Dhaka 2:31 am, Friday, 9 December 2022

রাজবাড়ীতে বিপুল পরিমাণ নকল ডিটারজেন্ট পাউডার উদ্ধার ॥ গ্রেফতার ৪

সংবাদদাতা-
  • প্রকাশের সময় : 06:01:00 pm, Saturday, 30 June 2018
  • / 3531 জন সংবাদটি পড়েছেন

জনতার আদালদ অনলাইন ॥ বাজারে চাহিদা আছে এমন ডিটারজেন্ট পাউডারের নাম একটু ঘুরিয়ে ফিরিয়ে প্যাকেটের রং ডিজাইন ঠিক রেখে একই পাউডার বিভিন্ন প্যাকেটের ভেতরে ভরে বাজারজাত করছিল একটি চক্র। রাজবাড়ীর ডিবি পুলিশ চক্রটির সন্ধান পেয়ে বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে বালিয়াকান্দি উপজেলার জঙ্গল ইউনিয়নের সমাধিনগর বাজারে অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমাণ নকল ডিটারজেন্ট পাউডার, কাঁচামাল ও বিভিন্ন কোম্পানীর নাম লেখা খালি প্যাকেট জব্দ করেছে। এসময় কারখানার চার শ্রমিককে আটক করা হয়। তবে আটক করা যায়নি কারখানার মালিক বিচিত্র বিশ্বাসকে। সে একই ইউনিয়নের বিকাশ রঞ্জন বিশ্বাসের ছেলে। আটককৃতরা হলো মিঠুন মালাকার, লিটন রায়, সবুজ মন্ডল ও রাজু মন্ডল। এদের সবার বাড়ি একই ইউনিয়নের আগপোটরা গ্রামে। তারা সবাই কারখানাটির শ্রমিক হিসেবে কাজ করতো।
রাজবাড়ীর ডিবি সূত্র জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে খবর পেয়ে বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত সাড়ে তিনটার দিকে অভিযান চালিয়ে সমাধিনগর বাজারের বিচিত্র বিশ্বাসের ঘর থেকে মোট তিনশ পাঁচ বস্তা নকল ডিটারজেন্ট পাউডার ও বিভিন্ন কোম্পানীর খালি প্যাকেট উদ্ধার করা হয়। এর মধ্যে ৮০ বস্তা কাঁচামাল ও ২০৫ বস্তা প্যাকেটজাত করা রয়েছে। জব্দকৃত এসব পাউডারের বাজারমূল্য প্রায় ১৫ লাখ টাকা। এরা একই পাউডার বিভিন্ন প্যাকেটে ভরে বালিয়াকান্দিসহ আশেপাশের হাট বাজার গ্রাম গঞ্জে বিক্রি করতো। হুইলের প্যাকেটকে উইলস, সার্ফ এক্সেলকে সুপার এক্সেল, ঘড়িকে ঘুড়ি, রিনকে রিম ও রেইন নাম দিয়ে রং ডিজাইন ঠিক রেখে এরা মানুষের সাথে প্রতারণা করতো। প্যাকেটের পেছনে বিএসটিআই এর লোগোও ছিল। ঠিকানা দেয়া ছিল মুক্তা কেমিকেল কোং, মাদ্রাসা রোড, বরগুনা। এছাড়া তারা নকল টুথ পাউডারও সরবরাহ করতো।
রাজবাড়ী ডিবি পুলিশের ওসি কামাল হোসেন জানান, দীর্ঘ সাত মাস ধরে নকল ডিটারজেন্ট বিক্রির মাধ্যমে মানুষের সাথে প্রতারণা করে আসছিল। প্রতারণা চক্রের মূল হোতা বিচিত্র বিশ্বাসকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। এব্যাপারে কারখানার মালিক, আটক চার শ্রমিকসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

রাজবাড়ীতে বিপুল পরিমাণ নকল ডিটারজেন্ট পাউডার উদ্ধার ॥ গ্রেফতার ৪

প্রকাশের সময় : 06:01:00 pm, Saturday, 30 June 2018

জনতার আদালদ অনলাইন ॥ বাজারে চাহিদা আছে এমন ডিটারজেন্ট পাউডারের নাম একটু ঘুরিয়ে ফিরিয়ে প্যাকেটের রং ডিজাইন ঠিক রেখে একই পাউডার বিভিন্ন প্যাকেটের ভেতরে ভরে বাজারজাত করছিল একটি চক্র। রাজবাড়ীর ডিবি পুলিশ চক্রটির সন্ধান পেয়ে বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে বালিয়াকান্দি উপজেলার জঙ্গল ইউনিয়নের সমাধিনগর বাজারে অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমাণ নকল ডিটারজেন্ট পাউডার, কাঁচামাল ও বিভিন্ন কোম্পানীর নাম লেখা খালি প্যাকেট জব্দ করেছে। এসময় কারখানার চার শ্রমিককে আটক করা হয়। তবে আটক করা যায়নি কারখানার মালিক বিচিত্র বিশ্বাসকে। সে একই ইউনিয়নের বিকাশ রঞ্জন বিশ্বাসের ছেলে। আটককৃতরা হলো মিঠুন মালাকার, লিটন রায়, সবুজ মন্ডল ও রাজু মন্ডল। এদের সবার বাড়ি একই ইউনিয়নের আগপোটরা গ্রামে। তারা সবাই কারখানাটির শ্রমিক হিসেবে কাজ করতো।
রাজবাড়ীর ডিবি সূত্র জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে খবর পেয়ে বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত সাড়ে তিনটার দিকে অভিযান চালিয়ে সমাধিনগর বাজারের বিচিত্র বিশ্বাসের ঘর থেকে মোট তিনশ পাঁচ বস্তা নকল ডিটারজেন্ট পাউডার ও বিভিন্ন কোম্পানীর খালি প্যাকেট উদ্ধার করা হয়। এর মধ্যে ৮০ বস্তা কাঁচামাল ও ২০৫ বস্তা প্যাকেটজাত করা রয়েছে। জব্দকৃত এসব পাউডারের বাজারমূল্য প্রায় ১৫ লাখ টাকা। এরা একই পাউডার বিভিন্ন প্যাকেটে ভরে বালিয়াকান্দিসহ আশেপাশের হাট বাজার গ্রাম গঞ্জে বিক্রি করতো। হুইলের প্যাকেটকে উইলস, সার্ফ এক্সেলকে সুপার এক্সেল, ঘড়িকে ঘুড়ি, রিনকে রিম ও রেইন নাম দিয়ে রং ডিজাইন ঠিক রেখে এরা মানুষের সাথে প্রতারণা করতো। প্যাকেটের পেছনে বিএসটিআই এর লোগোও ছিল। ঠিকানা দেয়া ছিল মুক্তা কেমিকেল কোং, মাদ্রাসা রোড, বরগুনা। এছাড়া তারা নকল টুথ পাউডারও সরবরাহ করতো।
রাজবাড়ী ডিবি পুলিশের ওসি কামাল হোসেন জানান, দীর্ঘ সাত মাস ধরে নকল ডিটারজেন্ট বিক্রির মাধ্যমে মানুষের সাথে প্রতারণা করে আসছিল। প্রতারণা চক্রের মূল হোতা বিচিত্র বিশ্বাসকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। এব্যাপারে কারখানার মালিক, আটক চার শ্রমিকসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি চলছে।