Dhaka 3:09 pm, Thursday, 8 December 2022

রাজবাড়ীর ঈদ বাজারে ধুন্ধুমার কেনাকাটা

সংবাদদাতা-
  • প্রকাশের সময় : 09:39:36 pm, Saturday, 1 June 2019
  • / 2512 জন সংবাদটি পড়েছেন


জনতার আদালত অনলাইন ॥ প্রচন্ডভাবে জমে উঠেছে রাজবাড়ীর ঈদ বাজার। চলছে ধুন্ধুমার কেনাকাটা। দম ফেলার ফুসরত নেই দোকানীদের। সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত শহরের মার্কেটগুলোতে এখন ক্রেতাদের ভিড়।
রাজবাড়ী শহরের কাদেরিয়া সুপার মার্কেট, জলিল খান সুপার মার্কেট, মানাক্কা টাওয়ার, নিউ মার্কেটের দোকানগুলোতে সকাল থেকে রাত পর্যন্ত উপচে পড়া ভিড়। ব্যবসায়ীরা নানান রকম ডিজাইনের জামা, কাপড় তুলে ক্রেতাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করছেন। এবছর ঈদের আকর্ষণ ক্যাটস আই, জিংক, মুভতি, বার্বিস আই, বিন্দু, রিবম্যান, ইজি লং গাউন, সুতি বুটিকস, ওয়ান পিচ আর টু পিচ। কিশোরী আর তরুণীরা এসব কিনতে হুমড়ি খেয়ে পড়ছে। গৃহবধূদের সন্তুষ্টি অবশ্য শাড়িতেই। এ তালিকায় জামদানীই রয়েছে এগিয়ে। নতুন কালেকশনে আছে ভিনয়, বিপুল, ট্রেক্স ওয়ান, লাকা, নাগিন আর মনপুরা।
আর ছেলেদের পছন্দের তালিকায় বরাবরের মতোই গেঞ্জি, শার্ট, প্যান্ট, পাঞ্জাবী আর ফতুয়া। নতুন চমক আরমান ফাইভ, চায়না প্যান্ট, ভিট এবং ডি ফর ইউ। শিশুরাও ঈদের নতুন জামা পড়ার আনন্দে দিন গুনছে। কাপড়ের দোকানের পাশাপাশি ভিড় রয়েছে জুতা স্যােন্ডেলের দোকানেও। চাইনীজ আর লোপাল ব্রান্ডের স্যান্ডেলই বেশি পছন্দ ক্রেতাদের।
ব্যবসায়ীরা বলছেন, ঈদের বাজার হিসেবে বেচাকেনা ভালোই হচ্ছে। নিউ ভবানী বস্ত্রালয়ের ম্যানেজার শুভ জানান, সব ধরণের পোশাকই বিক্রি হচ্ছে। গাউন সাড়ে তিন হাজার থেকে চার হাজার টাকা, গাড়ারা পাঁচ হাজার থেকে সাত হাজার টাকা , লেহেঙ্গা ছয়/সাত হাজার টাকা পর্যন্ত বিক্রি হচ্ছে। এছাড়া থ্রি পিচ বিক্রি হচ্ছে নানা দামে। আর ছেলেদের গেঞ্জি এক হাজার টাকা থেকে শুরু করে তিন হাজার টাকা পর্যন্ত বিক্রি হচ্ছে। জামার দামও একই রকম।
ক্রেতারা বলছেন, ডিজাইন পছন্দ করার মতই। কিন্তু দাম একটু বেশি। তবে দাম নিয়ে সন্তোষও প্রকাশ করেছে অনেকেই। জামা কাপড়ের দোকান ছাড়াও ভিড় রয়েছে জুতা, স্যান্ডেল, কসমেটিকস এর দোকানে।
বাজারের নিরাপত্তায় রাজবাড়ী জেলা পুলিশ প্রশাসনের উদ্যোগে বিশেষ নিরাপত্তার ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। যে কোনো প্রকার অপ্রীতিকর পরিস্থিতি ঠেকাতে সার্বক্ষণিক পুলিশ টহল দিচ্ছে। সাদা পোশাকের পুলিশও রয়েছে বিভিন্ন স্থানে।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

রাজবাড়ীর ঈদ বাজারে ধুন্ধুমার কেনাকাটা

প্রকাশের সময় : 09:39:36 pm, Saturday, 1 June 2019


জনতার আদালত অনলাইন ॥ প্রচন্ডভাবে জমে উঠেছে রাজবাড়ীর ঈদ বাজার। চলছে ধুন্ধুমার কেনাকাটা। দম ফেলার ফুসরত নেই দোকানীদের। সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত শহরের মার্কেটগুলোতে এখন ক্রেতাদের ভিড়।
রাজবাড়ী শহরের কাদেরিয়া সুপার মার্কেট, জলিল খান সুপার মার্কেট, মানাক্কা টাওয়ার, নিউ মার্কেটের দোকানগুলোতে সকাল থেকে রাত পর্যন্ত উপচে পড়া ভিড়। ব্যবসায়ীরা নানান রকম ডিজাইনের জামা, কাপড় তুলে ক্রেতাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করছেন। এবছর ঈদের আকর্ষণ ক্যাটস আই, জিংক, মুভতি, বার্বিস আই, বিন্দু, রিবম্যান, ইজি লং গাউন, সুতি বুটিকস, ওয়ান পিচ আর টু পিচ। কিশোরী আর তরুণীরা এসব কিনতে হুমড়ি খেয়ে পড়ছে। গৃহবধূদের সন্তুষ্টি অবশ্য শাড়িতেই। এ তালিকায় জামদানীই রয়েছে এগিয়ে। নতুন কালেকশনে আছে ভিনয়, বিপুল, ট্রেক্স ওয়ান, লাকা, নাগিন আর মনপুরা।
আর ছেলেদের পছন্দের তালিকায় বরাবরের মতোই গেঞ্জি, শার্ট, প্যান্ট, পাঞ্জাবী আর ফতুয়া। নতুন চমক আরমান ফাইভ, চায়না প্যান্ট, ভিট এবং ডি ফর ইউ। শিশুরাও ঈদের নতুন জামা পড়ার আনন্দে দিন গুনছে। কাপড়ের দোকানের পাশাপাশি ভিড় রয়েছে জুতা স্যােন্ডেলের দোকানেও। চাইনীজ আর লোপাল ব্রান্ডের স্যান্ডেলই বেশি পছন্দ ক্রেতাদের।
ব্যবসায়ীরা বলছেন, ঈদের বাজার হিসেবে বেচাকেনা ভালোই হচ্ছে। নিউ ভবানী বস্ত্রালয়ের ম্যানেজার শুভ জানান, সব ধরণের পোশাকই বিক্রি হচ্ছে। গাউন সাড়ে তিন হাজার থেকে চার হাজার টাকা, গাড়ারা পাঁচ হাজার থেকে সাত হাজার টাকা , লেহেঙ্গা ছয়/সাত হাজার টাকা পর্যন্ত বিক্রি হচ্ছে। এছাড়া থ্রি পিচ বিক্রি হচ্ছে নানা দামে। আর ছেলেদের গেঞ্জি এক হাজার টাকা থেকে শুরু করে তিন হাজার টাকা পর্যন্ত বিক্রি হচ্ছে। জামার দামও একই রকম।
ক্রেতারা বলছেন, ডিজাইন পছন্দ করার মতই। কিন্তু দাম একটু বেশি। তবে দাম নিয়ে সন্তোষও প্রকাশ করেছে অনেকেই। জামা কাপড়ের দোকান ছাড়াও ভিড় রয়েছে জুতা, স্যান্ডেল, কসমেটিকস এর দোকানে।
বাজারের নিরাপত্তায় রাজবাড়ী জেলা পুলিশ প্রশাসনের উদ্যোগে বিশেষ নিরাপত্তার ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। যে কোনো প্রকার অপ্রীতিকর পরিস্থিতি ঠেকাতে সার্বক্ষণিক পুলিশ টহল দিচ্ছে। সাদা পোশাকের পুলিশও রয়েছে বিভিন্ন স্থানে।