Dhaka ০৮:০০ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ৫ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রাজবাড়ীতে নদী ভাঙনে বসতভিটা ও বেরি বাঁধ রক্ষার দাবিতে মানববন্ধন

সংবাদদাতা-
  • প্রকাশের সময় : ০৮:৫৯:৫৯ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯
  • / ১৩২০ জন সংবাদটি পড়েছেন


জনতার আদালত অনলাইন ॥নদী ভাঙনের কবল থেকে এলাকাবাসী, ফসলি জমি, বসতঘরসহ বেরি বাঁধ রক্ষার দাবিতে বুধবার রাজবাড়ীতে মানববন্ধন ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।
নদী ভাঙন কবলিত এলাকা ও শহর রক্ষা কমিটির ব্যানারে পদ্মার তীর গোদারবাজার এলাকায় ঘণ্টাকাল ব্যাপী মানববন্ধন চলাকালে এক সমাবেশে বক্তৃতা করেন চরধুঞ্চি সরকারি প্রাথমকি বিদ্যালয়ে সহকারী প্রধান শিক্ষক কোহিনুর বেগম, শহর রক্ষা বাঁধ আন্দোলন কমিটির সভাপতি মেহেদী হাসান কবির, ইট ভাটার পরিচালক আলামিন মোস্তফা, আলিফ ওয়াজ কুরুনী প্রমুখ।
মানববন্ধনে বক্তরা বলেন, চলতি সপ্তাহে পদ্মা নদীতে আকস্মিক পানি বৃদ্ধিতে গোদার বাজার, মহাদেবপুরসহ বিভিন্ন এলাকায় ভাঙন দেখা দিয়েছে। ভাঙন হুমকিতে রয়েছে বহু বসতবাড়ী, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, মসজিদ, মাদরাসা, ও ফসলি জমি সহ রাজবাড়ী শহর রক্ষা বাঁধ। ভাঙন রোধে বালুর বস্তা ফেলার কাজ শুরু হলেও তা প্রয়োজনের তুলনায় কম। পানি উন্নয়ন বোর্ডের গাফিলতি ও অদক্ষতার কারণ এবং পানি কমার সাথে সাথে চলমান কাজ বন্ধ করে দেওয়ায় এ ভাঙন প্রবল আকার ধারণ করেছে বলে তারা অভিযোগ করেন।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

রাজবাড়ীতে নদী ভাঙনে বসতভিটা ও বেরি বাঁধ রক্ষার দাবিতে মানববন্ধন

প্রকাশের সময় : ০৮:৫৯:৫৯ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯


জনতার আদালত অনলাইন ॥নদী ভাঙনের কবল থেকে এলাকাবাসী, ফসলি জমি, বসতঘরসহ বেরি বাঁধ রক্ষার দাবিতে বুধবার রাজবাড়ীতে মানববন্ধন ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।
নদী ভাঙন কবলিত এলাকা ও শহর রক্ষা কমিটির ব্যানারে পদ্মার তীর গোদারবাজার এলাকায় ঘণ্টাকাল ব্যাপী মানববন্ধন চলাকালে এক সমাবেশে বক্তৃতা করেন চরধুঞ্চি সরকারি প্রাথমকি বিদ্যালয়ে সহকারী প্রধান শিক্ষক কোহিনুর বেগম, শহর রক্ষা বাঁধ আন্দোলন কমিটির সভাপতি মেহেদী হাসান কবির, ইট ভাটার পরিচালক আলামিন মোস্তফা, আলিফ ওয়াজ কুরুনী প্রমুখ।
মানববন্ধনে বক্তরা বলেন, চলতি সপ্তাহে পদ্মা নদীতে আকস্মিক পানি বৃদ্ধিতে গোদার বাজার, মহাদেবপুরসহ বিভিন্ন এলাকায় ভাঙন দেখা দিয়েছে। ভাঙন হুমকিতে রয়েছে বহু বসতবাড়ী, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, মসজিদ, মাদরাসা, ও ফসলি জমি সহ রাজবাড়ী শহর রক্ষা বাঁধ। ভাঙন রোধে বালুর বস্তা ফেলার কাজ শুরু হলেও তা প্রয়োজনের তুলনায় কম। পানি উন্নয়ন বোর্ডের গাফিলতি ও অদক্ষতার কারণ এবং পানি কমার সাথে সাথে চলমান কাজ বন্ধ করে দেওয়ায় এ ভাঙন প্রবল আকার ধারণ করেছে বলে তারা অভিযোগ করেন।