Dhaka ১২:১৯ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১২ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

বালিয়াকান্দিতে এনজিও প্রতিনিধিদের সাথে ইউএনওর বৈঠক

সংবাদদাতা-
  • প্রকাশের সময় : ০৭:২৭:২২ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ জুন ২০২০
  • / ১৩০৬ জন সংবাদটি পড়েছেন

জনতার আদালত অনলাইন ঃ করোনা ভাইরাসের প্রাদুভাবের কারণে সাধারন মানুষ কর্মহীন হয়ে পড়েছে। স্ব-স্ব জায়গা থেকে তাদেরকে সহযোগিতা করতে রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলা নির্বাহী অফিসার একেএম হেদায়েতুল ইসলাম এনজিও প্রতিনিধিদের সাথে বৈঠক করেছেন।

মঙ্গলবার বিকালে উপজেলা পরিষদ অডিটরিয়ামে উপজেলা নির্বাহী অফিসার একেএম হেদায়েতুল ইসলামের সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন, সহকারী কমিশনার (ভুমি) আবু দারদা, উপজেলা এনজিও সমন্বয়কারী ও এ্যাসেডের নির্বাহী পরিচালক শাহজাহান সিদ্দিকসহ  ব্র্যাক, আশা, সমন্বিত প্রমিলা মুক্তি প্রচেষ্টা, আদদ্বীন, টিএমএসএস, ব্যুারো বাংলাদেশ, শক্তি, দিশা, সিএসএস, পল্লী প্রগতিসহ বিভিন্ন এনজিও প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

আলোচনায় সীমিত পরিসরে স্বাস্থ্য বিধি মেনে ঋন সংগ্রহ করতে পারবে, যদি কেহ সেচ্ছায় প্রদান করেন। তবে জোড়পুর্বক আদায় করা যাবে না। উপজেলার ৬৩টি ওয়ার্ডে প্রতিটিতে ৪৫জন কৃষক বাছাই করতে হবে। তাদেরকে সরকারী ভাবে সবজি বীজ প্রদান করা হবে। এসময় প্রতিটি এনজিও প্রতিনিধিদের নিকট ব্যাপক প্রচারের জন্য মাক্স ব্যবহার বিষয়ক সতর্কীকরণ স্টীকার প্রদান করা হয়।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

বালিয়াকান্দিতে এনজিও প্রতিনিধিদের সাথে ইউএনওর বৈঠক

প্রকাশের সময় : ০৭:২৭:২২ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ জুন ২০২০

জনতার আদালত অনলাইন ঃ করোনা ভাইরাসের প্রাদুভাবের কারণে সাধারন মানুষ কর্মহীন হয়ে পড়েছে। স্ব-স্ব জায়গা থেকে তাদেরকে সহযোগিতা করতে রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলা নির্বাহী অফিসার একেএম হেদায়েতুল ইসলাম এনজিও প্রতিনিধিদের সাথে বৈঠক করেছেন।

মঙ্গলবার বিকালে উপজেলা পরিষদ অডিটরিয়ামে উপজেলা নির্বাহী অফিসার একেএম হেদায়েতুল ইসলামের সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন, সহকারী কমিশনার (ভুমি) আবু দারদা, উপজেলা এনজিও সমন্বয়কারী ও এ্যাসেডের নির্বাহী পরিচালক শাহজাহান সিদ্দিকসহ  ব্র্যাক, আশা, সমন্বিত প্রমিলা মুক্তি প্রচেষ্টা, আদদ্বীন, টিএমএসএস, ব্যুারো বাংলাদেশ, শক্তি, দিশা, সিএসএস, পল্লী প্রগতিসহ বিভিন্ন এনজিও প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

আলোচনায় সীমিত পরিসরে স্বাস্থ্য বিধি মেনে ঋন সংগ্রহ করতে পারবে, যদি কেহ সেচ্ছায় প্রদান করেন। তবে জোড়পুর্বক আদায় করা যাবে না। উপজেলার ৬৩টি ওয়ার্ডে প্রতিটিতে ৪৫জন কৃষক বাছাই করতে হবে। তাদেরকে সরকারী ভাবে সবজি বীজ প্রদান করা হবে। এসময় প্রতিটি এনজিও প্রতিনিধিদের নিকট ব্যাপক প্রচারের জন্য মাক্স ব্যবহার বিষয়ক সতর্কীকরণ স্টীকার প্রদান করা হয়।