঙালী-

জাতির অকল্পনিয় এক ইতিহাস।

পনর-আগস্ট তুমি যাকে নিয়ে গেছো-

না ফেরার দেশে।

সে তো সাধারণ কেউ নও।

সে তো এক অসাধারণ ঐতিহাসিক-

সংগ্রামী স্বাধীন চেতা সংগ্রামী–

মহা-নায়ক,মহা-মানব।

যার প্রেরণা যার ঐতিহাসিক-”

হৃদয় বিদির্ণ করা কথা মালা—

বাঙালী জাতিকে দিয়ে ছিলো—

স্বাধীকারের দিক নির্দেশনা।

সারা বিশ্ব সে দিন ফিরে-“-

পেয়ে ছিলো সংগ্রামের নতুন চেতনা।

যার অমৃত্য সুধা পানে—-

বাঙালী পেয়ে ছিলো মুক্তির সংগ্রামের—-

নব উল্লসিত উদ্দীপনা।

সে ভয়ে ভিতু হয়ে কিছু বাঙালী—-

নামধারী রক্তো পিপাসু নরঘাতক

বুলেটের আঘাতে করে ছিলো রক্ত পাত।

মহা-মানব জাতির স্বপ্নদ্রষ্টা তুমি—-

তাই ভুলি নাই আজও সেই ভয়াল রাত।

হে মহা-বিশ্বখ্যাত নন্দিত নেতা—

শয়নে স্বপ্নে সারা বিশ্বোই মনে রেখেছে—

তোমার অকুতভয় সংগ্রামী সব—-

বলে যাওয়া বাংলামায়ের ভালবাসার কথা।

বাঙালী জাতির পিতা তুমি থাকবে চিরকাল

যত দিন বহমান থাকবে পদ্মা,মেঘনা,যমুনার,

কলতান।

দৃশ্যমান না থাকলেও তুমি বাঙালী মনে—-

চিরভাস্বর তুমি তুমি চির অম্লান—

তুমি ছিলে,তুমি আছো,তুমি থাকবে—-

বিশ্বের সব ইতিহাসে।

তুমি অমৃতসুধা বাঙালী তথা—

সারা বিশ্ব মানবতার কাছে।

 

লেখক: অবসরপ্রাপ্ত ব্যবস্থাপক

রূপালী ব্যাংক লিমিটেড

রাজবাড়ী শাখা