Dhaka ১০:০৯ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৬ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

সনাকের উদ্যোগে স্বাস্থ্যসেবার মানোন্নয়ন বিষয়ক মতবিনিময় সভা

সংবাদদাতা-
  • প্রকাশের সময় : ০৯:২৫:৪৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২০
  • / ১৪৩৮ জন সংবাদটি পড়েছেন

জনতার আদালত অনলাইন ॥ রাজবাড়ী আধুনিকৃত সদর হাসপাতালে স্বাস্থ্যসেবার মানোন্নয়ন এবং সার্বিক উন্নয়নে কার্যকর পদক্ষেপ নেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিলেন রাজবাড়ী সদর হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. দীপক কুমার বিশ্বাস। সনাক সহ-সভাপতিজনাব প্রফেসর মোঃ নুরুজ্জামানের সভাপতিত্বে রাজবাড়ী সদর হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সাথে সনাক রাজবাড়ী’র মতবিনিময় মঙ্গলবার সদর হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়কের কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়। প্রধান অতিথি ছিলেন তত্বাবধায়ক ডা. দীপক কুমার বিশ্বাস। বিশেষ অথিতি ছিলেন আরএমও ডা.শাহনিমানার্গিস।
হাসপাতালেরস্বাস্থ্যসেবার মানোন্নয়নে স্বাগত বক্তব্য ও সভারউদ্দেশ্য বর্ণনা, বিগতসভারকার্যবিররণী উপস্থাপন ও গৃহিতসিদ্ধান্ত সমূহেরঅগ্রগতিপর্যালোচনা, অভিযোগনিষ্পত্তিরকমিটিগঠন, গাইডলাইন ও নির্দেশনাপ্রদান, এম.আরদেরপরিদর্শন/সাক্ষাৎকারেরসময়সূচী, বিভিন্নঅনিয়মেরবিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের তথ্য প্রকাশ, রশিদ ছাড়াটাকা অতিরিক্ত টাকাআদায় (বার্থ সার্টিফিকেট, বেড, কেবিন, ড্রেসিং, ইনজেকশনপুশ ও অন্যান্য), জনবলনিয়োগ, জেন্ডারবিষয়কআলোচনা (নারী ও পুরুষেরআলাদা টেকনিসিয়ান ও চিকিৎসক, নারী ও পুরুষবান্ধবঅবকাঠামো ও নিরাপত্তা) সহবিবিধবিষয়েআলোচনা ও সিদ্ধান্তগ্রহণকরা হয়। মুক্ত আলোচনায় সভার প্রধান অতিথি হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডাঃ দীপক কুমার বিশ্বাস বলেন, রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে চিকিৎসক ও জনবলের সংকট রয়েছে। সকল বিভাগে ৪২ জন ডাক্তারের মধ্যে বর্তমানে ১২ জন কর্মরত। ১০০ শয্যার হাসপাতালে ৬ জন মাত্র পরিচ্ছন্নতা কর্মী। ফলে স্বল্প জনবল নিয়ে চিকিৎসা সেবা দিতে হিমশিম খেতে হচ্ছে। তিনি আরও বলেন, জনবল ও অবকাঠামোগত সমস্যা থাকা সত্বেও সেবাগ্রহণকারীদের সুবিধার্থে হেল্প ডেস্ক/ তথ্য কেন্দ্র স্থাপন করা হয়েছে,অভিযোগনিষ্পত্তিরকমিটিগঠনকরাহয়েছে, দালালদের দৌরাত্ম প্রতিরোধেব্যবস্থা নেয়াহচ্ছেএবং তথ্য কর্মকর্তা তথ্য প্রদানকরছে।
চিকিৎসকগণ হাসপাতালে নির্দিষ্ট সময়ে উপস্থিত থাকেন সেব্যাপারে কঠোর নির্দেশনা প্রদান করেন। সভাপতি সমাপনী বক্তব্যে বলেন, পূর্বের তুলনায় হাসপাতালের সেবার মান অনেক উন্নত হয়েছে। এই ধারাবাহিকতা রক্ষা করতে হবে।
সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন দায়িত্বপ্রাপ্ত তথ্য কর্মকর্তা ডাঃ শাহমিনা , এসএসএন মোঃ আবদুল্লাহ আল মামুন, নাসিং সুপারভাইজার ক্ষমা মন্ডল, এমটি ল্যাব নন্দ দুলাল সরকার, ফার্মাসিষ্ট চায়না বালা বিশ্বাস, ওয়ার্ড মাস্টার মোঃ আবুল হোসেন, এমটি মোঃ মতিউল ইসলাম, সমাজসেবা অফিসার মোঃ রফিকুল ইসলাম, অন্যান্য বিভাগীয় প্রধানগণ,হাসপাতালের নার্স, স্টাফ, ইয়েস ও ইয়েস ফ্রেন্ডস সদস্যবৃন্দ। উক্ত সভাটিসঞ্চালন করেন টিআইবি’র এরিয়া ম্যানেজার-সিই, পুলক রঞ্জন পালিত।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

সনাকের উদ্যোগে স্বাস্থ্যসেবার মানোন্নয়ন বিষয়ক মতবিনিময় সভা

প্রকাশের সময় : ০৯:২৫:৪৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২০

জনতার আদালত অনলাইন ॥ রাজবাড়ী আধুনিকৃত সদর হাসপাতালে স্বাস্থ্যসেবার মানোন্নয়ন এবং সার্বিক উন্নয়নে কার্যকর পদক্ষেপ নেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিলেন রাজবাড়ী সদর হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. দীপক কুমার বিশ্বাস। সনাক সহ-সভাপতিজনাব প্রফেসর মোঃ নুরুজ্জামানের সভাপতিত্বে রাজবাড়ী সদর হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সাথে সনাক রাজবাড়ী’র মতবিনিময় মঙ্গলবার সদর হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়কের কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়। প্রধান অতিথি ছিলেন তত্বাবধায়ক ডা. দীপক কুমার বিশ্বাস। বিশেষ অথিতি ছিলেন আরএমও ডা.শাহনিমানার্গিস।
হাসপাতালেরস্বাস্থ্যসেবার মানোন্নয়নে স্বাগত বক্তব্য ও সভারউদ্দেশ্য বর্ণনা, বিগতসভারকার্যবিররণী উপস্থাপন ও গৃহিতসিদ্ধান্ত সমূহেরঅগ্রগতিপর্যালোচনা, অভিযোগনিষ্পত্তিরকমিটিগঠন, গাইডলাইন ও নির্দেশনাপ্রদান, এম.আরদেরপরিদর্শন/সাক্ষাৎকারেরসময়সূচী, বিভিন্নঅনিয়মেরবিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের তথ্য প্রকাশ, রশিদ ছাড়াটাকা অতিরিক্ত টাকাআদায় (বার্থ সার্টিফিকেট, বেড, কেবিন, ড্রেসিং, ইনজেকশনপুশ ও অন্যান্য), জনবলনিয়োগ, জেন্ডারবিষয়কআলোচনা (নারী ও পুরুষেরআলাদা টেকনিসিয়ান ও চিকিৎসক, নারী ও পুরুষবান্ধবঅবকাঠামো ও নিরাপত্তা) সহবিবিধবিষয়েআলোচনা ও সিদ্ধান্তগ্রহণকরা হয়। মুক্ত আলোচনায় সভার প্রধান অতিথি হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডাঃ দীপক কুমার বিশ্বাস বলেন, রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে চিকিৎসক ও জনবলের সংকট রয়েছে। সকল বিভাগে ৪২ জন ডাক্তারের মধ্যে বর্তমানে ১২ জন কর্মরত। ১০০ শয্যার হাসপাতালে ৬ জন মাত্র পরিচ্ছন্নতা কর্মী। ফলে স্বল্প জনবল নিয়ে চিকিৎসা সেবা দিতে হিমশিম খেতে হচ্ছে। তিনি আরও বলেন, জনবল ও অবকাঠামোগত সমস্যা থাকা সত্বেও সেবাগ্রহণকারীদের সুবিধার্থে হেল্প ডেস্ক/ তথ্য কেন্দ্র স্থাপন করা হয়েছে,অভিযোগনিষ্পত্তিরকমিটিগঠনকরাহয়েছে, দালালদের দৌরাত্ম প্রতিরোধেব্যবস্থা নেয়াহচ্ছেএবং তথ্য কর্মকর্তা তথ্য প্রদানকরছে।
চিকিৎসকগণ হাসপাতালে নির্দিষ্ট সময়ে উপস্থিত থাকেন সেব্যাপারে কঠোর নির্দেশনা প্রদান করেন। সভাপতি সমাপনী বক্তব্যে বলেন, পূর্বের তুলনায় হাসপাতালের সেবার মান অনেক উন্নত হয়েছে। এই ধারাবাহিকতা রক্ষা করতে হবে।
সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন দায়িত্বপ্রাপ্ত তথ্য কর্মকর্তা ডাঃ শাহমিনা , এসএসএন মোঃ আবদুল্লাহ আল মামুন, নাসিং সুপারভাইজার ক্ষমা মন্ডল, এমটি ল্যাব নন্দ দুলাল সরকার, ফার্মাসিষ্ট চায়না বালা বিশ্বাস, ওয়ার্ড মাস্টার মোঃ আবুল হোসেন, এমটি মোঃ মতিউল ইসলাম, সমাজসেবা অফিসার মোঃ রফিকুল ইসলাম, অন্যান্য বিভাগীয় প্রধানগণ,হাসপাতালের নার্স, স্টাফ, ইয়েস ও ইয়েস ফ্রেন্ডস সদস্যবৃন্দ। উক্ত সভাটিসঞ্চালন করেন টিআইবি’র এরিয়া ম্যানেজার-সিই, পুলক রঞ্জন পালিত।