Dhaka ০৮:২৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ৫ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

করোনায় আক্রান্ত মায়ের জন্য সবার কাছে দোয়া চাইলেন চৈতি

সংবাদদাতা-
  • প্রকাশের সময় : ০৮:১২:৫১ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২০
  • / ১৬২৮ জন সংবাদটি পড়েছেন

জনতার আদালত অনলাইন ॥ রাজবাড়ী-১ আসনের সংসদ সদস্য সাবেক শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী কাজী কেরামত আলীর স্ত্রী রেবেকা সুলতানা সাজু করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। বর্তমানে তিনি ঢাকার কুর্মিটোলা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। মায়ের জন্য সবার কাছে দোয়া চেয়েছেন কানিজ ফাতিমা চৈতি। সাংসদ কাজী কেরামত আলী রয়েছেন তার শয্যাপাশেই।

চৈতি বলেন, গত ১৪ এপ্রিল করোনায় আক্রান্ত হয়ে ঢাকার কুর্মিটোলা হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন আমার মা। তিনি ধীরে ধীরে সুস্থ হয়ে উঠছেন। হাসপাতালে মায়ের পাশে রয়েছেন আমার বাবা।
তিনি জানান, চলতি মাসের প্রথম সপ্তাহে সুস্থ অবস্থায় মাকে ঢাকার বাসায় রেখে আসেন। করোনার প্রভাবে কর্মহীন হয়ে পড়া অসহায় মানুষকে সহযোগিতা করতে তিনি এবং তার বাবা রাজবাড়ীতে এসে রাজবাড়ী সদর ও গোয়ালন্দ উপজেলার প্রায় ১৫ হাজার পরিবারের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করেন। মায়ের অসুস্থতার খবর পেয়ে গত সপ্তাহে ঢাকার বাসায় ফিরে মাকে ঢাকার কুর্মিটোলা হাসপাতালে নিয়ে পরীক্ষা করালে করোনা পজিটিভ ধরা পরে। তবে আমার এবং বাবার রিপোর্ট নেগেটিভ আসে। গত কয়েকদিনে মা ধীরে ধীরে সুস্থ হয়ে উঠছেন। তিনি তার মায়ের জন্য সবার কাছে দোয়া প্রার্থনা করেন।
দৈনিক জনতার আদালত পত্রিকার সম্পাদক নুরে আলম সিদ্দিকী হক করোনা আক্রান্ত এমপির সহধর্মিনীর আশু রোগমুক্তি কামনা করেছেন।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

করোনায় আক্রান্ত মায়ের জন্য সবার কাছে দোয়া চাইলেন চৈতি

প্রকাশের সময় : ০৮:১২:৫১ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২০

জনতার আদালত অনলাইন ॥ রাজবাড়ী-১ আসনের সংসদ সদস্য সাবেক শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী কাজী কেরামত আলীর স্ত্রী রেবেকা সুলতানা সাজু করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। বর্তমানে তিনি ঢাকার কুর্মিটোলা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। মায়ের জন্য সবার কাছে দোয়া চেয়েছেন কানিজ ফাতিমা চৈতি। সাংসদ কাজী কেরামত আলী রয়েছেন তার শয্যাপাশেই।

চৈতি বলেন, গত ১৪ এপ্রিল করোনায় আক্রান্ত হয়ে ঢাকার কুর্মিটোলা হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন আমার মা। তিনি ধীরে ধীরে সুস্থ হয়ে উঠছেন। হাসপাতালে মায়ের পাশে রয়েছেন আমার বাবা।
তিনি জানান, চলতি মাসের প্রথম সপ্তাহে সুস্থ অবস্থায় মাকে ঢাকার বাসায় রেখে আসেন। করোনার প্রভাবে কর্মহীন হয়ে পড়া অসহায় মানুষকে সহযোগিতা করতে তিনি এবং তার বাবা রাজবাড়ীতে এসে রাজবাড়ী সদর ও গোয়ালন্দ উপজেলার প্রায় ১৫ হাজার পরিবারের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করেন। মায়ের অসুস্থতার খবর পেয়ে গত সপ্তাহে ঢাকার বাসায় ফিরে মাকে ঢাকার কুর্মিটোলা হাসপাতালে নিয়ে পরীক্ষা করালে করোনা পজিটিভ ধরা পরে। তবে আমার এবং বাবার রিপোর্ট নেগেটিভ আসে। গত কয়েকদিনে মা ধীরে ধীরে সুস্থ হয়ে উঠছেন। তিনি তার মায়ের জন্য সবার কাছে দোয়া প্রার্থনা করেন।
দৈনিক জনতার আদালত পত্রিকার সম্পাদক নুরে আলম সিদ্দিকী হক করোনা আক্রান্ত এমপির সহধর্মিনীর আশু রোগমুক্তি কামনা করেছেন।