Dhaka ১২:১৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০২৪, ৬ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রাজবাড়ীর বরাটে পুলিশ ক্যাম্প উদ্বোধন

সংবাদদাতা-
  • প্রকাশের সময় : ০৬:৫৮:০৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১১ অগাস্ট ২০২০
  • / ১৬৯৯ জন সংবাদটি পড়েছেন

জনতার আদালত অনলাইন ॥ দুর্বৃত্তদের হাত থেকে পদ্মা নদী তীরবর্তী সাধারণ মানুষের জানমাল রক্ষার্থে রাজবাড়ী সদর উপজেলায় বরাট ইউনিয়নের অন্তারমোড় এলাকায় রাজবাড়ী জেলা পুলিশের উদ্যোগে একটি অস্থায়ী পুলিশ ক্যাম্প স্থাপন করা হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে রাজবাড়ীর পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান পিপিএম প্রধান অতিথি হিসেবে আনুষ্ঠানিকভাবে এ ক্যাম্পের উদ্বোধন করেন। এসময় রাজবাড়ী সদর থানার ওসি স্বপন কুমার মজুমদার, বরাট ইউপি চেয়ারম্যান মনিরুজ্জামান সালাম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

বরাট ইউনিয়নের আকিরননেছা ইসলামিয়া  আলিম মাদ্রাসা প্রাঙ্গনে অবস্থিত পুলিশ ক্যাম্পে একজন এসআই, দুইজন এএসআইসহ ১৬ জন পুলিশ সদস্য দায়িত্ব পালন করবেন। ক্যাম্পের ইনচার্জ করা হয়েছে রাজবাড়ী সদর থানার এসআই সনাতন মন্ডলকে।

রাজবাড়ীর পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান পিপিএম জানান, জায়গাটি ঝুঁকিপূর্ণ বিবেচনায় সেখানে পুলিশ ফাঁড়ি করা প্রয়োজন। কিন্তু সেটা করতে গেলে স্থানীয় সংসদ সদস্যের ডিও লেটার নিয়ে মন্ত্রণালয় থেকে অনুমোদন নিতে হবে। এ প্রক্রিয়াটা অনেক সময় সাপেক্ষ। একারণে জেলা পুলিশ উদ্যোগি হয়ে আপাতত: অস্থায়ী পুলিশ ক্যাম্প করেছে।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

রাজবাড়ীর বরাটে পুলিশ ক্যাম্প উদ্বোধন

প্রকাশের সময় : ০৬:৫৮:০৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১১ অগাস্ট ২০২০

জনতার আদালত অনলাইন ॥ দুর্বৃত্তদের হাত থেকে পদ্মা নদী তীরবর্তী সাধারণ মানুষের জানমাল রক্ষার্থে রাজবাড়ী সদর উপজেলায় বরাট ইউনিয়নের অন্তারমোড় এলাকায় রাজবাড়ী জেলা পুলিশের উদ্যোগে একটি অস্থায়ী পুলিশ ক্যাম্প স্থাপন করা হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে রাজবাড়ীর পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান পিপিএম প্রধান অতিথি হিসেবে আনুষ্ঠানিকভাবে এ ক্যাম্পের উদ্বোধন করেন। এসময় রাজবাড়ী সদর থানার ওসি স্বপন কুমার মজুমদার, বরাট ইউপি চেয়ারম্যান মনিরুজ্জামান সালাম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

বরাট ইউনিয়নের আকিরননেছা ইসলামিয়া  আলিম মাদ্রাসা প্রাঙ্গনে অবস্থিত পুলিশ ক্যাম্পে একজন এসআই, দুইজন এএসআইসহ ১৬ জন পুলিশ সদস্য দায়িত্ব পালন করবেন। ক্যাম্পের ইনচার্জ করা হয়েছে রাজবাড়ী সদর থানার এসআই সনাতন মন্ডলকে।

রাজবাড়ীর পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান পিপিএম জানান, জায়গাটি ঝুঁকিপূর্ণ বিবেচনায় সেখানে পুলিশ ফাঁড়ি করা প্রয়োজন। কিন্তু সেটা করতে গেলে স্থানীয় সংসদ সদস্যের ডিও লেটার নিয়ে মন্ত্রণালয় থেকে অনুমোদন নিতে হবে। এ প্রক্রিয়াটা অনেক সময় সাপেক্ষ। একারণে জেলা পুলিশ উদ্যোগি হয়ে আপাতত: অস্থায়ী পুলিশ ক্যাম্প করেছে।