Dhaka 3:16 pm, Friday, 3 February 2023

গোয়ালন্দ টার্মিনালে অজ্ঞাত ব্যক্তির মৃতদেহ

সংবাদদাতা-
  • প্রকাশের সময় : 06:54:22 pm, Sunday, 26 April 2020
  • / 1309 জন সংবাদটি পড়েছেন

জনতার আদালত অনলাইন ॥ গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়া টার্মিনাল এলাকা থেকে রোববার ৫০ বছর বয়সী এক ব্যক্তির মৃতদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।
থানা পুলিশ ও স্থানীয় জানান, রোববার সকালে দৌলতদিয়া টার্মিনাল এলাকায় সড়কের পাশে মৃত ব্যাক্তির মৃতদেহ পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রা। বর্তমান করোনা ভাইরাস পরিস্থিতি বিবেচনায় কেউ ওই লাশের কাছে যাওয়ার সাহস পায়নি। এসময় খবর দেয়া হয় থানা পুলিশকে। পরে বেলা ১১টার দিকে পুলিশ মৃতদেহটি উদ্ধার করে।
গোয়ালন্দ ঘাট থানার ওসি (তদন্ত) আব্দুল্লাহ আল তায়াবীর জানান, মৃহদেহের শরীরে কোন প্রকার আঘাতের চি‎হ্ন নেই। প্রাথমিক ভাবে ধারনা করা হচ্ছে লোকটি মানুষিক প্রতিবন্ধি ছিল। তবে ময়না তদন্তের পর তার মৃত্যু সঠিক কারণ জানা যাবে।
গোয়ালন্দ উপজেলা নির্বাহী অফিসার রুবায়েত হায়াত শিপলু জানান, মৃত ব্যাক্তিটি করোনা ভাইরাস সংক্রমিত ছিল কিনা তা জানার জন্য তার শরীরের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। মৃতব্যাক্তির কোন স্বজন পাওয়া না গেলে আঞ্জুমান মফিদুল ইসলামের মাধ্যমে লাশ দাফনের ব্যবস্থা করা হবে।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

গোয়ালন্দ টার্মিনালে অজ্ঞাত ব্যক্তির মৃতদেহ

প্রকাশের সময় : 06:54:22 pm, Sunday, 26 April 2020

জনতার আদালত অনলাইন ॥ গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়া টার্মিনাল এলাকা থেকে রোববার ৫০ বছর বয়সী এক ব্যক্তির মৃতদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।
থানা পুলিশ ও স্থানীয় জানান, রোববার সকালে দৌলতদিয়া টার্মিনাল এলাকায় সড়কের পাশে মৃত ব্যাক্তির মৃতদেহ পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রা। বর্তমান করোনা ভাইরাস পরিস্থিতি বিবেচনায় কেউ ওই লাশের কাছে যাওয়ার সাহস পায়নি। এসময় খবর দেয়া হয় থানা পুলিশকে। পরে বেলা ১১টার দিকে পুলিশ মৃতদেহটি উদ্ধার করে।
গোয়ালন্দ ঘাট থানার ওসি (তদন্ত) আব্দুল্লাহ আল তায়াবীর জানান, মৃহদেহের শরীরে কোন প্রকার আঘাতের চি‎হ্ন নেই। প্রাথমিক ভাবে ধারনা করা হচ্ছে লোকটি মানুষিক প্রতিবন্ধি ছিল। তবে ময়না তদন্তের পর তার মৃত্যু সঠিক কারণ জানা যাবে।
গোয়ালন্দ উপজেলা নির্বাহী অফিসার রুবায়েত হায়াত শিপলু জানান, মৃত ব্যাক্তিটি করোনা ভাইরাস সংক্রমিত ছিল কিনা তা জানার জন্য তার শরীরের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। মৃতব্যাক্তির কোন স্বজন পাওয়া না গেলে আঞ্জুমান মফিদুল ইসলামের মাধ্যমে লাশ দাফনের ব্যবস্থা করা হবে।