Dhaka ০৭:১৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ৫ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

আত্মরক্ষায় মার্শাল আর্ট শিখবে রাজবাড়ী সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্রীরা

সংবাদদাতা-
  • প্রকাশের সময় : ০৭:১৫:৩৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ২ অক্টোবর ২০১৯
  • / ১৪৭০ জন সংবাদটি পড়েছেন


জনতার আদালত অনলাইন ॥ যৌন হয়রানী বা কোনো ক্ষতি করার চেষ্টা করলে আর রক্ষা নেই। সমুচিত জবাব দিতে আত্মরক্ষার কৌশল হিসেবে মার্শাল আর্ট শিখবে রাজবাড়ী সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্রীরা। আর এ মহতী কাজের উদ্যোগ নিয়েছে রাজবাড়ী জেলা পুলিশ। জেলা পুলিশের প্রশিক্ষিত মার্শাল আর্ট সদস্যরা আগ্রহী ছাত্রীদের প্রশিক্ষণ দেবেন।
বুধবার রাজবাড়ীর পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান রাজবাড়ী সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় চত্ত্বরে আনুষ্ঠানিকভাবে এ কর্মসূচীর উদ্বোধন করেন। এসময় রাজবাড়ীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. সালাউদ্দিন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ফজলুল করিম, রাজবাড়ী সদর থানার ওসি স্বপন কুমার মজুমদার, ডিআইও ওয়ান মীর্জা আবুল কালাম আজাদ, রাজবাড়ী সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক অমরেশ চন্দ্র দাস প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
উদ্বোধনকালে জেলা পুলিশের মার্শাল আর্ট প্রশিক্ষিত সদস্য কবির চৌধুরী, সোহেল রানা, মেহেদী হাসান, খালেদা ও সেলিনা ছাত্রীদের আত্মরক্ষার নানা কৌশল দেখান। উপস্থি’ত ছাত্রীরা মার্শাল আর্ট প্রশিক্ষণে বিপুল উৎসাহী বলে জানিয়েছে।
বিদ্য্যালয়ের প্রধান শিক্ষক অমরেশ চন্দ্র দাস বলেন, আমার ছাত্রীরা স্বাবলম্বী হয়ে উঠবে এটা আমার জন্য খুবই আনন্দের। আমি জেলা পুলিশকে এমন উদ্যোগের জন্য ধন্যবাদ জানাই। আমার স্কুলের ছাত্রীরা আজকের কলাকৌশল দেখে মুগ্ধ আনন্দিত। তারা প্রত্যেকেই মার্শাল আর্ট প্রশিক্ষণে অংশ নেবে বলে আশাবাদী।
রাজবাড়ীর পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান বলেন, ইভটিজারদের প্রতিরোধে মার্শাল আর্ট একটি দারুন অস্ত্র। বলা যেতে পারে এটি একটি নিরস্ত্র যুদ্ধ। যে যুদ্ধে হাত, পা, সাহস আর মনোবল দরকার। এই অস্ত্রটি রপ্ত করতে পারলে কোথাও কোনে সমস্যার মুখোমুখি হলে সেখান থেকে বেরিয়ে আসা সম্ভব। এই কৌশল জানা থাকলে কম শক্তিশালী হয়েও বেশি শক্তিশালী মানুষকে পরাজিত করা সম্ভব। এতে করে মেয়েদের মানসিক শক্তিও বৃদ্ধি পাবে। আমরা এ প্রশিক্ষণের ধারাবাহিকতা রক্ষা করতে চাই।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

আত্মরক্ষায় মার্শাল আর্ট শিখবে রাজবাড়ী সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্রীরা

প্রকাশের সময় : ০৭:১৫:৩৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ২ অক্টোবর ২০১৯


জনতার আদালত অনলাইন ॥ যৌন হয়রানী বা কোনো ক্ষতি করার চেষ্টা করলে আর রক্ষা নেই। সমুচিত জবাব দিতে আত্মরক্ষার কৌশল হিসেবে মার্শাল আর্ট শিখবে রাজবাড়ী সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্রীরা। আর এ মহতী কাজের উদ্যোগ নিয়েছে রাজবাড়ী জেলা পুলিশ। জেলা পুলিশের প্রশিক্ষিত মার্শাল আর্ট সদস্যরা আগ্রহী ছাত্রীদের প্রশিক্ষণ দেবেন।
বুধবার রাজবাড়ীর পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান রাজবাড়ী সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় চত্ত্বরে আনুষ্ঠানিকভাবে এ কর্মসূচীর উদ্বোধন করেন। এসময় রাজবাড়ীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. সালাউদ্দিন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ফজলুল করিম, রাজবাড়ী সদর থানার ওসি স্বপন কুমার মজুমদার, ডিআইও ওয়ান মীর্জা আবুল কালাম আজাদ, রাজবাড়ী সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক অমরেশ চন্দ্র দাস প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
উদ্বোধনকালে জেলা পুলিশের মার্শাল আর্ট প্রশিক্ষিত সদস্য কবির চৌধুরী, সোহেল রানা, মেহেদী হাসান, খালেদা ও সেলিনা ছাত্রীদের আত্মরক্ষার নানা কৌশল দেখান। উপস্থি’ত ছাত্রীরা মার্শাল আর্ট প্রশিক্ষণে বিপুল উৎসাহী বলে জানিয়েছে।
বিদ্য্যালয়ের প্রধান শিক্ষক অমরেশ চন্দ্র দাস বলেন, আমার ছাত্রীরা স্বাবলম্বী হয়ে উঠবে এটা আমার জন্য খুবই আনন্দের। আমি জেলা পুলিশকে এমন উদ্যোগের জন্য ধন্যবাদ জানাই। আমার স্কুলের ছাত্রীরা আজকের কলাকৌশল দেখে মুগ্ধ আনন্দিত। তারা প্রত্যেকেই মার্শাল আর্ট প্রশিক্ষণে অংশ নেবে বলে আশাবাদী।
রাজবাড়ীর পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান বলেন, ইভটিজারদের প্রতিরোধে মার্শাল আর্ট একটি দারুন অস্ত্র। বলা যেতে পারে এটি একটি নিরস্ত্র যুদ্ধ। যে যুদ্ধে হাত, পা, সাহস আর মনোবল দরকার। এই অস্ত্রটি রপ্ত করতে পারলে কোথাও কোনে সমস্যার মুখোমুখি হলে সেখান থেকে বেরিয়ে আসা সম্ভব। এই কৌশল জানা থাকলে কম শক্তিশালী হয়েও বেশি শক্তিশালী মানুষকে পরাজিত করা সম্ভব। এতে করে মেয়েদের মানসিক শক্তিও বৃদ্ধি পাবে। আমরা এ প্রশিক্ষণের ধারাবাহিকতা রক্ষা করতে চাই।