Dhaka ০৭:৪৬ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ৫ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

উদ্ধার হওয়া ২০টি মোবাইল সেট মালিকদের হস্তান্তর করেছে রাজবাড়ী জেলা পুলিশ

সংবাদদাতা-
  • প্রকাশের সময় : ০৮:১৯:৩৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১১ জুন ২০২০
  • / ১৪৫১ জন সংবাদটি পড়েছেন

 

জনতার আদালত অনলাইন ॥ তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে প্রকৃত মালিক চিহ্নিত করে উদ্ধার হওয়া ২০টি দামী মোবাইল সেট হস্তান্তর করেছে রাজবাড়ী জেলা পুলিশ। বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজবাড়ী পুলিশ সুপারের কার্যালয় থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে হস্তান্তর করা হয়। এসময় রাজবাড়ীর পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান পিপিএম, রাজবাড়ীর অতিরিক্ত  পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) ফজলুল করিম, রাজবাড়ী সদর থানার ওসি স্বপন কুমার মজুমদার, রাজবাড়ী ডিবি ওসি  ওমর শরীফ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

রাজবাড়ী ডিবি ওসি  ওমর শরীফ জানান, গত ২৫ ফেব্রুয়ারি তারিখে রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া লঞ্চ এলাকা থেকে একটি কার্টুনের মধ্য থেকে ২০টি দামী মোবাইল সেট উদ্ধার করা হয়। তবে ওই সময় কাউকে আটক করা যায়নি। মোবাইলগুলো বিভিন্ন জায়গা থেকে চুরি করে ঢাকায় নিয়ে বিক্রি করার উদ্দেশ্যে বহন করছিল কেউ। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে সে পালিয়ে যায়। পরে দীর্ঘ সময় ধরে তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে এবং লক খুলে প্রকৃত মালিক শনাক্ত করা হয়। মোবাইল সেটের প্রকৃত মালিকদের বাড়ি খুলনা, যশোর, ঝিনাইদহ, পিরোজপুর, বাগেরহাটসহ বিভিন্ন জেলায়। তাদের খবর পাঠিয়ে মোবাইল সেটগুলো হস্তান্তর করা হয়েছে।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

উদ্ধার হওয়া ২০টি মোবাইল সেট মালিকদের হস্তান্তর করেছে রাজবাড়ী জেলা পুলিশ

প্রকাশের সময় : ০৮:১৯:৩৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১১ জুন ২০২০

 

জনতার আদালত অনলাইন ॥ তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে প্রকৃত মালিক চিহ্নিত করে উদ্ধার হওয়া ২০টি দামী মোবাইল সেট হস্তান্তর করেছে রাজবাড়ী জেলা পুলিশ। বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজবাড়ী পুলিশ সুপারের কার্যালয় থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে হস্তান্তর করা হয়। এসময় রাজবাড়ীর পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান পিপিএম, রাজবাড়ীর অতিরিক্ত  পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) ফজলুল করিম, রাজবাড়ী সদর থানার ওসি স্বপন কুমার মজুমদার, রাজবাড়ী ডিবি ওসি  ওমর শরীফ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

রাজবাড়ী ডিবি ওসি  ওমর শরীফ জানান, গত ২৫ ফেব্রুয়ারি তারিখে রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া লঞ্চ এলাকা থেকে একটি কার্টুনের মধ্য থেকে ২০টি দামী মোবাইল সেট উদ্ধার করা হয়। তবে ওই সময় কাউকে আটক করা যায়নি। মোবাইলগুলো বিভিন্ন জায়গা থেকে চুরি করে ঢাকায় নিয়ে বিক্রি করার উদ্দেশ্যে বহন করছিল কেউ। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে সে পালিয়ে যায়। পরে দীর্ঘ সময় ধরে তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে এবং লক খুলে প্রকৃত মালিক শনাক্ত করা হয়। মোবাইল সেটের প্রকৃত মালিকদের বাড়ি খুলনা, যশোর, ঝিনাইদহ, পিরোজপুর, বাগেরহাটসহ বিভিন্ন জেলায়। তাদের খবর পাঠিয়ে মোবাইল সেটগুলো হস্তান্তর করা হয়েছে।