Dhaka ০৮:১৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ৫ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

একইদিনে চিরবিদায় নিলেন রাজবাড়ীর ২ নক্ষত্র

সংবাদদাতা-
  • প্রকাশের সময় : ০৯:৪৩:৩৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৪ জুলাই ২০১৮
  • / ১৫০৫ জন সংবাদটি পড়েছেন

জনতার আদালত অনলাইন ॥ রাজবাড়ীর সামাজিক ও সাংস্কৃতিক অঙ্গনের দুই নক্ষত্র অধ্যক্ষ কেরামত আলী ও সাবিত্রী চক্রবর্তী একই দিনে চলে গেলেন না ফেরার দেশে।
রাজবাড়ী সরকারি কলেজের প্রাক্তন অধ্যক্ষ রাজবাড়ী পৌর শহরের সজ্জনকান্দা এলাকার বাসিন্দা প্রফেসর কেরামত আলী অ্যামেরিকার নিউজার্সির প্যাটারসন শহরের একটি হাসপাতালে ২৩ জুলাই সোমবার স্থানীয় সময় বিকেল ৫টা ৫০ মিনিটে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন (ইন্নালিল্লাহি..রাজিউন)। তার বয়স হয়েছিল ৭০ বছর। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, দুই মেয়ে, আত্মীয় স্বজন ও গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। দীর্ঘদিন তিনি নানান জটিল রোগে ভুগছিলেন। প্রফেসর কেরামত আলী সমকাল সুহৃদ সমাবেশ রাজবাড়ী শাখার উপদেষ্টা ছিলেন। রাজবাড়ী সচেতন নাগরিক কমিটির সভাপতির দায়িত্বও পালন করেছেন দীর্ঘদিন। জড়িত ছিলেন বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডের সাথেও। সম্প্রতি অ্যামেরিকায় তার ছোট মেয়ের বাসায় বেড়াতে গিয়েছিলেন তিনি।
অপরদিকে সোমবার দিবাগত রাত দুইটায় বার্ধক্যজনিত কারণে পরলোকগমন করেছেন রাজবাড়ীর সাংস্কৃতিক অঙ্গনের উজ্জ্বল নক্ষত্র সাবিত্রী চক্রবর্তী। তার বয়স হয়েছিল ৯৪ বছর। মৃত্যুকালে তিনি তিন ছেলে, তিন মেয়ে, নাতি নাতনী, আত্মীয় স্বজন ও গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। আবোল তাবোল শিশু সংগঠনের প্রধান পৃষ্ঠপোষক সাবিত্রী চক্রবর্তী জেলার বিশিষ্ট আইনজীবী ও নারীনেত্রী অ্যড. দেবাহুতি চক্রবর্তীর মা। জেলার সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডে তার অনেক অবদান রয়েছে। মঙ্গলবার দুপুর দুইটায় রাজবাড়ী পৌর মহাশ্মশানে তার শেষকৃত্য সম্পন্ন হয়। জেলার বিশিষ্টজন এসময় উপস্থিত ছিলেন।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

একইদিনে চিরবিদায় নিলেন রাজবাড়ীর ২ নক্ষত্র

প্রকাশের সময় : ০৯:৪৩:৩৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৪ জুলাই ২০১৮

জনতার আদালত অনলাইন ॥ রাজবাড়ীর সামাজিক ও সাংস্কৃতিক অঙ্গনের দুই নক্ষত্র অধ্যক্ষ কেরামত আলী ও সাবিত্রী চক্রবর্তী একই দিনে চলে গেলেন না ফেরার দেশে।
রাজবাড়ী সরকারি কলেজের প্রাক্তন অধ্যক্ষ রাজবাড়ী পৌর শহরের সজ্জনকান্দা এলাকার বাসিন্দা প্রফেসর কেরামত আলী অ্যামেরিকার নিউজার্সির প্যাটারসন শহরের একটি হাসপাতালে ২৩ জুলাই সোমবার স্থানীয় সময় বিকেল ৫টা ৫০ মিনিটে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন (ইন্নালিল্লাহি..রাজিউন)। তার বয়স হয়েছিল ৭০ বছর। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, দুই মেয়ে, আত্মীয় স্বজন ও গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। দীর্ঘদিন তিনি নানান জটিল রোগে ভুগছিলেন। প্রফেসর কেরামত আলী সমকাল সুহৃদ সমাবেশ রাজবাড়ী শাখার উপদেষ্টা ছিলেন। রাজবাড়ী সচেতন নাগরিক কমিটির সভাপতির দায়িত্বও পালন করেছেন দীর্ঘদিন। জড়িত ছিলেন বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডের সাথেও। সম্প্রতি অ্যামেরিকায় তার ছোট মেয়ের বাসায় বেড়াতে গিয়েছিলেন তিনি।
অপরদিকে সোমবার দিবাগত রাত দুইটায় বার্ধক্যজনিত কারণে পরলোকগমন করেছেন রাজবাড়ীর সাংস্কৃতিক অঙ্গনের উজ্জ্বল নক্ষত্র সাবিত্রী চক্রবর্তী। তার বয়স হয়েছিল ৯৪ বছর। মৃত্যুকালে তিনি তিন ছেলে, তিন মেয়ে, নাতি নাতনী, আত্মীয় স্বজন ও গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। আবোল তাবোল শিশু সংগঠনের প্রধান পৃষ্ঠপোষক সাবিত্রী চক্রবর্তী জেলার বিশিষ্ট আইনজীবী ও নারীনেত্রী অ্যড. দেবাহুতি চক্রবর্তীর মা। জেলার সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডে তার অনেক অবদান রয়েছে। মঙ্গলবার দুপুর দুইটায় রাজবাড়ী পৌর মহাশ্মশানে তার শেষকৃত্য সম্পন্ন হয়। জেলার বিশিষ্টজন এসময় উপস্থিত ছিলেন।