Dhaka ১১:৫৯ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ০৩ অক্টোবর ২০২৩, ১৮ আশ্বিন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

রাজবাড়ীতে শিশু ধর্ষণের দায়ে এক ব্যক্তির যাবজ্জীবন কারাদন্ড

সংবাদদাতা-
  • প্রকাশের সময় : ০৭:৫৭:০১ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৯ মে ২০১৯
  • / ১৫৪৮ জন সংবাদটি পড়েছেন


জনতার আদালত অনলাইন ॥ রাজবাড়ীতে আট বছরের শিশুকে ধর্ষণের দায়ে হামেদ মোল্লা (৫৫) নামে এক ব্যক্তিকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড, ২০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও এক বছরের কারাদন্ড দিয়েছেন আদালত। বুধবার দুপুরে রাজবাড়ী নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল আদালতের বিচারক শারমীন নিগার এ রায় ঘোষণা করেন। দন্ডপ্রাপ্ত হামেদ মোল্লা রাজবাড়ীর কালুখালী উপজেলার বড় পাতুরিয়া গ্রামের মৃত কেসমত সরদারের ছেলে।
আদালত ও মামলা সূত্রে জানা যায়, ২০১৭ সালের ২১ জুন তারিখ দুপুরে হামেদ মোল্লা ওই শিশুটিকে কলাই তোলার কথা বলে বাড়ির অনতিদূরে একটি ক্ষেতে নিয়ে ধর্ষণ করে। অসুস্থ অবস্থায় মেয়েটি বাসায় ফিরে তার মাকে সবকিছু খুলে বলে। পরদিন ২২ জুন শিশুটিকে পাংশা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। এব্যাপারে ২২ জুন তারিখে শিশুটির বাবা বাদী হয়ে কালুখালী থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।
মামলার বিচারক সাক্ষীদের সাক্ষ্য গ্রহণ ও কাগজপত্র পর্যালোচনা করে উল্লেখিত রায় ঘোষণা করেন। রাষ্ট্রপক্ষে মামলা পরিচালনা করেন অ্যডভোকেট উমা সেন। বিবাদী পক্ষে মামলা পরিচালনা করেন অ্যডভোকেট মো. কামরুজ্জামান।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

রাজবাড়ীতে শিশু ধর্ষণের দায়ে এক ব্যক্তির যাবজ্জীবন কারাদন্ড

প্রকাশের সময় : ০৭:৫৭:০১ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৯ মে ২০১৯


জনতার আদালত অনলাইন ॥ রাজবাড়ীতে আট বছরের শিশুকে ধর্ষণের দায়ে হামেদ মোল্লা (৫৫) নামে এক ব্যক্তিকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড, ২০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও এক বছরের কারাদন্ড দিয়েছেন আদালত। বুধবার দুপুরে রাজবাড়ী নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল আদালতের বিচারক শারমীন নিগার এ রায় ঘোষণা করেন। দন্ডপ্রাপ্ত হামেদ মোল্লা রাজবাড়ীর কালুখালী উপজেলার বড় পাতুরিয়া গ্রামের মৃত কেসমত সরদারের ছেলে।
আদালত ও মামলা সূত্রে জানা যায়, ২০১৭ সালের ২১ জুন তারিখ দুপুরে হামেদ মোল্লা ওই শিশুটিকে কলাই তোলার কথা বলে বাড়ির অনতিদূরে একটি ক্ষেতে নিয়ে ধর্ষণ করে। অসুস্থ অবস্থায় মেয়েটি বাসায় ফিরে তার মাকে সবকিছু খুলে বলে। পরদিন ২২ জুন শিশুটিকে পাংশা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। এব্যাপারে ২২ জুন তারিখে শিশুটির বাবা বাদী হয়ে কালুখালী থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।
মামলার বিচারক সাক্ষীদের সাক্ষ্য গ্রহণ ও কাগজপত্র পর্যালোচনা করে উল্লেখিত রায় ঘোষণা করেন। রাষ্ট্রপক্ষে মামলা পরিচালনা করেন অ্যডভোকেট উমা সেন। বিবাদী পক্ষে মামলা পরিচালনা করেন অ্যডভোকেট মো. কামরুজ্জামান।