Dhaka ১২:২১ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১২ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

গোয়ালন্দে ভাতিজার হাতে চাচা খুন

সংবাদদাতা-
  • প্রকাশের সময় : ০৯:১১:১৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০২০
  • / ১৪২৭ জন সংবাদটি পড়েছেন

জনতার আদালত অনলাইন ॥ রাজবাড়ীর গোয়ালন্দে ভাতিজা দেলোয়ার মোল্লার লাঠির আঘাতে চাচা শুকুর আলী মোল্লা (৬০) নিহত হয়েছে। রোববার সকাল ১০টার দিকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়।
নিহত শুকুর আলী মোল্লা উপজেলার উজানচর ইউনিয়নের নবুওসিমদ্দিন পাড়া গ্রামের মৃত গহর আলী মোল্লার ছেলে। ঘাতক দেলোয়ার মোল্লা নিহতের বড় ভাইয়ের ছেলে।
পুলিশ ও নিহত পরিবারের সদস্যরা জানান, বাড়ির সামনের জমি নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে দুই পরিবারের মধ্যে বিরোধ চলে আসছিল। গত শনিবার সকালে নিহত শুকুর আলী মোল্লার একটি দোকান ভাতিজা দেলোয়ার মোল্লা ভেঙে দেয়। এসময় শুকুর আলী মোল্লা বাঁধা দিতে গেলে তাকে লাঠি দিয়ে এলোপাথালি আঘাত করে ভাতিজা দেলোয়ার।
এলাকাবাসী আহত শুকুর আলী মোল্লাকে উদ্ধার করে গোয়ালন্দ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। সেখানে তার অবস্থার অবনতি হলে চিকিৎসক তাকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করে। রোববার সকাল ১০টার দিকে তিনি চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।
গোয়ালন্দ ঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আশিকুর রহমান জানান, এ ঘটনায় রিনা বেগম (৩৫) নামের এক নারীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে। তিনি খলিলুর রহমান মোল্লার স্ত্রী। এ হত্যার ঘটনায় এখনো পর্যন্ত থানায় কেউ মামলা দায়ের করেনি। মামলা দায়ের হলে দায়ীদের গ্রেপ্তার করা হবে।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

গোয়ালন্দে ভাতিজার হাতে চাচা খুন

প্রকাশের সময় : ০৯:১১:১৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০২০

জনতার আদালত অনলাইন ॥ রাজবাড়ীর গোয়ালন্দে ভাতিজা দেলোয়ার মোল্লার লাঠির আঘাতে চাচা শুকুর আলী মোল্লা (৬০) নিহত হয়েছে। রোববার সকাল ১০টার দিকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়।
নিহত শুকুর আলী মোল্লা উপজেলার উজানচর ইউনিয়নের নবুওসিমদ্দিন পাড়া গ্রামের মৃত গহর আলী মোল্লার ছেলে। ঘাতক দেলোয়ার মোল্লা নিহতের বড় ভাইয়ের ছেলে।
পুলিশ ও নিহত পরিবারের সদস্যরা জানান, বাড়ির সামনের জমি নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে দুই পরিবারের মধ্যে বিরোধ চলে আসছিল। গত শনিবার সকালে নিহত শুকুর আলী মোল্লার একটি দোকান ভাতিজা দেলোয়ার মোল্লা ভেঙে দেয়। এসময় শুকুর আলী মোল্লা বাঁধা দিতে গেলে তাকে লাঠি দিয়ে এলোপাথালি আঘাত করে ভাতিজা দেলোয়ার।
এলাকাবাসী আহত শুকুর আলী মোল্লাকে উদ্ধার করে গোয়ালন্দ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। সেখানে তার অবস্থার অবনতি হলে চিকিৎসক তাকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করে। রোববার সকাল ১০টার দিকে তিনি চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।
গোয়ালন্দ ঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আশিকুর রহমান জানান, এ ঘটনায় রিনা বেগম (৩৫) নামের এক নারীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে। তিনি খলিলুর রহমান মোল্লার স্ত্রী। এ হত্যার ঘটনায় এখনো পর্যন্ত থানায় কেউ মামলা দায়ের করেনি। মামলা দায়ের হলে দায়ীদের গ্রেপ্তার করা হবে।