Dhaka ০৫:২৩ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ১০ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

‘পদ্মা সেতু নির্মাণে মাথা’ গুজব ছড়ানোর অভিযোগে পাংশায় গ্রেফতার ১

সংবাদদাতা-
  • প্রকাশের সময় : ০৭:৪৯:২৫ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১১ জুলাই ২০১৯
  • / ১৪৩৯ জন সংবাদটি পড়েছেন


জনতার আদালত অনলাইন ॥ ‘পদ্মা সেতু নির্মাণে মাথা লাগবে’ এমন গুজব ছড়ানোর অভিযোগে রাজবাড়ীর পাংশা উপজেলার বয়রাট গ্রাম থেকে বৃহস্পতিবার সকালে পার্থ আল হাসান নামে এক যুবককে গ্রেফতার করেছে র‌্যাবÑ৮ ফরিদপুর ক্যাম্পের সদস্যরা। সে একই গ্রামের আব্দুস সালামের ছেলে। এসময় তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোনটি জব্দ করা হয়।
র‌্যাবÑ৮ সূত্র জানায়, র‌্যাব-৮ এর সাইবার মনিটরিং সেল কিছু দিন আগে সামাজিক যোগাযোগের কাজে ব্যবহৃত একটি ফেসবুক আইডি শনাক্ত করে। আইডিটির কার্যক্রম পর্যবেক্ষণের মাধ্যমে দেখা যায়, ওই আইডি ব্যবহারকারী রাষ্ট্রীয় বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ ইস্যুতে গুজব সৃষ্টি করে জনমানুষের মধ্যে ভীতি সঞ্চারসহ আইন শৃংখলা পরিপন্থী কার্যক্রম চালিয়ে আসছে।
সম্প্রতি ‘পদ্মা সেতু নির্মাণ কাজ পরিচালনায় মানুষের মাথা লাগবে। দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে একটি চক্র মানুষের মাথা কেটে নিয়ে যাচ্ছে’ বলে ওই ফেসবুক আইডি থেকে গুজব রটানো হয়েছে। এই গুজব সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যাপকভাবে ভাইরাল হয় এবং জনমনে মারাত্মক ভীতির সঞ্চার করেছে। র‌্যাব-৮ ফরিদপুর ক্যাম্প গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে জানতে পারে পাংশা এলাকার জনৈক মো. পার্থ আল হাসান ফেসবুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুক আইডি থেকে এই রকম একটি পোস্ট করে। বৃহস্পতিবার সকালে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করা হয়।
র‌্যাবÑ৮ ফরিদপুর ক্যাম্পের অধিনায়ক মেজর শেখ নাজমুল আরেফিন পরাগ জানান, র‌্যাবের জিজ্ঞাসাবাদে পার্থ তার অপরাধ স্বীকার করেছে। তার এন্ড্রয়েট মোবাইল ফোন সেটটি জব্দ করা হয়েছে। এব্যপারে পার্থর বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে পাংশা থানায় মামলা দায়েরের প্রস্ততি চলছে। এর সাথে জড়িত অন্যদের শনাক্ত করে তাদেরকও গ্রেফতার করা হবে।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

‘পদ্মা সেতু নির্মাণে মাথা’ গুজব ছড়ানোর অভিযোগে পাংশায় গ্রেফতার ১

প্রকাশের সময় : ০৭:৪৯:২৫ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১১ জুলাই ২০১৯


জনতার আদালত অনলাইন ॥ ‘পদ্মা সেতু নির্মাণে মাথা লাগবে’ এমন গুজব ছড়ানোর অভিযোগে রাজবাড়ীর পাংশা উপজেলার বয়রাট গ্রাম থেকে বৃহস্পতিবার সকালে পার্থ আল হাসান নামে এক যুবককে গ্রেফতার করেছে র‌্যাবÑ৮ ফরিদপুর ক্যাম্পের সদস্যরা। সে একই গ্রামের আব্দুস সালামের ছেলে। এসময় তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোনটি জব্দ করা হয়।
র‌্যাবÑ৮ সূত্র জানায়, র‌্যাব-৮ এর সাইবার মনিটরিং সেল কিছু দিন আগে সামাজিক যোগাযোগের কাজে ব্যবহৃত একটি ফেসবুক আইডি শনাক্ত করে। আইডিটির কার্যক্রম পর্যবেক্ষণের মাধ্যমে দেখা যায়, ওই আইডি ব্যবহারকারী রাষ্ট্রীয় বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ ইস্যুতে গুজব সৃষ্টি করে জনমানুষের মধ্যে ভীতি সঞ্চারসহ আইন শৃংখলা পরিপন্থী কার্যক্রম চালিয়ে আসছে।
সম্প্রতি ‘পদ্মা সেতু নির্মাণ কাজ পরিচালনায় মানুষের মাথা লাগবে। দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে একটি চক্র মানুষের মাথা কেটে নিয়ে যাচ্ছে’ বলে ওই ফেসবুক আইডি থেকে গুজব রটানো হয়েছে। এই গুজব সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যাপকভাবে ভাইরাল হয় এবং জনমনে মারাত্মক ভীতির সঞ্চার করেছে। র‌্যাব-৮ ফরিদপুর ক্যাম্প গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে জানতে পারে পাংশা এলাকার জনৈক মো. পার্থ আল হাসান ফেসবুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুক আইডি থেকে এই রকম একটি পোস্ট করে। বৃহস্পতিবার সকালে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করা হয়।
র‌্যাবÑ৮ ফরিদপুর ক্যাম্পের অধিনায়ক মেজর শেখ নাজমুল আরেফিন পরাগ জানান, র‌্যাবের জিজ্ঞাসাবাদে পার্থ তার অপরাধ স্বীকার করেছে। তার এন্ড্রয়েট মোবাইল ফোন সেটটি জব্দ করা হয়েছে। এব্যপারে পার্থর বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে পাংশা থানায় মামলা দায়েরের প্রস্ততি চলছে। এর সাথে জড়িত অন্যদের শনাক্ত করে তাদেরকও গ্রেফতার করা হবে।