Dhaka ১২:২৩ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১২ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

গোয়ালন্দে পুলিশের হস্তক্ষেপে বাল্যবিয়ে বন্ধ

সংবাদদাতা-
  • প্রকাশের সময় : ০৯:২২:৫০ অপরাহ্ন, শনিবার, ১১ জুলাই ২০২০
  • / ১৩১০ জন সংবাদটি পড়েছেন

 

জনতার আদালত অনলাইন ॥ গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়ায় শুক্রবার রাতে থানা পুলিশের হস্তক্ষেপে তাহমিনা নামের এক কিশোরীর বাল্যবিয়ে বন্ধ হয়েছে। দৌলতদিয়া ইউনিয়নের গফুর মন্ডল পাড়া গ্রামের আ. কুদ্দুস শেখের মেয়ে।

গোয়ালন্দ ঘাট থানার এসআই শামীম জানান, তাহমিনা নামের ওই কিশোরীর বাল্যবিয়ে ফরিদপুর সদর উপজেলার স¤্রাট নগর এলাকার আ. সামাদ খানের ছেলে মো. সেলিমের সাথে আয়োজন করা হয়। বিষয়টি গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পেরে পুলিশ ফোর্সসহ তিনি শুক্রবার রাতে কনের বাড়িতে উপস্থিত হন। তাদের উপস্থিতির বিষয়টি টের পেয়ে বিয়ে বাড়ি থেকে বর পালিয়ে যায়। এসময় গোয়ালন্দ ঘাট থানার ওসি আশিকুর রহমানের নির্দেশে ওই কিশোরীর বাল্যবিয়ে বন্ধ ও তার ১৮ বছর না হওয়া পর্যন্ত বিয়ে না দেয়ার মুচলেকা দেন অভিভাবকরা।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

গোয়ালন্দে পুলিশের হস্তক্ষেপে বাল্যবিয়ে বন্ধ

প্রকাশের সময় : ০৯:২২:৫০ অপরাহ্ন, শনিবার, ১১ জুলাই ২০২০

 

জনতার আদালত অনলাইন ॥ গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়ায় শুক্রবার রাতে থানা পুলিশের হস্তক্ষেপে তাহমিনা নামের এক কিশোরীর বাল্যবিয়ে বন্ধ হয়েছে। দৌলতদিয়া ইউনিয়নের গফুর মন্ডল পাড়া গ্রামের আ. কুদ্দুস শেখের মেয়ে।

গোয়ালন্দ ঘাট থানার এসআই শামীম জানান, তাহমিনা নামের ওই কিশোরীর বাল্যবিয়ে ফরিদপুর সদর উপজেলার স¤্রাট নগর এলাকার আ. সামাদ খানের ছেলে মো. সেলিমের সাথে আয়োজন করা হয়। বিষয়টি গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পেরে পুলিশ ফোর্সসহ তিনি শুক্রবার রাতে কনের বাড়িতে উপস্থিত হন। তাদের উপস্থিতির বিষয়টি টের পেয়ে বিয়ে বাড়ি থেকে বর পালিয়ে যায়। এসময় গোয়ালন্দ ঘাট থানার ওসি আশিকুর রহমানের নির্দেশে ওই কিশোরীর বাল্যবিয়ে বন্ধ ও তার ১৮ বছর না হওয়া পর্যন্ত বিয়ে না দেয়ার মুচলেকা দেন অভিভাবকরা।