Dhaka ০৯:৩৯ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ৩ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বালিয়াকান্দিতে পিতা-পুত্রকে কুপিয়ে জখম

সংবাদদাতা-
  • প্রকাশের সময় : ০৬:৩৭:৪৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৪ জুন ২০২০
  • / ১৪৫৯ জন সংবাদটি পড়েছেন

জনতার আদালত অনলাইন ঃ রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দিতে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে পিতা-পুত্রকে কুপিয়ে জখম করেছে।

বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে উপজেলার নবাবপুর ইউনিয়নের ইন্দুরদী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

মারাত্বক আহত অবস্থায় উপজেলার নবাবপুর ইউনিয়নের ইন্দুরদী গ্রামের আকবর আলী শেখের ছেলে ইউসুফ শেখ (৪০) বালিয়াকান্দি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আকবর আলী শেখ (৭০) কে স্থানীয় ভাবে চিকিৎসা গ্রহন করেছে।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ইউসুফ শেখ বলেন, জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে হাবীব, নিজাম, তুরাপ, সুফিয়া, জিয়াসমিন, রিনা বেগম, তুলশী বেগম, জাফর, সোরপসহ তাদের লোকজন বাড়ীতে প্রবেশ করে আমার পিতা আকবর আলী শেখকে বেধড়ক ভাবে মারধোর করতে থাকে। আমি এগিয়ে গেলে তারা মাথায়, বুকের উপর, কানে কুপিয়ে জখম করে। আশপাশের লোকজন এগিয়ে এসে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে বালিয়াকান্দি হাসপাতালে ভর্তি করে। তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করা হবে বলে চিকিৎসক জানিয়েছেন।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

বালিয়াকান্দিতে পিতা-পুত্রকে কুপিয়ে জখম

প্রকাশের সময় : ০৬:৩৭:৪৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৪ জুন ২০২০

জনতার আদালত অনলাইন ঃ রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দিতে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে পিতা-পুত্রকে কুপিয়ে জখম করেছে।

বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে উপজেলার নবাবপুর ইউনিয়নের ইন্দুরদী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

মারাত্বক আহত অবস্থায় উপজেলার নবাবপুর ইউনিয়নের ইন্দুরদী গ্রামের আকবর আলী শেখের ছেলে ইউসুফ শেখ (৪০) বালিয়াকান্দি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আকবর আলী শেখ (৭০) কে স্থানীয় ভাবে চিকিৎসা গ্রহন করেছে।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ইউসুফ শেখ বলেন, জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে হাবীব, নিজাম, তুরাপ, সুফিয়া, জিয়াসমিন, রিনা বেগম, তুলশী বেগম, জাফর, সোরপসহ তাদের লোকজন বাড়ীতে প্রবেশ করে আমার পিতা আকবর আলী শেখকে বেধড়ক ভাবে মারধোর করতে থাকে। আমি এগিয়ে গেলে তারা মাথায়, বুকের উপর, কানে কুপিয়ে জখম করে। আশপাশের লোকজন এগিয়ে এসে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে বালিয়াকান্দি হাসপাতালে ভর্তি করে। তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করা হবে বলে চিকিৎসক জানিয়েছেন।