Dhaka ০৬:৫৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রাজবাড়ীতে রহিম হত্যাকারীদের গ্রেফতার ও ফাঁসির দাবিতে মানববন্ধন

সংবাদদাতা-
  • প্রকাশের সময় : ০৯:২২:৫০ অপরাহ্ন, সোমবার, ৮ জুলাই ২০১৯
  • / ১৬৫০ জন সংবাদটি পড়েছেন


জনতার আদালত অনলাইন ॥ রাজবাড়ীর কালুখালী উপজেলার মাজবাড়ী ইউনিয়নের মোহনপুর গ্রামের বাসিন্দা আব্দুর রহিম হত্যাকারীদের গ্রেফতার ও ফাঁসির দাবিতে রোববার রাজবাড়ীতে মানববন্ধন সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।
মাজবাড়ি ইউনিয়ন এলাকাবাসীর উদ্যোগে বেলা ১১টায় স্থানীয় শহীদ মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতি চত্ত্বরে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে নিহত রহিমের বাবা কেসমত শেখ, মা সামিরননেছা, বোন কমেলা বেগম, ওমেলা বেগম, ভাই রফিক শেখসহ আত্মীয় স্বজন এবং এলাকার সর্বস্তরের মানুষ অংশগ্রহণ করেন।
এসময় আব্দুর রহিমের বাবা কেসমত শেখ বলেন, পুত্রবধূ সুফিয়ার সাথে এলাকার পল্লী চিকিৎসক আনোয়ারের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। এনিয়ে স্বামী স্ত্রীর মধ্যে মনোমালিন্য হয়। সুফিয়া আর আনোয়ার মিলে আমার ছেলেকে হত্যা করেছে। আমি আমার ছেলে হত্যার বিচার চাই। ওদের ফাঁসি দাবি করি।
প্রসঙ্গত, নিখোঁজের দুইদিন পর গত ১৯ জুন বুধবার মাজবাড়ি ইউনিয়নের কাসমিয়ার বিল থেকে আব্দুর রহিমের অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। পরদিন ২০ জুন নিহতের ভাই রফিক শেখ বাদী হয়ে আব্দুর রহিমের স্ত্রী সুফিয়া, প্রেমিক আনোয়ারসহ তিনজনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরও তিনজনের বিরুদ্ধে কালুখালী থানায় মামলা করেন। পুলিশ সুফিয়াকে গ্রেফতার করলেও বাকীরা এখনও ধরাছোঁয়ার বাইরে।
কালুখালী থানার ওসি শহীদুল ইসলাম জানান, আনোয়ার এবং উজ্জ্বলকে গ্রেফতার করতে বেশ কয়েকবার অভিযান চালানো হয়। কিন্তু তারা পলাতক থাকায় গ্রেফতার করা যায়নি। তাদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

রাজবাড়ীতে রহিম হত্যাকারীদের গ্রেফতার ও ফাঁসির দাবিতে মানববন্ধন

প্রকাশের সময় : ০৯:২২:৫০ অপরাহ্ন, সোমবার, ৮ জুলাই ২০১৯


জনতার আদালত অনলাইন ॥ রাজবাড়ীর কালুখালী উপজেলার মাজবাড়ী ইউনিয়নের মোহনপুর গ্রামের বাসিন্দা আব্দুর রহিম হত্যাকারীদের গ্রেফতার ও ফাঁসির দাবিতে রোববার রাজবাড়ীতে মানববন্ধন সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।
মাজবাড়ি ইউনিয়ন এলাকাবাসীর উদ্যোগে বেলা ১১টায় স্থানীয় শহীদ মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতি চত্ত্বরে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে নিহত রহিমের বাবা কেসমত শেখ, মা সামিরননেছা, বোন কমেলা বেগম, ওমেলা বেগম, ভাই রফিক শেখসহ আত্মীয় স্বজন এবং এলাকার সর্বস্তরের মানুষ অংশগ্রহণ করেন।
এসময় আব্দুর রহিমের বাবা কেসমত শেখ বলেন, পুত্রবধূ সুফিয়ার সাথে এলাকার পল্লী চিকিৎসক আনোয়ারের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। এনিয়ে স্বামী স্ত্রীর মধ্যে মনোমালিন্য হয়। সুফিয়া আর আনোয়ার মিলে আমার ছেলেকে হত্যা করেছে। আমি আমার ছেলে হত্যার বিচার চাই। ওদের ফাঁসি দাবি করি।
প্রসঙ্গত, নিখোঁজের দুইদিন পর গত ১৯ জুন বুধবার মাজবাড়ি ইউনিয়নের কাসমিয়ার বিল থেকে আব্দুর রহিমের অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। পরদিন ২০ জুন নিহতের ভাই রফিক শেখ বাদী হয়ে আব্দুর রহিমের স্ত্রী সুফিয়া, প্রেমিক আনোয়ারসহ তিনজনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরও তিনজনের বিরুদ্ধে কালুখালী থানায় মামলা করেন। পুলিশ সুফিয়াকে গ্রেফতার করলেও বাকীরা এখনও ধরাছোঁয়ার বাইরে।
কালুখালী থানার ওসি শহীদুল ইসলাম জানান, আনোয়ার এবং উজ্জ্বলকে গ্রেফতার করতে বেশ কয়েকবার অভিযান চালানো হয়। কিন্তু তারা পলাতক থাকায় গ্রেফতার করা যায়নি। তাদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।